বৃহস্পতিবার | আগস্ট ১৩, ২০২০ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭

খবর

হঠাৎ ঢাকার ফ্লাইট বাতিল তার্কিশ এয়ারলাইনসের, বিপাকে প্রায় ৩০০০ যাত্রী

মনজুরুল ইসলাম

দীর্ঘ সময় বন্ধ থাকার পর আগামীকাল (৩ জুলাই) থেকে ঢাকা-ইস্তানবুল রুটে ফ্লাইট চালুর ঘোষণা দিয়েছিল তার্কিশ এয়ারলাইনস। ঢাকা থেকে বিশ্বের বিভিন্ন গন্তব্যে প্রায় ৩ হাজার টিকিটও বিক্রি করে ফেলেছিল ট্রাভেল এজেন্সিগুলো। কিন্তু আজ বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) সকালে হঠাৎ করেই ঢাকা রুটের সব ফ্লাইট বাতিল ঘোষণা করেছে এয়ারলাইনসটি। এতে  বিপাকে পড়েছেন ট্রাভেল এজেন্সি ও টিকিট কেনা যাত্রীরা।

জানা গেছে, ঢাকা-ইস্তানবুল রুটে ৩ জুলাই থেকে সপ্তাহে ৩টি করে ফ্লাইট চালুর ঘোষণা দিয়েছিল তার্কিশ এয়ারলাইনস। আজ তার্কিশ এয়ারলাইনস  ৩ থেকে ৭ জুলাইয়ের  ফ্লাইটগুলো বাাতিল ঘোষণা করেছে। তবে কবে নাগাদ ফ্লাইট শুরু হবে সেটাও পরিষ্কার করেনি। ফলে অগ্রীম টিকিট কেনা যাত্রীরা বিপাকে পড়েছেন। আজও শতাধিক যাত্রী গুলশানে গিয়ে তাদের অফিসের সামনে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। ঢাকার অফিসও বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এয়ারলাইনসটি।

তার্কিশ এয়ারলাইনসের একটি সূত্র জানায়, বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের সার্বিক পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ এবং এর বিস্তার রোধে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে তুরস্ক। তুরস্কের সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষের করোনা পরিস্থিতির আকস্মিক পুনর্বিবেচনায় চলতি সপ্তাহে যাত্রী পরিবহনে সাময়িক বিরতি প্রদানের নতুন নির্দেশনা দেয়। ফলে ৩ থেকে ৭ জুলাইয়ের  ফ্লাইটগুলো বাাতিল ঘোষণা করে তার্কিশ এয়ারলাইনস।

তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক গুলশানের এক ট্রাভেল এজেন্সির ব্যবস্থাপনা পরিচালক বণিক বার্তাকে বলেন, আমরা যতুটুকু জেনেছি, যেসব দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দিনদিন বাড়ছে সেসব দেশে ফ্লাইট বন্ধ রাখার নতুন সিদ্ধান্ত নিয়েছে তুরস্ক। দেশটির সিভিল এভিয়েশন করেনা সংক্রমের ঝুঁকিতে থাকা দেশগুলোতে ফ্লাইট পরিচালনা না করতে নির্দেশ দিয়েছে। বাংলাদেশেও করোনার পরিস্থিতি ঝুঁকিপূর্ণ বিবেচনায় ফ্লাইট বন্ধ রাখা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, এর আগে কাতার  এয়ারওয়েজ ও এমিরেটস এয়ারলাইনস ঢাকা রুটে ফ্লাইট শুরু করার পর তার্কিশ এয়ারলাইনসও ফের ফ্লাইট শুরু করতে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) কাছে আবেদন করে। ২৮ জুন বেবিচক  তার্কিশ এয়ারলাইনসকে ঢাকা থেকে ফ্লাইট চালু করতে অনুমতি দেয়। তুরস্কের তার্কিশ এয়ারলাইনস প্রাথমিকভাবে সপ্তাহে তিনটি ফ্লাইট পরিচালনা সিদ্ধান্ত নেয়। ঢাকা থেকে তুরস্ক হয়ে ইতালি, অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের বিভিন্ন গন্তব্যে যাত্রীদের কাছে টিকিট বিক্রিও শুরু হয়।

তার্কিশ এয়ারলাইনস জানিয়েছে, ৩ -৭ জুলাইয়ের যাত্রীদের পরবর্তী ফ্লইটগুলোতে তারিখের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকিট স্থানান্তর করা হবে। বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে যাত্রীদের অফিসে আগমন স্বাস্থ্যবিধির অন্তরায়। যাত্রীরা ০১৮৪৪০৫৯৯৬১ নম্বরে কল করতে পারবেন। অথবা আন্তর্জাতিক গ্রাহক সেবা নম্বরেও (+৯০৮৫০৩৩৩০৮৪৯) কল করতে পারবেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন