বৃহস্পতিবার | আগস্ট ১৩, ২০২০ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭

প্রথম পাতা

এক সপ্তাহে নমুনা পরীক্ষা কমেছে ১৫%

পৌনে দুই লাখ ছাড়াল সংক্রমণ শনাক্তের সংখ্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক

নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের জন্য নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা বাড়ানোর কথা বলছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাসহ (ডব্লিউএইচও) আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য খাতের বিশেষজ্ঞ মহল। অন্যদিকে বাংলাদেশ হাঁটছে এর উল্টো পথে। এক সপ্তাহের মধ্যে দেশে দৈনিক সংক্রমণ শনাক্তে নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা কমেছে ১৫ শতাংশ। নমুনা পরীক্ষা কমলেও থেমে নেই মহামারীর প্রাদুর্ভাব। এরই মধ্যে দেশে কভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর নিশ্চিতকৃত সংখ্যা পৌনে দুই লাখ পেরিয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, গত সপ্তাহে বৃহস্পতিবার ( জুলাই) সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্তে নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছিল ১৮ হাজার ৩৬২টি। অন্যদিকে এর ঠিক এক সপ্তাহের মাথায় গতকাল সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১৫ হাজার ৬৩২ জনের। সে হিসাবে এক সপ্তাহের ব্যবধানে দেশে নমুনা পরীক্ষার হার কমেছে প্রায় ১৫ শতাংশ।

নমুনা পরীক্ষা কমানোর পরও দেশে সংক্রমণ বৃদ্ধির গতি শ্লথ হয়ে আসার কোনো লক্ষণ নেই। গতকালই দেশে মোট সংক্রমণ শনাক্তের সংখ্যা পৌনে দুই লাখ পেরোনোর কথা জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

নিয়মিত এক অনলাইন বুলেটিনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা জানান, গতকাল সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় দেশে কভিড-১৯ পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছে হাজার ৩৬০ জন। ফলে দেশে নভেল করোনাভাইরাসে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে লাখ ৭৫ হাজার ৪৯৪।

তিনি জানান, ২৪ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৫ হাজার ৮৬২টি। এসব নমুনার মধ্যে পরীক্ষা করা হয়েছে ১৫ হাজার ৬৩২টি। নিয়ে দেশে মোট নমুনা

পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়াল লাখ হাজার ৭৮৪।

বুলেটিনে আরো জানানো হয়, গতকাল সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরো ৪১ জন কভিড-১৯- আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু হয়েছে। নিয়ে বাংলাদেশে মহামারীতে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল হাজার ২৩৮ জনে।

অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা জানান, ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে নারী পুরুষ যথাক্রমে ১২ ২৯ জন। ৪১ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন ১২ জন। ১৪ জন ছিলেন চট্টগ্রাম বিভাগের বাসিন্দা। এছাড়া রাজশাহী বিভাগে দুজন, খুলনা বিভাগে ছয়, সিলেট বিভাগে দুই, রংপুর বিভাগে তিন ময়মনসিংহ বিভাগে দুজন কভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু হয়েছে। মৃত ৪১ জনের মধ্যে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে ৩৮ জনের। বাসায় মৃত্যুবরণ করেছেন তিনজন।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন