সোমবার | সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০ | ১৩ আশ্বিন ১৪২৭

খবর

নগরবাসীর প্রত্যাশা পূরণে মরিয়া হয়ে কাজ করেছি —চসিকের বিদায়ী মেয়র নাছির

নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম ব্যুরো

নগরবাসীর প্রত্যাশা পূরণে মরিয়া হয়ে পাঁচ বছর কাজ করার চেষ্টা করেছেন বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) বিদায়ী মেয়র নাছির উদ্দিন। তিনি বলেন, চসিকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ৩১ বছরের সমস্যার সমাধান করে দিয়েছি। সাড়ে তিন বছর চেষ্টা করে প্রবিধানমালা অনুমোদন করিয়েছি। যখন দায়িত্ব নিয়েছিলাম চসিকের কর্মীদের বেতন আসত মাসে কোটি টাকা, এখন তা ১৯ কোটি টাকায় দাঁড়িয়েছে। এর পরও নিয়মিত বেতন-ভাতা দিতে সমর্থ হয়েছি।

গতকাল নগরীর থিয়েটার ইনস্টিটিউট চট্টগ্রাম (টিআইসি) মিলনায়তনে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আয়োজিত বিদায়ী সম্মিলনে মেয়র এসব কথা বলেন।

চসিকের সদ্য বিদায়ী মেয়র বলেন, আমি আমার মেয়াদে সাধারণ মানুষ এবং চসিকের কর্মীদের যে ভালোবাসা পেয়েছি, তাতে আমি মনে করি সফল। জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য কাজ করি আমি। আমি বুঝেছিলাম নগরবাসীর প্রত্যাশা চসিকের দায়িত্ব, তার জন্য ঐক্য দরকার। ১০-১১ জন কাউন্সিলর ভিন্ন দলের। আমি চিন্তা করেছি, তারা জনগণের ভোটে নির্বাচিত। আমার উচিত, তাদের দায়িত্ব পালনে সহযোগিতা করা। চসিকের অনেক কর্মচারী আমার প্রতিদ্বন্দ্বীর পক্ষে নির্বাচনে কাজ করেছেন। আমি নির্বাচিত হওয়ার পর বার্তা দিয়েছি, চসিকের অর্পিত দায়িত্ব সততা, আন্তরিকতার সঙ্গে পালন করেন।

চসিকের দেনাকে হাইলাইট করা হচ্ছে উল্লেখ করে মেয়র বলেন, আমরা প্রকল্প গ্রহণ করেছি। ৩৯৫ কোটি টাকা সরকারের প্রকল্পে চসিকের ম্যাচিং ফান্ড। আগের মেয়রের আমলের ৩০০ কোটি টাকা দেনার মধ্যে ২৫০ কোটি টাকা পরিশোধ করেছি। আমরা কিছু হাইড করছি না। বিরোধিতা সমাজকে ক্ষতি করছে। বিভক্তি-বিভাজন এগিয়ে যাওয়ার পথে অন্তরায় সৃষ্টি করছে।

অনুষ্ঠানে চসিকের প্রধান নির্বাহী মো. সামশুদ্দোহা, প্রধান প্রকৌশলী লে. কর্নেল সোহেল আহমেদ, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মফিদুল ইসলাম, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম আকতার চৌধুরী, প্যানেল মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনীসহ কাউন্সিলররা বক্তব্য রাখেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন