বৃহস্পতিবার | আগস্ট ১৩, ২০২০ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭

দেশের খবর

এবারো হাটে উঠবে ঝিনাইদহের সেই যুবরাজ

বণিক বার্তা প্রতিনিধি ঝিনাইদহ

এবারো হাটে তোলা হবে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার দুর্গাপুর গ্রামের প্রায় ৫০ মণ ওজনের ষাঁড় যুবরাজকে। এরই মধ্যে ষাঁড়টিকে দেখতে ভিড় জমাচ্ছে উত্সুক জনতা।

জানা গেছে, মো. শাহআলম মিয়ার পৈতৃক বাড়ি মাদারীপুর জেলার শিবচর উপজেলায়। স্কুল কলেজ জীবন শিবচরেই কেটেছে। প্রায় আট বছর ধরে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার দুর্গাপুর গ্রামে বসবাস করছেন তিনি। বিভিন্ন দেশ ঘুরে ঝিনাইদহে ফিরে আব্দুল্লাহ এগ্রো অ্যান্ড ডেইরি ফার্ম প্রতিষ্ঠা করেন তিনি।

শাহআলম মিয়া জানান, যুবরাজ নামে ফ্রিজিয়ান জাতের ষাঁড় স্থানীয় বাজার থেকে মাস বয়সে লাখ ৫৫ হাজার টাকায় কিনে আনেন। এখন তার বয়স বছর মাস। শুধু ষাঁড়ের পেছনে প্রতিদিন খাবারের জন্য খরচ হয় প্রায় হাজার টাকা। যুবরাজের ওজন এখন ৫০ মণের উপরে।

তিনি বলেন, গরুটির দাম চেয়েছি ৩০ লাখ টাকা। এরই মধ্যে আমার গরুটির দাম ১৯ লাখ টাকা পর্যন্ত উঠেছে। গত বছর ঈদে এটির দাম ২১ লাখ ৫০ হাজার টাকা হয়েছিল। এবার করোনাভাইরাসের মধ্যে কী হয় জানি না। গরুটির পেছনে ১৭-১৮ লাখ টাকা খরচ হয়ে গেছে। যদি আমি ন্যায্যমূল্য না পাই, তাহলে অনেক ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে যাব।

বিষয়ে জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. আনন্দ কুমার অধিকারী বলেন, আমরা গরুটির ওজন আনুমানিক ৫০ মণ বলে ধারণা করছি। ঈদ আসতে এখনো কিছুদিন বাকি আছে। এরই মধ্যে আরো কিছু ওজন বাড়তে পারে। জেলায় যুবরাজই প্রাকৃতিক খাবার খেয়ে শ্রেষ্ঠ গরু হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন