শনিবার | সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২০ | ১১ আশ্বিন ১৪২৭

আন্তর্জাতিক ব্যবসা

ব্রিটিশ পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে সম্পূর্ণভাবে সরে আসছে হিটাচি

বণিক বার্তা ডেস্ক

যুক্তরাজ্যে নতুন একটি পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্প থেকে সম্পূর্ণভাবে বেরিয়ে আসছে হিটাচি। গতকাল বিষয়সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র তথ্য নিশ্চিত করেছে। খবর মাইনিচি।

২০১৯ সালের জানুয়ারিতেই প্রকল্পটি স্থগিত করার ইঙ্গিত দিয়েছিল হিটাচি। কিন্তু সম্প্রতি টোকিওভিত্তিক ইলেকট্রনিকস জায়ান্টটি মনে করছে, প্রকল্প বাস্তবায়ন অসম্ভব। দু-একদিনের মধ্যে অফিশিয়াল মিটিং শেষে বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গৃহীত হবে বলে একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে। সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হলে তা যুক্তরাজ্য সরকারকে জানিয়ে দেয়া হবে। সাবেক প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে যে পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র রফতানির পরিকল্পনা করেছিলেন, তা আরেকবার ব্যর্থতার মুখ দেখবে। একই সঙ্গে যুক্তরাজ্যের পারমাণবিক জ্বালানি প্রযুক্তিও বড় ধাক্কা খাবে, যা বিদেশী বিনিয়োগের ওপর নির্ভর করে।

ওয়ালেসের অ্যাংলেসে দ্বীপে দুই রিঅ্যাক্টরবিশিষ্ট একটি পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের পরিকল্পনা করছিল হিটাচি। একটি ব্রিটিশ কোম্পানির মাধ্যমে হিটাচি ২০১২ সালে তা ক্রয় করেছিল। ২০২০ সালের মাঝামাঝিতে কার্যক্রম শুরুর পরিকল্পনা ছিল। ট্রিলিয়ন ইয়েন বা হাজার ৮৩৮ কোটি ডলারের প্রকল্পটিতে ট্রিলিয়ন ইয়েন বা হাজার ৮৯২ কোটি ডলার দেয়ার কথা ছিল যুক্তরাজ্যের। বাকি ৯০ হাজার কোটি ইয়েন বা ৮৫১ কোটি ডলার অর্থায়ন করত হিটাচি, জাপান সরকার বেসরকারি খাত। নির্মাণ ব্যয় বৃদ্ধি এবং কভিড-১৯ নিয়ন্ত্রণে নেয়া বিভিন্ন নিরাপত্তামূলক পদক্ষেপের কারণে ব্যয় বৃদ্ধিসহ বিভিন্ন খরচ বেড়ে যাওয়ার কারণে প্রকল্পটি স্থবির হয়ে পড়েছে।

যদিও হিটাচি ইঙ্গিতও দিয়েছে, প্রকল্পে থাকার বিষয়টি তারা ভেবে দেখবে যদি যুক্তরাজ্য সরকার নতুন প্রস্তাব দেয়। এর মধ্যে থাকতে পারে আরো আর্থিক সহায়তা দেয়া। জাপানের মাইনিচি শিম্বুন পত্রিকা কথা জানিয়েছে। অবশ্য তারা এও বলছে, চলমান পরিস্থিতি বিবেচনায় এক্ষেত্রে তেমন অগ্রগতির আশা করছে না হিটাচি।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন