বৃহস্পতিবার | আগস্ট ১৩, ২০২০ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭

খবর

বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি

তিনদিনের রিমান্ডে ময়ূর-২ লঞ্চের মালিক

নিজস্ব প্রতিবেদক

বুড়িগঙ্গা নদীতে যাত্রীবাহী লঞ্চ মর্নিং বার্ড ডুবির ঘটনায় গ্রেফতার ময়ূর- লঞ্চের মালিক মোসাদ্দেক হানিফ ছোয়াদের তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। লঞ্চডুবির ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল ঢাকার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মনিকা খান আদেশ দেন। এর আগে গত বুধবার রাতে রাজধানীর সোবহানবাগ এলাকা থেকে মোসাদ্দেক হানিফ ছোয়াদকে গ্রেফতার করে সদরঘাট নৌ পুলিশ।

গত ২৯ জুন বুড়িগঙ্গায় ময়ূর- লঞ্চের সঙ্গে ধাক্কা লাগার পর মুন্সীগঞ্জ থেকে ঢাকার সদরঘাটের উদ্দেশে ছেড়ে আসা মর্নিং বার্ড নামের লঞ্চটি ডুবে যায়। পরে নদী থেকে ৩৪ লঞ্চযাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ঘটনায় নৌ পুলিশ সদরঘাট থানার এসআই সামশুল আলম বাদী হয়ে ময়ূর- লঞ্চের মালিক মোসাদ্দেক হানিফ ছোয়াদকে প্রধান আসামি করে সাতজনকে দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেন।

মর্নিং বার্ড লঞ্চ ডুবে যাওয়ার ঘটনায় ময়ূর- লঞ্চটিকে দায়ী করে প্রতিবেদন দিয়েছে তদন্ত কমিটি। কমিটি বলছে, মুন্সীগঞ্জ থেকে সদরঘাটের উদ্দেশে ছেড়ে আসা মর্নিং বার্ডকে ময়ূর- প্রথমে ধাক্কা দিলে লঞ্চটি আড়াআড়ি হয়ে যায়। এরপর লঞ্চটির ওপর ময়ূর- উঠিয়ে দেয়া হয়। কমিটি দুর্ঘটনার জন্য ময়ূর- লঞ্চের মাস্টার (চালক) সে সময় লঞ্চ চালানোর সঙ্গে যুক্ত অন্যদের প্রধানত দায়ী করেছে।

ঘটনায় গত বুধবার রাতে রাজধানীর কলাবাগান থানার সোবহানবাগ এলাকার একটি অ্যাপার্টমেন্ট থেকে ময়ূর- লঞ্চের মালিক মোসাদ্দেককে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাকে ঢাকার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হলে তার সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। পরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মনিকা খান তার তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এদিকে ওই লঞ্চের সুপারভাইজার আব্দুস সালামকে আদালতে হাজির করা হলে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ চেয়ে আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। আব্দুস সালামের আইনজীবী জামিন চেয়ে আবেদন করেন। আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন