বুধবার | আগস্ট ১২, ২০২০ | ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭

আন্তর্জাতিক ব্যবসা

ওষুধ ব্যবসায় ৭৬ কোটি ডলার ঋণ পেল কোডাক

বণিক বার্তা ডেস্ক

করোনাকালে ওষুধ শিল্পে যোগ দিতে যাচ্ছে একসময়ের ক্যামেরা ফিল্ম উৎপাদনে বিখ্যাত কোম্পানি কোডাক। ফার্মাসিউটিক্যালস ম্যানুফ্যাকচারিংয়ের এই নতুন ব্যবসা শুরুর জন্য কোম্পানিটিকে ৭৬ কোটি ৫০ লাখ ডলারের ঋণ অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার কোডাকের পক্ষ থেকে তথ্য নিশ্চিত করা হয়। খবর এএফপি বিবিসি।

ইউএস ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট ফিন্যান্স করপোরেশনের (ডিএফসি) প্রদত্ত তহবিল দিয়ে তৈরি করা হবে কোডাক ফার্মাসিউটিক্যালস। এটি এমন সব জরুরি ওষুধ উপাদান উৎপাদন করবে, যেগুলোর দীর্ঘদিন ধরে ঘাটতি রয়েছে। কোডাকের বিবৃতি অনুযায়ী, কোম্পানিটি নন-বায়োলজিক, নন-অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল জেনেরিক ফার্মাসিউটিক্যালসে ব্যবহূত সক্রিয় উপাদানের ২৫ শতাংশ পর্যন্ত উৎপাদন করবে।

কোম্পানির এক্সিকিউটিভ চেয়ারম্যান জিম কন্টিনেনজা বলেন, কোডাকের বৃহৎ বিস্তৃত অবকাঠামো রয়েছে। রাসায়নিক ম্যানুফ্যাকচারিংয়ে রয়েছে দীর্ঘদিনের ঐতিহ্য। গুণগত মান উদ্ভাবনেও কোডাকের সুনাম রয়েছে। ফলে সবকিছু মিলিয়ে কোম্পানিটি আমেরিকান ফার্মাসিউটিক্যাল সরবরাহ শৃঙ্খলের পুনরুদ্ধারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

মূলত মে মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কভিড-১৯-এর বিরুদ্ধে যুদ্ধে দেশীয়ভাবে প্রয়োজনীয় উপাদান উৎপাদন উৎসাহিত করতে একটি নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করেন। এরপর এই প্রথম ধরনের উদ্যোগে ঋণ অনুমোদন দিল ডিএফসি। বিশ্বব্যাপী জেনেরিক ওষুধ তৈরিতে যত উপাদান ব্যবহার করা হয়, তার ৪০ শতাংশেরই ভোক্তা আমেরিকানরা। কিন্তু দেশটির সীমানায় উৎপাদন করা হয় এর মাত্র ১০ শতাংশ। অবস্থায় ডিএফসির প্রধান নির্বাহী অ্যাডাম বোয়েহলার বলেন, কোডাকের এই নতুন যাত্রায় সহযোগিতা করতে পেরে আমরা খুশি। আইকনিক আমেরিকান কোম্পানিটির সঙ্গে আমাদের সহযোগ দেশে দেশের বাইরে স্বাস্থ্য সুরক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

উল্লেখ্য, বৈশ্বিক ফটোগ্রাফি ব্যবসায় একসময় অন্যতম বৃহৎ কোম্পানি ছিল কোডাক। কিন্তু সেলফোনের প্রযুক্তিগত বিপ্লবে ক্যামেরা বিশেষ করে ফিল্ম ব্যবসায় কোম্পানিটিকে সম্প্রতি বেশ সংগ্রামের মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে। তবে ওষুধ ব্যবসার মধ্য দিয়ে কোডাক নতুন করে ঘুরে দাঁড়াতে চাইছে। ব্যবসায় প্রত্যক্ষ পরোক্ষভাবে কর্মসংস্থান হবে হাজার ৫৬০ জনের।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন