বৃহস্পতিবার | আগস্ট ০৬, ২০২০ | ২২ শ্রাবণ ১৪২৭

শেষ পাতা

বাংলাদেশ-ইতালি

৫ অক্টোবর পর্যন্ত যাত্রী পরিবহন করবে না কাতার এয়ারওয়েজ

নিজস্ব প্রতিবেদক

আগামী অক্টোবর পর্যন্ত বাংলাদেশ থেকে ইতালিতে কোনো ধরনের ফ্লাইট পরিচালনা যাত্রী পরিবহন না করার ঘোষণা দিয়েছে কাতার এয়ারওয়েজ।

বাংলাদেশ থেকে যাত্রী পরিবহনের বিষয়ে ইতালি সরকারের একটি নোটাম (নোটিস টু এয়ারম্যান) জারির পর ঘোষণা দিয়েছে এয়ারলাইনসটি।

বাংলাদেশ থেকে যাওয়া যাত্রীদের শরীরে কভিড-১৯ ভাইরাস শনাক্ত হওয়ায় প্রাথমিকভাবে এক সপ্তাহের জন্য বাংলাদেশের সঙ্গে ফ্লাইট বাতিল করেছিল ইতালি। তবে গতকাল সময়সীমা বাড়িয়ে অক্টোবর নির্ধারণ করা হয়েছে। এরই মধ্যে -সংক্রান্ত একটি নোটাম জারি করেছে দেশটির সরকার।

নোটামে বলা হয়েছে, দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে বাংলাদেশ থেকে আসা সব যাত্রী ফ্লাইট ইতালিতে প্রবেশ করতে পারবে না। নভেল করোনাভাইরাসের মহামারীর কারণে ঝুঁকি বৃদ্ধি পাওয়ায় কোনো এয়ারলাইনস বাংলাদেশ থেকে যাত্রী নিয়ে আসতে পারবে না। এমনকি কোনো ট্রানজিট ফ্লাইটেও যাত্রী আনা যাবে না, যারা বাংলাদেশ থেকে এসেছে।

প্রসঙ্গত, সোমবার ঢাকা থেকে রোম যাওয়া বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের একটি বিশেষ ফ্লাইটের ২১ যাত্রী কভিড-১৯ পজিটিভ শনাক্ত হন। আর এর আগে যাওয়া বিশেষ ফ্লাইটেরও ১৮ যাত্রী কভিড-১৯ শনাক্ত হন। যাদের সবাই বাংলাদেশ থেকে কভিড-১৯-এর নেগেটিভ সনদ নিয়ে গিয়েছিলেন। যার ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ থেকে সব ধরনের ফ্লাইট বন্ধ ঘোষণা করেছে ইতালি সরকার। সর্বশেষ বুধবার বাংলাদেশ থেকে কাতার হয়ে ইতালিতে যাওয়া দুটি ফ্লাইটের ১৬৮ বাংলাদেশীকে ফিরিয়ে দেয় ইতালি।

সম্প্রতি ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলো বিমান চলাচল খুলে দিলেও বাংলাদেশের জন্য তা এখনো বন্ধ রয়েছে। করোনা সংক্রমণ নিয়ে ইউরোপে ফেরা যাত্রীদের কারণে সে পথ আরো 

রুদ্ধ হয়ে গেল।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, কভিড-১৯ নেগেটিভে বিভিন্ন হাসপাতাল যে সনদ দিচ্ছে, সেটি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। একই সঙ্গে বাংলাদেশের দেয়া করোনা নেগেটিভ সনদ বহির্বিশ্বে গ্রহণযোগ্যতা হারাচ্ছে। বাংলাদেশের নভেল করোনাভাইরাস শনাক্তকরণ পরীক্ষার মান যদি ভালো না হয়, তাহলে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে বাংলাদেশ বিপাকে পড়তে পারে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন