সোমবার | সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০ | ৬ আশ্বিন ১৪২৭

করোনা

অ্যাথলিটদের খেলায় ফেরা ঝুঁকিপূর্ণ কিনা জানতে এমআরআই

বণিক বার্তা ডেস্ক

কভিড-১৯ থেকে সেরে ওঠা অ্যাথলিটদের হার্টের ছবিগুলো কখন খেলায় ফেরা নিরাপদ হতে পারে, তা নির্ধারণ করতে চিকিত্কদের সহায়তা করতে পারে বলে একটি গবেষণায় উঠে এসেছে। যুক্তরাষ্ট্রের ওহাইও স্টেট ইউনিভার্সিটির একদল গবেষকের করা এই ছোট্ট গবেষণাটি শুক্রবার জ্যামা কার্ডিওলজি জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে।

গবেষণাটিতে দেখা গেছে, কার্ডিয়াক ম্যাগনেটিক রিজোনেন্স ইমেজ বা এমআরআইতে কভিড-১৯ থেকে সেরে ওঠা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২৬ জন প্রতিযোগী অ্যাথলিটের মধ্যে চারজনের মায়োকার্ডাইটিস নামে পরিচিত হার্টের পেশিতে প্রদাহের লক্ষণ দেখা গেছে।

গবেষকরা লিখেছেন, আমাদের উদ্দেশ্য ছিল কভিড-১৯ থেকে সেরে ওঠা অ্যাথলিটদের এমআরআই তদন্ত করে মায়োকার্ডিয়াল প্রদাহ শনাক্ত করা। এটা প্রতিযোগিতামূলক খেলায় ফিরে আসার জন্য উচ্চঝুঁকিপূর্ণ অ্যাথলিটদের চিহ্নিত করতে পারে।

গবেষকরা জুন থেকে আগস্টের মধ্যে কভিড-১৯- আক্রান্ত হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্পোর্টস মেডিসিন ক্লিনিকে চিকিৎসা নেয়া ২৬ জনের এমআরআই চিত্র বিশ্লেষণ করেছেন। গবেষণাটিতে ফুটবল, সকার, ল্যাক্রোস, বাস্কেটবল ট্র্যাকের খেলোয়াড়রা যুক্ত ছিলেন। যদিও তারা হাসপাতালে ভর্তির মতো গুরুতর অসুস্থ ছিলেন না।

গবেষণায় দেখা গেছে, তাদের মধ্যে কেবল ১২ জনের গলাব্যথা, শ্বাসকষ্ট জ্বরের মতো লক্ষণগুলো ছিল এবং বাকিদের মধ্যে কোনো লক্ষণই দেখা যায়নি। কমপক্ষে ১১ দিন কোয়ারেন্টিন পালনের পর তাদের এমআরআই করা হয়েছিল। তাদের মধ্যে চারজনের বা ১৫ শতাংশের মধ্যে মায়োকার্ডাইটিস পাওয়া গেছে এবং আটজনের বা ২০ শতাংশ অ্যাথলিটের পূর্ববর্তী মায়োকার্ডিয়াল আঘাতের চিহ্ন ছিল। হার্টের প্রদাহটি এমনিতেই ঠিক হয়ে যাবে কিনা বা এটা স্থায়ী ক্ষতি করতে পারে কিনা, তা গবেষণাটি থেকে স্পষ্ট নয়।

সিএনএন

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন