শনিবার | সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০ | ৪ আশ্বিন ১৪২৭

দেশের খবর

রংপুরে র‌্যাব-১৩ কমপ্লেক্সের নির্মাণকাজ ৬০ ভাগ সম্পন্ন

বণিক বার্তা প্রতিনিধি রংপুর

নভেল করোনাভাইরাসের কারণে কিছুদিন বন্ধ ছিল র‌্যাব-১৩ ব্যাটালিয়ন সদর দপ্তরের স্থায়ী কার্যালয়ের (কমপ্লেক্স ভবন) নির্মাণকাজ। তবে সম্প্রতি আবারো পুরোদমে শুরু হয়েছে কাজ। এরই মধ্যে প্রায় ৬০ ভাগ কাজ শেষ হয়ে গেছে বলে দাবি সংশ্লিষ্টদের।

জানা গেছে, রংপুরে ৭০ কোটি লাখ ৫৯ হাজার ৬৫৩ টাকা ব্যয়ে র‌্যাব-১৩ ব্যাটালিয়ন সদর দপ্তরের স্থায়ী কার্যালয় নির্মাণকাজ শুরু হয় ২০১৯ সালে। আশা করা হচ্ছে, ২০২১ সালের জুনের শেষ নাগাদ কমপ্লেক্স ভবনের নির্মাণকাজ শেষ হবে।

বাস্তবায়নকারী সংস্থা রংপুর গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীর কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, রংপুর সিটি করপোরেশনের উত্তম বেতারপাড়া এলাকায় ২০১৯ সালের মার্চে বাংলাদেশ বেতার রংপুর কেন্দ্রের অব্যবহূত প্রায় ১০ একর জমিতে র‌্যাব-১৩ কমপ্লেক্সের ভবন নির্মাণকাজ শুরু হয়। ভবনের প্রাক্কলিত মূল্য ধরা হয় ৭৩ কোটি ৪৯ লাখ টাকা। টেন্ডারের মাধ্যমে ঢাকার ইউসিসিএল টিইএসএসএল জেভি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কাজ পায়। র‌্যাব-১৩ কমপ্লেক্সের ভবন নির্মাণের চুক্তি মূল্য নির্ধারিত হয় ৭০ কোটি লাখ ৫৯ হাজার ৬৫৩ টাকায়। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে কার্যাদেশ দেয়া হয় ২০১৯ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি। কমপ্লেক্সে ২৯টি স্থাপনা নির্মাণ করা হবে। এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে চার তলাবিশিষ্ট অফিস ভবন। প্রথম পর্যায় দ্বিতীয় তলা পর্যন্ত নির্মিত হবে। ছয় তলাবিশিষ্ট স্টাফ কোয়ার্টার। ছয় তলাবিশিষ্ট ব্যাচেলর অফিসার্স মেস। প্রথম পর্যায়ে চারতলা পর্যন্ত নির্মিত হবে। দুই তলাবিশিষ্ট সিইও কোয়ার্টারের প্রথম পর্যায়ে একতলা পর্যন্ত নির্মিত হবে। দ্বিতীয় তলাবিশিষ্ট অস্ত্রাগার। এছাড়া নির্মাণ করা হচ্ছে মালখানা, স্টোর, গ্যারেজ, মসজিদ, রাস্তা, ড্রেনেজ ব্যবস্থা এবং সীমানা প্রাচীর। কাজ দেখাশোনার দায়িত্বে থাকা উপবিভাগীয় প্রকৌশলী মো. আরিফুর রহমান বলেন, বর্তমানে বিভিন্ন স্থাপনার নির্মাণকাজ দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলেছে।

গণপূর্ত বিভাগ রংপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, গণপূর্ত অধিদপ্তর ঢাকার প্রধান প্রকৌশলী মো. আশরাফুল ইসলামের নির্দেশনা মোতাবেক আগামী বছরের জুনের মধ্যে ভবন নির্মাণের কাজ শেষ করার জন্য আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। এখন পর্যন্ত প্রায় শতকরা ৬০ ভাগ কাজ সম্পন্ন করেছি। দৃষ্টিনন্দন কমপ্লেক্সে ভবনটির নির্মাণকাজ চূড়ান্ত হলে এলাকার সৌন্দর্য অনেক বৃদ্ধি পাবে বলে তিনি দাবি করেন।

রংপুর র‌্যাব-১৩-এর অধিনায়ক কমান্ডার রেজা আহমেদ ফেরদৌস বলেনর‌্যাব-১৩ কমপ্লেক্সে ভবন চালু হলে এখান থেকে ব্যাটালিয়ন হেড কোয়ার্টারের সদর দপ্তর এবং ক্রাইম প্রিভেনশন স্পেশালাইজড কোম্পানির (সিপিএসসি) কার্যক্রম নিয়ন্ত্রিত হবে। বর্তমানে জায়গার সংকুলান না হওয়ায় দুটি পৃথক স্থান থেকে কার্যক্রম চালাতে হচ্ছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন