শনিবার | সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০ | ১১ আশ্বিন ১৪২৭

দেশের খবর

তিনদিনে বাংলাদেশ থেকে ভারতে গেল ১৯৭ টন ইলিশ

বণিক বার্তা প্রতিনিধি যশোর

আসন্ন দুর্গাপূজার শুভেচ্ছা হিসেবে বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে গত তিনদিনে ১৯৭ দশমিক টন ইলিশ মাছ রফতানি হয়েছে ভারতে। প্রথম দিনে দুটি ট্রাকে গেছে ৪১ দশমিক টন, দ্বিতীয় দিন ৬৩ টন এবং গতকাল রফতানি হয়েছে ৯৩ দশমিক টন ইলিশ। এদিন রফতানি মূল্য ছিল লাখ ৭৮ হাজার ৩৫০ ডলার। গতকাল ইলিশের চালানটির রফতানিকারক ছিলেন ঢাকার রিপা এন্টারপ্রাইজ খুলনার জাহানাবাদ সি ফিশ লিমিটেড। প্রতি কেজি ইলিশের রফতানি দর নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ মার্কিন ডলার হিসেবে ৮০০ টাকা। দরে রফতানি করা প্রতিটি ইলিশের সাইজ ছিল এক কেজি থেকে হাজার ২০০ গ্রাম ওজনের।

মৎস্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক বেনাপোলের ফিশারিজ কোয়ারেন্টিন অফিসার মাহবুবুর রহমান জানান, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এবার নয়জন রফতানিকারককে মোট হাজার ৪৭৫ টন ইলিশ ভারতে পাঠানোর অনুমতি দিয়েছে। প্রতি কেজি ১০ মার্কিন ডলার দরে মোট লাখ ২০ হাজার মার্কিন ডলার মূল্যের ইলিশ মাছ ভারতে রফতানি করা হবে। বছর ভারতে মোট হাজার ৪৭৫ টন ইলিশ রফতানি করা হবে। বেনাপোল কাস্টমস থেকে মাছগুলো ছাড়িয়ে রফতানির দায়িত্বে নিযুক্ত হয়েছে সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট নিলা এন্টারপ্রাইজ।

সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট মহিতুল হক জানান, বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা ভারতের কলকাতায় ইলিশ নিয়ে যাচ্ছেন। পরে সেখানকার বাজারে তা বিক্রি হচ্ছে। কলকাতা ছাড়াও ইলিশ বিক্রি হবে পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন বাজারে।

উল্লেখ্য, ২০১২ সালের আগস্ট বাংলাদেশ ইলিশ রফতানি নিষিদ্ধ ঘোষণা করে। এরপর গত বছর শারদীয় দুর্গোৎসবে শুভেচ্ছা হিসেবে মার্কিন ডলার হিসেবে ৫০৭ টাকা কেজি দরে ৫০০ মেট্রিক টন ইলিশ রফতানির অনুমতি দিয়েছিল সরকার। ওই বছরের ১০ অক্টোবর বাংলাদেশ থেকে ইলিশ মাছের সর্বশেষ চালান ভারতে প্রবেশ করে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন