সোমবার | সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০ | ৫ আশ্বিন ১৪২৭

টকিজ

‘একজন আলাউদ্দিন আলীর অভাব কোনোদিন পূরণ হবে না’

ফিচার প্রতিবেদক

কিংবদন্তি সুরস্রষ্টা সংগীত পরিচালক আলাউদ্দিন আলীর মৃত্যুতে গভীরভাবে শোকাহত হয়ে পড়েছে দেশের সংগীতাঙ্গনের মানুষ। তার চলে যাওয়াকে সংগীতজগতের অপূরণীয় ক্ষতি বলে মনে করছেন সবাই। তার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে সামাজিক মাধ্যমে পুরনো অনেক স্মৃতিচারণ করছেন তার প্রিয়ভাজনরা। সংগীতশিল্পী শুভ্র দেব তার ফেসবুক পেজে আলাউদ্দিন আলীকে নিয়ে লিখেছেন, নয়নের অশ্রু শেষ হয়ে যায়, হূদয়ের কান্না কভু না ফুরায়, আলাউদ্দিন আলী মামার সুর করা গান, লিখেছিলেন বাশার ভাই। আলাউদ্দিন মামার সঙ্গে এটাই আমার শেষ কাজ ছিল। আমি যখন ছাত্র, তখন থেকেই মামার সুরের পাগল ভক্ত ছিলাম। মিতালিদির গান হারানো দিনের মতো হারিয়ে গেছো তুমি গানটি যখন মামা সুর করেছিলেন, তখন থেকেই বুঝতে পারতাম আলাউদ্দিন আলী মামা বাংলাদেশে এক অদ্বিতীয়। রকম ভারসেটাইল সংগীত পরিচালক বাংলাদেশে আর কি আমরা পাব? উনি কখনো গান নিয়ে বা উনার অসাধারণ প্রতিভা নিয়ে গর্ব করতেন না। অনেক বড় মনের মানুষ ছিলেন, মানুষকে আপন করে নিতে পারতেন খুব সহজেই। আমি প্রথম উনার সুরে একটা অ্যালবাম করেছিলাম আলাপন, মিতালি মুখার্জি তপন চৌধুরীও গেয়েছিলেন এই অ্যালবামে। অনেক সুপার ডুপার হিট হয় সেই অ্যালবাম। তার পর আস্তে আস্তে মামার সঙ্গে বন্ধুর মতো সম্পর্ক হয়ে গেল। সাফ গেমসের থিম সংগীত করতে গিয়ে মামার সঙ্গে আরো আন্তরিক সম্পর্ক হয়ে গেল। তখন প্রায় রোজই দেখা হতো কথা হতো। এর মধ্যে গীতিকার, সংগীত পরিচালক গায়ক-গায়িকাদের সংগঠন এলসিএস গিল্ড শুভ সূচনা হয়, যার মূল শক্তি ছিলেন আলাউদ্দিন মামা। কিন্তু প্রাণঘাতী ক্যান্সার এই মহান সুরকারকে আমাদের কাছ থেকে কেড়ে নিল। একজন আলাউদ্দিন আলীর অভাব কোনো দিন পূরণ হবে না। আমি, এন্ড্রু কিশোর দা, ফুয়াদ নাসের বাবু ভাই, আলাউদ্দিন মামা এক সময় বাবু ভাইয়ের স্টুডিওতে রোজই মিলিত হতাম। আজ সেই সব স্মৃতি। সেলফিটা সাবিনা আপাই উঠিয়েছিলেন, আমি, বাবু ভাই, সাবিনা আপা আমাদের মহান প্রয়াত সুরকার আলাউদ্দিন আলী মামা।

দেশের প্লেব্যাক জগতের আরেক প্রখ্যাত শিল্পী কনক চাঁপা। শ্রদ্ধেয় সুরকারকে হারিয়ে যেন নিজেকে অভিভাবকহীন মনে করছেন তিনি। কনক চাঁপা লিখেছেন, বাংলাদেশের সুরসম্রাট শ্রদ্ধেয় আলাউদ্দিন আলী ভাই না ফেরার দেশে চলে গেলেন! ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। আমরা সব অভিভাবক হারিয়ে ফেলছি! আল্লাহ ওনাকে বেহেশত নসিব করুন।

সুরের আকাশ যেন শূন্যের কোঠায়। শ্রদ্ধেয় আলাউদ্দিন আলী চলে গেলেন আমাদের মাঝ থেকে। আল্লাহ আপনাকে সম্মানিত রাখুন আলী ভাই’—সুরকার আলাউদ্দিন আলীর একটি ছবি শেয়ার করে এভাবেই মনের কথা ব্যক্ত করেছেন সংগীতশিল্পী দিনাত জাহান মুন্নী।

প্রজন্মের সংগীতশিল্পী সোমনূর মনির কোনাল। তরুণ প্রজন্মের শিল্পীদের মাঝেও কিংবদন্তি সুরকারের প্রভাব নেহাত কম ছিল না। সূর্যসন্তান আলাউদ্দিন আলীর মুখটা কী যে নূরানি হয়েছিল, যেন আলো ছড়িয়ে যাচ্ছে এখনো। মনে হলো এক্ষুনি একগাল হাসি দিয়ে আমাকে জড়িয়ে ধরে বলবে, নানু তুই আইসোস? কাচ্চি বানাইতাসি দাঁড়া। তারপর তোরে গান তুইলা দিমু। কিন্তু নানুতো আর উঠে না.... হাজার ডাকেও উঠে না!

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন