শনিবার | সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০ | ৪ আশ্বিন ১৪২৭

শেয়ারবাজার

এসএস স্টিলের মূল্যসংবেদনশীল তথ্যে ঘাটতি দেখছে বিএসইসি

নিজস্ব প্রতিবেদক

সালেহ স্টিল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের বিদ্যমান মূলধনী শেয়ারের ৯৯ শতাংশ শেয়ার কিনে নিতে ২৪ কোটি ৭৫ লাখ ডলার বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে এসএস স্টিল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড। এছাড়া সালেহ স্টিলের ব্যবসায় গতি আনতে আরো ১৩৪ কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে এসএস স্টিল, যার বিপরীতে তাদের নামে নতুন শেয়ার ইস্যু করবে সালেহ স্টিল। গত ৪ আগস্ট স্টক এক্সচেঞ্জে দেয়া ঘোষণায় শেয়ারহোল্ডারদের এ তথ্য জানিয়েছে এসএস স্টিল।

ওই মূল্যসংবেদনশীল তথ্যের পরিপ্রেক্ষিতে একটি ব্যাখ্যামূলক চিঠি ইস্যু করেছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। এতে বলা হয়েছে, কোম্পানির পরিচালকদের কাছ থেকে শেয়ার মানি ডিপোজিট গ্রহণ করার ফলে সিকিউরিটিজ আইনের ব্যত্যয় ঘটতে পারে। এছাড়া সালেহ স্টিলের কী পরিমাণ শেয়ার এসএস স্টিল কিনবে তার সংখ্যা, প্রতিটি শেয়ারের দরসহ চুক্তি-সম্পর্কিত বেশ কিছু বিষয় সম্পর্কে মূল্যসংবেদনশীল তথ্যে উল্লেখ করা হয়নি। এ তথ্যঘাটতির কারণে বিনিয়োগকারীরা ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলতে পারেন বলে মনে করছে বিএসইসি।

৪ আগস্টের ওই ঘোষণায় এসএস স্টিল জানায়, সালেহ স্টিল বাংলাদেশের ইস্পাত শিল্পে একটি স্বনামধন্য কোম্পানি। এর বার্ষিক উৎপাদন ক্ষমতা প্রায় ৮৪ হাজার টন। সালেহ স্টিলে বিনিয়োগের ফলে এসএস স্টিলের বার্ষিক টার্নওভার প্রায় ৫০০ কোটি টাকা বেড়ে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে। ফলে কোম্পানিটির মুনাফা সক্ষমতাও উল্লেখযোগ্য হারে বেড়ে যাবে। সালেহ স্টিলে বিনিয়োগের অর্থের অংশবিশেষ কোম্পানির নিজস্ব তহবিল থেকে দেয়া হবে। বাকিটা পরিচালকদের কাছ থেকে শেয়ার মানি ডিপোজিট আকারে সংগ্রহ করা হবে।

কিন্তু মূল্য সংবেদনশীল তথ্যে সালেহ স্টিলের মোট শেয়ারের সংখ্যা উল্লেখ করেনি এসএস স্টিল। শেয়ারপ্রতি দরও উল্লেখ করা হয়নি তাতে। বিএসইসি তাদের চিঠিতে এ বিষয়টির ওপরই আলোকপাত করেছে।  

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন