বৃহস্পতিবার | আগস্ট ০৬, ২০২০ | ২২ শ্রাবণ ১৪২৭

টেলিকম ও প্রযুক্তি

ভারতে ১০ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করবে গুগল: সুন্দর পিচাই

বণিক বার্তা ডেস্ক

বৈশ্বিক সার্চ জায়ান্ট গুগল ভারতে হাজার কোটি (১০ বিলিয়ন) ডলার বিনিয়োগ করবে। বড় অংকের বিনিয়োগ আগামী পাঁচ থেকে সাত বছরে ধাপে ধাপে সম্পন্ন করবে মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি। ভারতে ডিজিটাল প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়াতে বিনিয়োগ পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে বলে এক ঘোষণায় জানান সুন্দর পিচাই। খবর ব্লুমবার্গ।

ভারতীয় বংশোদ্ভূত সুন্দর পিচাই গুগল প্রতিষ্ঠানটির প্যারেন্ট কোম্পানি অ্যালফাবেট ইনকরপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার (সিইও) দায়িত্বে রয়েছেন। সম্প্রতি গুগল ফর ইন্ডিয়া শীর্ষক বার্ষিক সম্মেলনে ভিডিও কনফারেন্সে অংশ নিয়ে বিনিয়োগের ঘোষণা দেন তিনি।

সুন্দর পিচাই বলেন, নভেল করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে সৃষ্ট কভিড-১৯ মহামারী প্রযুক্তি কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা স্পষ্ট করেছে। আধুনিক প্রযুক্তির সহজপ্রাপ্যতার কারণে ভয়াবহ পরিস্থিতিতেও ঘরে বসে ব্যবসা পরিচালনা এবং পরিবার-প্রিয়জনের সঙ্গে সার্বক্ষণিক সংযুক্ত থাকা সম্ভব হচ্ছে।

ইন্ডিয়া ডিজিটাইজেশন ফান্ড বিষয়ে সুন্দর পিচাই বলেন, এটা ভবিষ্যৎ ভারতের বাজার ঘিরে আমাদের বিনিয়োগ প্রতিশ্রুতির অংশ। ভারতে হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগ করা হবে অংশীদারিত্ব ইকুইটি বিনিয়োগের মাধ্যমে। বিনিয়োগের মাধ্যমে ভারতে ডিজিটাল কার্যক্রম, অবকাঠামো ডিজিটাল ইকোসিস্টেম আরো উন্নত করা হবে।

বিবৃতিতে সুন্দর পিচাই বলেন, তাদের বিনিয়োগ হিন্দি, তামিল পাঞ্জাবির পাশাপাশি প্রত্যেক ভারতীয়র নিজস্ব ভাষায় তথ্যপ্রযুক্তি কনটেন্টে প্রবেশাধিকার নিশ্চিত করবে। ভারতীয়দের প্রয়োজন অনুযায়ী নতুন পণ্য এবং সেবা উন্নয়নে অবদান রাখবে। ডিজিটাল ট্রান্সফরমেশনের চেষ্টা করছে এমন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোর কার্যক্রম সহজ করবে। বিভিন্ন ক্ষেত্রে নতুন প্রযুক্তির প্রয়োগ এবং সমাজের কল্যাণে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স (এআই) ব্যবহার বাড়াতে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে।

১৯৯৮ সালে সিলিকন ভ্যালিতে যাত্রা করে গুগল। প্রতিষ্ঠার ছয় বছর পর ভারতের বেঙ্গালুরু হায়দরাবাদে কার্যালয় চালুর মধ্য দিয়ে ভারতের বাজারে কার্যক্রম শুরু করেছিল প্রতিষ্ঠানটি। শুরুতে দেশটিতে সার্চ সেবার বিস্তার করাই প্রধান লক্ষ্য ছিল গুগলের। তবে এখন গুগলের কার্যক্রমে অনেক বৈচিত্র্য এসেছে। অনেক নতুন সেবা নিয়ে এসেছে প্রতিষ্ঠানটি। ভারত জনসংখ্যার কারণে বড় বাজার হওয়ায় দেশটিতে বিনিয়োগ বাড়াচ্ছে গুগল।

গত মে মাসে এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গুগল ভারতের টেলিকম খাতে অংশীদারিত্ব প্রতিষ্ঠায় দেশটির দ্বিতীয় বৃহৎ সেলফোন অপারেটর ভোডাফোন-আইডিয়া লিমিটেডের অন্তত শতাংশ মালিকানা ক্রয়ের বিষয়ে ভাবছে। শুধু গুগল নয়; ফেসবুক মাইক্রোসফটের মতো প্রযুক্তি জায়ান্টগুলোর জন্য গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে ভারতের বাজার। এরই অংশ হিসেবে সম্প্রতি জিও প্লাটফর্মের ১০ শতাংশ মালিকানা কিনেছে ফেসবুক। অন্যদিকে সফটওয়্যার জায়ান্ট মাইক্রোসফট ভারতীয় ধনকুবের মুকেশ আম্বানি নিয়ন্ত্রিত রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের (আরআইএল) আওতাধীন রিলায়েন্স জিও প্লাটফর্মে ২০০ কোটি ডলারের বেশি বিনিয়োগের বিষয়ে নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে। রিলায়েন্সের ডিজিটাল সেবা বিভাগ হলো জিও প্লাটফর্ম। আর জিও প্লাটফর্মের আওতাধীন টেলিকম কোম্পানি হলো রিলায়েন্স জিও ইনফোকম লিমিটেড। ভারতে সেলফোন অপারেটরের গ্রাহক সংখ্যা ৩৮ কোটি ৮০ লাখ ছাড়িয়েছে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, গুগল ভোডাফোন-আইডিয়া লিমিটেড ছাড়াও ভারতে সাড়ে তিন বছর আগে কার্যক্রম শুরু করা টেলিকম কোম্পানি রিলায়েন্স জিওর কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনায় অংশ নিয়েছে। রিলায়েন্স জিও গত কয়েক সপ্তাহে ফেসবুক, প্রাইভেট ইকুইটি ফার্ম সিলভার লেক, জেনারেল আটলান্টিক ভিস্তার মতো একাধিক প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে হাজার কোটি ডলারের বেশি তহবিল সংগ্রহে সক্ষম হয়েছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, ভারতে ব্যবসা সম্প্রসারণে স্থানীয় প্রতিষ্ঠানগুলোতে বিনিয়োগে ঝুঁকছে মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্টগুলো। চীনের পর ফেসবুকের সবচেয়ে বেশি ব্যবহারকারী রয়েছে ভারতে। এরই মধ্যে ভারতে ৪০ কোটির বেশি ব্যবহারকারী রয়েছে ফেসবুক নিয়ন্ত্রিত আরেক জনপ্রিয় মেসেজিং অ্যাপ হোয়াটসঅ্যাপের। জানা যায়, হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে ভারতে আর্থিক লেনদেন সেবা চালু করতে চাইছে ফেসবুক। টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে জোটবদ্ধ হওয়া প্রতিষ্ঠানটিকে জনসাধারণের কাছে পৌঁছতে সহায়তা করবে। একই ধরনের সুবিধা পেতে ভারতীয় টেলিকম প্রতিষ্ঠানের অংশীদারিত্ব পেতে বিনিয়োগে আগ্রহী গুগল মাইক্রোসফটও।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন