বুধবার | আগস্ট ১২, ২০২০ | ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭

শেয়ারবাজার

আজ থেকে মূল মার্কেটে লেনদেন শুরু হচ্ছে সোনালি পেপারের

নিজস্ব প্রতিবেদক

নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) অনাপত্তি পত্র পাওয়ার পর আজ থেকে দেশের দুই স্টক এক্সচেঞ্জের মূল মার্কেটে লেনদেন শুরু হচ্ছে ওভার দ্য কাউন্টার (ওটিসি) মার্কেটের কোম্পানি সোনালি পেপার অ্যান্ড বোর্ড মিলসের। গেল বৃহস্পতিবার বিএসইরি পক্ষ থেকে কোম্পানিটির শেয়ার মূল মার্কেটে লেনদেনের অনুমোদন দিয়ে দুই স্টক এক্সচেঞ্জের কাছে চিঠি পাঠানো হয়। এর আগে এ বছরের ২ জুলাই মূল মার্কেটে কোম্পানিটির লেনদেন শুরু হওয়ার কথা থাকলেও কমিশনের নির্দেশে তা স্থগিত করেছিল দুই স্টক এক্সচেঞ্জ।

তথ্যানুসারে, মূল মার্কেটে লেনদেনের প্রথম দিন থেকেই সোনালি পেপারের বর্তশান পরিচালকদের সব শেয়ার ১ বছরের জন্য লক ইন থাকবে। ওটিসি মার্কেটে কোম্পানিটির সর্বশেষ সমাপনী দরকে রেফারেন্স প্রাইস ও ফ্লোর প্রাইস হিসেবে গণ্য করা হবে। গত বছরের ২৭ নভেম্বর সোনালি পেপারকে সিকিউরিটিজ আইন ও স্টক এক্সচেঞ্জেস লিস্টিং রেগুলেশনের কিছু ধারা থেকে অব্যাহতি দিয়ে দুই স্টক এক্সচেঞ্জের মূল মার্কেটে পুনঃ তালিকাভুক্তির অনুমোদন দেয় বিএসইসি। কমিশনের অনুমোদন পাওয়ার ৮ মাস পর মূল মার্কেটে লেনদেন শুরু হচ্ছে কোম্পানিটির।

উৎপাদন বন্ধ, ধারাবাহিক লোকসান, নিয়মিত লভ্যাংশ প্রদান ও বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) না করা,কাগুজে শেয়ারকে ইলেকট্রনিকে শেয়ারে রূপান্তর না করাসহ বিভিন্ন কারণে ২০০৯ ও ১০ সালে স্টক এক্সচেঞ্জের মূল মার্কেট থেকে ৭২টি কোম্পানিকে তালিকাচ্যুত করে ওটিসিতে পাঠায় বিএসইসি। এর মধ্যে সোনালী পেপারও ছিল।

পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (এসইসি) সম্মতির প্রায় আট মাস পর ডিএসইর মূল বাজারে পুনঃ তালিকাভুক্ত হতে যাচ্ছে সোনালি পেপার অ্যান্ড বোর্ড মিলস লিমিটেড। এসইসির সম্মতির পর ৪ জুন ডিএসইর পর্ষদ সভায় মূল বাজারে পুনঃ তালিকাভুক্তির অনুমোদন দিয়ে কোম্পানিটির লেনদেনের তারিখ ধার্য করতে ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেওয়া হয়। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল সোনালি পেপারের লেনদেনের তারিখ নির্ধারণ করল ডিএসইর ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ। ফলে তালিকাচ্যুত হওয়ার ১০ বছরের বেশি সময় পর মূল বাজারের লেনদেন ব্যবস্থায় ফিরতে যাচ্ছে ওটিসির কোম্পানি সোনালি পেপার। ওটিসিতে যাওয়ার প্রায় ১১ বছর পর আজ থেকে আবার মূল মার্কেটে ফিরছে সোনালি পেপার। এর আগে ওয়াটা কেমিক্যাল ও আলিফ টেক্সটাইল ওটিসি থেকে স্টক এক্সচেঞ্জের মূল মার্কেটে পুনঃ তালিকাভুক্ত হয়েছে।

সোনালি পেপার ১৯৭৭ সালে বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু করে এবং ১৯৮৫ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। ইউনুস গ্রুপ ২০০৬ সালে কোম্পানিটি অধিগ্রহণ করে। সোনালি পেপার প্রিন্টিং পেপারসহ বিভিন্ন ধরনের কাগজ উৎপাদন করে। এর বার্ষিক উৎপাদন সক্ষমতা ৩৫ হাজার টন। বর্তমানে কোম্পানিটির পরিশোধিত মূলধন ১৬ কোটি ৬৩ লাখ ৯০ হাজার টাকা। কোম্পানিটির মোট শেয়ারের ৬৯ দশমিক ৩ শতাংশ উদ্যোক্তা পরিচালকদের কাছে রয়েছে। সর্বশেষ ২০১৮-১৯ হিসাববছরে শেয়ারহোল্ডারদের ১০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ দিয়েছে কোম্পানিটি।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন