সোমবার | সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০ | ৫ আশ্বিন ১৪২৭

শিল্প বাণিজ্য

সিটি ব্যাংক

৩৭তম এজিএমে ১৫% নগদ লভ্যাংশ অনুমোদন

নিজস্ব প্রতিবেদক

দ্য সিটি ব্যাংক লিমিটেডের ৩৭তম বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) গতকাল ভার্চুয়াল প্লাটফর্মের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ব্যাংকের চেয়ারম্যান আজিজ আল কায়সারের সভাপতিত্বে সভায় পরিচালনা পর্ষদ কর্তৃক শেয়ারহোল্ডারদের জন্য সুপারিশকৃত ১৫ শতাংশ ক্যাশ ডিভিডেন্ট বা নগদ লভ্যাংশ অনুমোদনের বিষয়টি উপস্থাপিত হলে তা সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদিত হয়।

ভার্চুয়াল সভায় অন্যদের মধ্যে ব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যান হোসেন খালেদ, পরিচালক তাবাসসুম কায়সার, হোসেন মেহমুদ, রফিকুল ইসলাম খান, সৈয়দা শায়রীন আজিজ সাভেরা এইচ মাহমুদ, স্বতন্ত্র পরিচালক ফারুক সোবহান, . সেলিম মাহমুদ, ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মাসরুর আরেফিন, অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এএমডি) শেখ মোহাম্মদ মারুফ এবং বিপুলসংখ্যক শেয়ারহোল্ডার অংশগ্রহণ করেন।

ব্যাংকের চেয়ারম্যান আজিজ আল কায়সার স্বাগত বক্তব্যে কভিড-১৯ মহামারী চলাকালীন ব্যাংকিং সেক্টরে নানা চ্যালেঞ্জের কথা উল্লেখ করে ক্রমান্বয়ে সেগুলো থেকে উত্তীর্ণ হওয়ার লক্ষ্যে সচেষ্ট থাকার কথা জানান। তিনি ব্যাংকের সম্ভাবনাময় সুযোগ উল্লেখযোগ্য দিকগুলোর একটি চিত্র তুলে ধরেন।

গত ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত ২০১৯ হিসাব বছর অনুযায়ী ব্যাংকের নিরীক্ষিত বার্ষিক আর্থিক বিবরণী সভায় উপস্থাপন করা হয় এবং শেয়ারহোল্ডাররা ব্যাংকের কার্যক্রমের ওপর আলোচনা করেন।

সভায় চেয়ারম্যান জানান, ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ব্যাংকের মোট সম্পদের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩৫ হাজার ৪৬৮ কোটি ৯০ লাখ টাকা, যা পূর্ববর্তী বছরে ছিল ৩২ হাজার ৪৭৮ কোটি লাখ টাকা। যার প্রবৃদ্ধির পরিমাণ দাঁড়ায় হাজার ৯৯০ কোটি ৮৭ লাখ টাকা, অর্থাৎ দশমিক ২১ শতাংশ। ২০১৯ সালে ব্যাংক কর্তৃক প্রদানকৃত ঋণের পরিমাণ ২৪ হাজার ৬৯৪ কোটি ৩৭ লাখ টাকা, যা পূর্ববর্তী বছরে ছিল ২৩ হাজার ১৩৯ কোটি ১৫ লাখ টাকা। যার প্রবৃদ্ধির হার দাঁড়ায় হাজার ৫৫৫ কোটি ২২ লাখ টাকা, অর্থাৎ দশমিক ৭২ শতাংশ। ২০১৯ সালে ব্যাংকের আমানত হাজার ১৫৩ কোটি ৩৫ লাখ টাকা থেকে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৪ হাজার ৬৭০ কোটি ৩৭ লাখ টাকা, যা পূর্ববর্তী বছরে ছিল ২০ হাজার ৫১৭ কোটি লাখ টাকা, যার প্রবৃদ্ধির হার দাঁড়ায় ২০ দশমিক ২৪ শতাংশ।

অন্যদিকে সিটি ব্যাংক ২০১৯ সালে কর-পরবর্তী নিট মুনাফা অর্জন করেছে ২৪৭ কোটি ১৬ লাখ টাকা, যা পূর্ববর্তী বছরে ছিল ২০১ কোটি ৭৯ লাখ টাকা। যার প্রবৃদ্ধির পরিমাণ ৪৫ কোটি ৩৭ লাখ টাকা বা ২২ দশমিক ৪৮ শতাংশ। ২০১৯ সালে শেয়ারহোল্ডারদের শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে টাকা ৪৩ পয়সা, যা পূর্ববর্তী বছরে ছিল টাকা ৯৯ পয়সা।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন