সোমবার | সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০ | ১৩ আশ্বিন ১৪২৭

আন্তর্জাতিক খবর

‘মিথ্যা বক্তব্য’ নিয়ে প্রশ্নে সংবাদ সম্মেলন ছেড়ে গেলেন ক্ষুব্ধ ট্রাম্প

বণিক বার্তা ডেস্ক

বয়স্কদের স্বাস্থ্যসেবা সংক্রান্ত চুক্তি নিয়ে অন্তত ‘১৫০ বার মিথ্যা বলার’ বিষয়টি নিয়ে এক সাংবাদিক চ্যালেঞ্জ করলে হঠাৎই সংবাদ সম্মেলন ছেড়ে বেরিয়ে যান যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

নিউ জার্সির বেডমিস্টারে নিজের গলফ ক্লাবে শনিবার সংবাদ সম্মেলনে কথা বলছিলেন ট্রাম্প। সেখানে দাবি করেন, তিনিই ‘ভেটেরান চয়েজ অ্যাক্ট’ পাস করেছেন। ট্রাম্প বলেন, ‘তারা দশকের পর দশক, দশকের পর দশক এটি পাস করানোর চেষ্টা করেছেন এবং আমার আগে কোনো প্রেসিডেন্ট এটি করতে পারেননি। আমরাই এটি করে দিয়েছি।’

যদিও সত্য হলো, ২০১৪ সালে সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাই চয়েজ প্রোগ্রামে সই করেন। ডেমোক্র্যাট সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্স ও প্রয়াত রিপাবলিকান সিনেটর জন ম্যাককেইনের চেষ্টায় এটি আইনে পরিণত হয়। এ আইনের ফলে ভেটেরান অ্যাফেয়ার্স বিভাগে (ভিএ) সংস্কার আনা হয় এবং বয়স্করা স্বাস্থ্যসেবা খাতে আরো বেশি সুবিধা লাভ করেন ও বয়স্কদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করলে ভিএ কর্মকর্তাদের বহিষ্কারের পথও তৈরি হয়। 

ভিএ সিস্টেমে চিকিৎসা পেতে যদি দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হয় কিংবা ভিএ ফ্যাসিলিটিজ বাড়ি থৈকে ৪০কিলোমিটারের দূরবর্তী অঞ্চলে হয় তবে বয়ষ্করা চাইলে প্রাইভেট চিকিৎসকও দেখাতে পারেন। বহুবার এ আইনটির সমালোচনা করেছেন ট্রাম্প।

২০১৮ সালে ভিএ মিশন অ্যাক্ট-এ সই করেন ট্রাম্প। এতে চয়েজ প্রোগ্রামে পরিবর্তন এনে অন্তর্ভুক্তির যোগ্যতা নিরূপণের বিষয়সহ আওতা বাড়ানো হয়। তবে এর কথা না বলে ট্রাম্প বারংবার বলতে থাকেন, অন্যরা ৫০ বছর ধরে ব্যর্থ হওয়ার পর তিনি নিজে ‘ভেটেরান চয়েজ’ সৃষ্টি করেছেন। 

করোনাভাইরাস নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে সিবিসি নিউজের হোয়াইট হাউজ প্রতিনিধি পলা রিড ট্রাম্পকে প্রশ্ন করেন, ‘আপনি কেন বলে যাচ্ছে যে ভেটেরান চয়েজে সই করেছেন?’ ট্রাম্প অন্য এক সাংবাদিকের প্রশ্ন আহ্বান করার চেষ্টা করলে রিড বলতে থাকেন, ‘আপনি বলেছেন যে, আপনিই ভেটেরান চয়েজ পাস করেছেন। এটা পাস হয়েছে ২০১৪ সালে..এটা মিথ্যা বিবৃতি, স্যার।’

ট্রাম্প তৎক্ষণাৎ থেমে যান এবং পরে বলেন, ‘ঠিক আছে। আপনাদের প্রত্যেককেই অসংখ্য ধন্যবাদ।’ এরপর তিনি সংবাদ সম্মেলন কক্ষ ত্যাগ করে চলে যান। 

সূত্র: সিএনএন 

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন