শনিবার | সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০ | ৪ আশ্বিন ১৪২৭

খবর

বিআইটিআইডি-কে করোনার নমুনা পরীক্ষার মেশিন দিলো বিজিএমইএ

নিজস্ব প্রতিবেদক

চট্টগ্রামের ফৌজদারহাটে বাংলাদেশ ইনস্টিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (বিআইটিআইডি)-তে একটি আরটি-পিসিআর মেশিন অনুদান হিসেবে প্রদান করেছে রফতানিমুখী তৈরি পোশাক শিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ। আজ শুক্রবার (১৪ আগস্ট) চট্টগ্রামের সার্কিট হাউজে আনুষ্ঠানিকভাবে মেশিনটি বিআইটিআইডি-কে হস্তান্তর করা হয়। 

আরটি-পিসিআর মেশিন হস্তান্তর উপলক্ষে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার জনাব এ বি এম আজাদ, বিশেষ অতিথি বিজিএমইএ’র ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জনাব মোহাম্মদ আবদুস সালাম এবং সম্মানিত অতিথি ছিলেন- চট্টগ্রাম ভেটেনারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. গৌতম বৌদ্ধ দাশ, চট্টগ্রামের স্বাস্থ্য বিভাগের পরিচালক ডা. হাসান শাহরিয়ার কবির। 

উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. শেখ ফজলে রাব্বী, বিআইটিআইডি-এর পরিচালক প্রফেসর ডা. এম এ হাসানসহ বিজিএমইএ’র সহ-সভাপতি জনাব এ এম চৌধুরী সেলিম, পরিচালকবৃন্দ অঞ্জন শেখর দাশ, মোহাম্মদ আতিক, খন্দকার বেলায়েত হোসেন ও এনামুল আজিজ চৌধুরী, প্রাক্তন প্রথম সহ-সভাপতি শাহাবুদ্দিন আহমেদ, এস.এম. আবু তৈয়ব ও নাসিরউদ্দিন চৌধুরী ও প্রাক্তন পরিচালক আবদুল মান্নান রানা, এমদাদুল হক চৌধুরী, এমডি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী, সৈয়দ নজরুল ইসলাম, সাইফ উল্লাহ মনসুরসহ পোশাক শিল্পের মালিকরা।

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ পচাত্তরের ১৫ আগস্ট নিহতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিভাগীয় কমিশনার এ বি এম আজাদ বলেন, বর্তমানে বৈশ্বিক মহামারী কভিড-১৯ সংক্রমণ বৃদ্ধির প্রেক্ষিতে স্বাস্থ্যসচেতনতা প্রতিপালনসহ আক্রান্তদের দ্রুত সেবা’র জন্য কোভিড টেস্ট করার লক্ষ্যে বিজিএমইএ কর্তৃক বিআইটিআইডিকে আরটি-পিসিআর মেশিন অনুদান হিসেবে প্রদান একটি সময়োপযোগী ও প্রশংসনীয় উদ্যোগ। এতে বিআইটিআইডি এর সক্ষমতা বৃদ্ধি পেয়ে দ্রুততম সময়ে কভিড-১৯ টেস্ট করতে সক্ষম হবে।

তিনি বর্তমান সংকটকালীন পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যসচেতনতা বৃদ্ধিসহ সংক্রমণ প্রতিরোধে বিশেষ করে বিজিএমইএ-সহ বেসরকারি সংগঠন বা প্রতিষ্ঠানগুলোকে সার্বিক সহযোগিতার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টা ও সহযোগিতা’র মাধ্যমে এ দুযোর্গ থেকে উত্তরণ সম্ভব হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। 

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি বিজিএমইএ’র ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জনাব মোহাম্মদ আবদুস সালাম বলেন, কভিড-১৯ এর পরিপ্রেক্ষিতে বর্তমানে পোশাক শিল্প সেক্টরে অসংখ্য রফতানি আদেশ বাতিলসহ সীমাহীন দূরাবস্থা বিরাজ করছে। ইতিমধ্যে অনেক পোশাক কারখানা বন্ধ হয়ে গেছে। এ পরিস্থিতির মধ্যেও সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসেবে বিজিএমইএ বন্দরস্থ সল্টগোলা এলাকায় বিজিএমইএ গত ২ জুলাই থেকে কভিড-১৯ ফিল্ড হাসপাতাল চালু করেছে। জনসাধারণের কল্যাণে দ্রুত কভিড-১৯ টেস্ট করার লক্ষ্যে বিআইটিআইডি-কে অনুদান হিসেবে আরটি-পিসিআর মেশিন হস্তান্তর করা হচ্ছে। এর ফলে কোভিড আক্রান্ত জনসাধারণসহ পোশাক শিল্পের শ্রমিক-কর্মচারী ও মালিকগণ দ্রুত সেবা নিতে পারবেন মর্মে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

তিনি আরও জানান, বিজিএমইএ’র পক্ষ থেকে ইতিমধ্যে সংশ্লিষ্ট সরকারি দপ্তরসমূহের পিপিই ও মাস্ক সরবরাহ করা হয়েছে। দেশের যে কোন দুর্যোগ মোকাবেলায় বিজিএমইএ’র পক্ষ থেকে সম্ভাব্য সব ধরনের সহযোগিতা অব্যাহত থাকার ব্যাপারে তিনি আশ্বাস প্রদান করেন তিনি। 

অনুষ্ঠানের সভাপতি চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক জনাব মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন বলেন, বর্তমান কভিড-১৯ মহামারী সংক্রমণ প্রতিরোধে  মাননীয় প্রধানমন্ত্রী’র নির্দেশনায় ইতিমধ্যে চট্টগ্রামে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। ফলে সংক্রমণের হার দিন দিন কমছে। তিনি জেলা প্রশাসনের অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে বিজিএমইএ’র পক্ষ থেকে বিআইটিআইডি-কে আরটি-পিসিআর মেশিন প্রদানের জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। সরকারি ও বেসরকারি যৌথ উদ্যোগের মাধ্যমে চলমান পরিস্থিতি দ্রুত উত্তরণ সম্ভব হবে মর্মে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। 

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিআইটিআইডি’র ল্যাব ইনচার্জ জনাব ডা. শাকিল আহমেদ, চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. শেখ ফজলে রাব্বী ও চট্টগ্রাম ভেটেনারী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. গৌতম বৌদ্ধ দাশ প্রমুখ।

অনুষ্ঠান শেষে চট্টগ্রামস্থ  পোশাক শিল্পে কর্মরত কোভিড-১৯ আক্রান্ত শ্রমিক-কর্মচারীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সেবা প্রদানের নিমিত্তে বিজিএমইএ ও বিআইটিআইডি’র মধ্যে একটি লেটার অব এগ্রিমেন্ট স্বাক্ষরিত হয়।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন