শনিবার | আগস্ট ০৮, ২০২০ | ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭

খেলা

ইংল্যান্ড-উইন্ডিজ প্রথম টেস্ট শুরু বুধবার, ভরসা দুই অধিনায়ক

বণিক বার্তা ডেস্ক

নভেল করোনাভাইরাসের কারণে থমকে পড়া আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরছে ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের কল্যাণে। সাউদাম্পটনে প্রথম টেস্টে বুধবার থেকে মুখোমুখি ক্রিকেটের ঐতিহ্যবহুল এ দুটি দেশ। এ ম্যাচে আলো কাড়বেন দুই দলের অধিনায়ক। ইংল্যান্ডের বেন স্টোকস ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের জ্যাসন হোল্ডার। আইসিসি টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে দুই শীর্ষ অলরাউন্ডার ব্যাটিংয়ে আবার দুই দলের মধ্যে সর্বোচ্চ র‌্যাঙ্কধারী!

স্যার গ্যারি সোবার্সের পর ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে আইসিসি টেস্ট অলরাউন্ডারদের শীর্ষস্থান দখল করেছেন হোল্ডার। ক্যারিয়ারসেরা ৪৭৩ পয়েন্ট নিয়ে তিনি সাউদাম্পটন টেস্ট খেলতে নামছেন। বার্বাডোজ থেকে উঠে আসা ২৮ বছর বয়সী এ খেলোয়াড় অবশ্য শীর্ষস্থানে রয়েছেন ২০১৯ সালের জানুয়ারি থেকে। 

হোল্ডার মুখোমুখি আরেক চ্যাম্পিয়ন অলরাউন্ডার স্টোকসের, যিনি জো রুটের অনুপস্থিতিতে এই টেস্টে ইংল্যান্ডকে নেতৃত্ব দেবেন। ৪০৭ পয়েন্ট নিয়ে স্টোকস আইসিসি অলরাউন্ডার তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন। এই সিরিজেই তিনি হোল্ডারকে পেছনে ফেলে শীর্ষে উঠতে চাইবেন, যার মধ্য দিয়ে তিনি ইংলিশ গ্রেট অ্যান্ড্রু ফ্লিনটফের কীর্তিও ছুঁয়ে ফেলবেন। ২০০৬ সালে সর্বশেষ ইংলিশ ক্রিকেটার হিসেবে ফ্লিনটফই শীর্ষ টেস্ট অলরাউন্ডার ছিলেন।

ক্যারিবীয় ক্রিকেটারদের মধ্যে ব্যাটিংয়ে সর্বোচ্চ র‌্যাঙ্ক হোল্ডারের, যিনি রয়েছেন ৩৫তম স্থানে। এরপর শেন ডাওরিচ (৪৪), রোস্টন চেজ (৪৮) ও ক্রেগ ব্র্যাথওয়েট (৫২)। শাই হোপ আগের ইংল্যান্ড সফরে লিডসে জোড়া সেঞ্চুরি করে জিতিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজকে। ৬৪ র‌্যাঙ্কধারী খেলোয়াড়টি এই সিরিজেই উন্নতি করতে পারেন। ক্যারিবীয় দলের শীর্ষ র‌্যাঙ্কধারী বোলারও হোল্ডার (তৃতীয়)। এরপর কিমার রোচ (১১) ও শ্যানন গ্যাব্রিয়েল (১৯)। 

রুটের অনুপস্থিতিতে এ মুহূর্তে ব্যাটিংয়ে ইংল্যান্ড দলের সেরা র‌্যাঙ্কধারী স্টোকস। তিনি রয়েছেন আইসিসি তালিকায় দশম স্থানে। তাদের পরবর্তী সেরা ব্যাটসম্যান ররি বার্নস (৩৩), যিনি ইনজুরি থেকে ফিরেছেন। টেস্টের সাবেক শীর্ষ বোলার জেমস অ্যান্ডারসন সাউদাম্পটনে নামবেন অষ্টম র‌্যাঙ্ক নিয়ে। তার পরেই আছেন ক্রিস ওকস (২৩) ও স্টোকস (২৬)। 

আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ র‌্যাঙ্কিং বিচারে সাউদাম্পটনে হবে চার ও আট নম্বর দলের লড়াই। ভারত, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের পরই ইংল্যান্ড। এ সিরিজেই কিউইদের (১৮০ পয়েন্ট) টপকে তিনে উঠতে চায় ইংলিশরা (১৪৬ পয়েন্ট)। ৯ দলের মধ্যে শুধু ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও বাংলাদেশের নামের পাশেই নেই কোনো পয়েন্ট। আগের সিরিজে ভারতের কাছে ০-২ ব্যবধানে হেরেছে ক্যারিবীয়রা। এবার কিছু পয়েন্ট পেতে আশাবাদী ফিল সিমন্সের দলটি। মহামারীর আগে ইংল্যান্ড ২-২-এ ড্র করেছে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ও ৩-১ ব্যবধানে হারিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকাকে। 

ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে প্রতি সিরিজে ১২০ পয়েন্ট। টেস্টে ম্যাচের ওপর নির্ভর করে পয়েন্ট বন্টন করা হয়। দুই টেস্টের সিরিজ হলে প্রতি টেস্টের জন্য ৬০ পয়েন্ট, আর পাঁচ টেস্টের সিরিজ হলে প্রতি টেস্টের জন্য ২৪ পয়েন্ট। লিগের শীর্ষ দুই পয়েন্টধারী দল ফাইনালে মুখোমুখি হবে। 

সূত্র: আইসিসি

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন