শুক্রবার | আগস্ট ১৪, ২০২০ | ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭

করোনা

এ বছরই আসতে পারে অ্যান্টিবডি থেরাপি

বণিক বার্তা ডেস্ক

নভেল করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত গোটা দুনিয়া। কার্যকর কোনো ভ্যাকসিন কিংবা চিকিৎসার জন্য গোটা বিশ্ব এখন উন্মুখ হয়ে আছে। অনেক দিক থেকে ইতিবাচক অগ্রগতি এলেও চূড়ান্ত সফলতা এখনো ধরা দেয়নি। তবে সাম্প্রতিক সময়ে বেশকিছু সংবাদ আশা জাগাচ্ছে মানুষের মনে। তেমনই একটি খবর দিয়েছে একটি বায়োটেক ফার্ম। জানা গেছে, এলি লিলির একটি অ্যান্টিবডি থেরাপি বছরের শেষ দিকে বাজারে আসতে পারে। খবর দিয়েছেন এই ফার্মাসিউটিক্যাল জায়ান্টের সঙ্গে কাজ করা বায়োটেক ফার্মের সিইও।

আবসেল্লেরার সিইএও কার্ল হানসেন বলেন, আমরা বেশ দ্রুতগতিতে এগিয়ে যাচ্ছি। এটা অনেকটা দুই সেকেন্ডে ১০০ মিটার দৌড়ানোর মতো।

কোম্পানিটি এখন দ্বিতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালের পথে আছে। যা কিনা একশর বেশি কভিড-১৯-এর রোগীকে যুক্ত করবে। তাদের মাঝে কয়েকজন বিভিন্ন মাত্রায় অ্যান্টিবডি ড্রাগ পাবে এবং অন্যরা পাবে প্ল্যাসেবো, যা কোনো কাজ করে না। এরপর ডাক্তাররা দুটি গ্রুপকে তুলনা করবেন। হানসেন বলেন, প্রথম পর্যায়ের ট্রায়ালে এক ডজনের মতো রোগী দেখিয়েছে ওষুধটি নিরাপদ।

এই ড্রাগটি বানানোর জন্য আবসেল্লেরা পরম সুপারস্টার অ্যান্টিবডি সংগ্রহ করেছে, যা কভিড-১৯ থেকে সেরে ওঠা রোগীর কাছ থেকে নেয়া হয়েছে। বিজ্ঞানীরা সেটিই বেছে নিয়েছেন যা করোনাভাইরাসের সঙ্গে লড়াই করার জন্য সবচেয়ে শক্তিশালী মনে হয়েছে এবং সে সঙ্গে বিকাশ, ক্লোন উৎপাদন করাও যেটি অধিকতর সহজ। প্রথম ধাপে এটি হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের মাঝে পরীক্ষা করা হয়েছিল এবং দ্বিতীয় পর্যায়ে এটি ঘরে থাকা রোগীদের মাঝে পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে।

সিএনএন

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন