শনিবার | সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০ | ১১ আশ্বিন ১৪২৭

করোনা

এবার ইনহেলড ভ্যাকসিনের ট্রায়াল

বণিক বার্তা ডেস্ক

নভেল করোনাভাইরাসের একটি ভ্যাকসিনের জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করে বসে আছে গোটা বিশ্ব। একটি ভ্যাকসিনই পারে মহামারীর কবল থেকে পৃথিবীকে উদ্ধার করতে। নানাভাবে সে ভ্যাকসিন আবিষ্কারের প্রক্রিয়া অব্যাহতও আছে। সেই ধারাবাহিকতায় এবার যুক্তরাজ্যের গবেষকরা ট্রায়াল শুরু করতে যাচ্ছেন করোনাভাইরাসের ইনহেলড ভ্যাকসিনের। গবেষকদের মতে, এভাবে গ্রহণ করলে ভ্যাকসিনের ডোজ সরাসরি ফুসফুসে গিয়ে পৌঁছবে। যা ইনজেকশনের মাধ্যমে নেয়া ভ্যাকসিন ডোজের চেয়ে ভালো ইমিউন প্রতিক্রিয়া দেখাতে পারে।

ইম্পেরিয়েল কলেজ লন্ডনের দল দুটি সামনের সারির প্রার্থীকে এর বিকাশে ব্যবহার করবে:

একটি অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির দল, যারা সম্প্রতি তাদের ট্রায়াল বন্ধ করেছিল এবং অন্যটি ইম্পেরিয়েলের দল, যারা গত জুনে মানবদেহে ট্রায়াল শুরু করেছে।

প্রায় ৩০ জন স্বাস্থ্যবান স্বেচ্ছাসেবীর মাঝে ভ্যাকসিন দেয়া হবে মিস্ট কিংবা এয়ারসোল হিসেবে। এটি ঠিক সেভাবে দেয়া হবে, যেভাবে হাঁপানি রোগীর ওষুধগুলো নেবুলাইজার মেশিন, মাস্ক কিংবা মাউথপিস দিয়ে দেয়া হয়।

মৌসুমি ফ্লুর টিকাও ইনজেকশনের মাধ্যমে না দিয়ে নাকের স্প্রে দিয়ে দেয়া যেতে পারে। শীর্ষ গবেষক . ক্রিস চিউ বলেন, বর্তমান মহামারী ঘটছে শ্বাসতন্ত্রের ভাইরাসের কারণে। যা প্রথমত নাক, গলা ফুসফুসের কোষগুলোর মাধ্যমে মানুষকে সংক্রমিত করে। এই পৃষ্ঠগুলো বিশেষায়িত এবং শরীরের বাকি অংশে পৃথক প্রতিরোধক্ষমতা তৈরি করে। এটি বেশ জটিল। আমরা চেষ্টা করছি, এয়ারওয়েজকে সরাসরি লক্ষ্য বানিয়ে পেশিতে ইনজেকশন দেয়ার চেয়ে কার্যকর ইমিউন প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায় কিনা তা দেখার।

বিবিসি থেকে সংক্ষেপে অনূদিত

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন