রবিবার | জুলাই ১২, ২০২০ | ২৮ আষাঢ় ১৪২৭

খবর

স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে অপসারণের দাবিতে সরগরম সংসদ

নিজস্ব প্রতিবেদক

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেককে সরিয়ে অন্য কাউকে মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য পীর ফজলুর রহমান। এক্ষেত্রে সাবেক কৃষিমন্ত্রীকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে। এর আগে বিএনপির সংসদ সদস্য মো. হারুনুর রশীদও স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেন। গতকাল তারা দাবি জানান।

দুপুরে স্পিকার . শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশনে ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেটের ওপর স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ছাঁটাই প্রস্তাব নিয়ে আলোচনাকালে বিরোধীদলীয় সংসদ সদস্যরা করোনাকালে স্বাস্থ্য ব্যবস্থার কঠোর সমালোচনা তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন। আলোচনায় অংশ নেন বিরোধী দল জাতীয় পার্টির কাজী ফিরোজ রশীদ, শামীম হায়দার পাটোয়ারী, পীর ফজলুর রহমান, মুজিবুর রহমান চুন্নু রওশন আরা মান্নান এবং বিএনপির মো, হারুনুর রশীদ।

ছাঁটাই প্রস্তাবের ওপর আলোচনাকালেসব কিছু প্রধানমন্ত্রীকে করতে হয়মন্তব্য করে কাজী ফিরোজ রশীদ বলেন, সব কিছু যদি প্রধানমন্ত্রীরই করতে হয় তাহলে মন্ত্রণালয়-অধিদপ্তর এত রাখার তো দরকার নেই। এত টাকা খরচ করে লাভ কী? আমরা প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনাই অনুসরণ করব। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অধিদপ্তরের মধ্যে কোনো সমন্বয় নেই। দেখা যায়, অধিদপ্তরের সিদ্ধান্ত স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানেনও না। তিনি করোনা মোকাবেলায় বেসরকারি হাসপাতালগুলো অধিগ্রহণ করে কভিড নন-কভিড দুটো সেকশনে আলাদা করে ফেলার প্রস্তাব দেন।

শামীম হায়দার পাটোয়ারী বলেন, স্বাস্থ্য ব্যবস্থা দিয়ে দেশের ১৮ কোটি মানুষের সেবা দেয়া অসম্ভব। চিকিৎসাসেবা সম্পর্কিত সেক্টরগুলোয় নন-ডাক্তারদের নিয়োগ দেয়া হচ্ছে। মেডিকেল সেক্টরের প্রশাসন থেকে শুরু করে সব কিছু ডাক্তারদের হাতে রাখা দরকার। আমাদের দেশে হেলথ ডাটাবেজ নেই। এটা জরুরি।

আলোচনায় অংশ নিয়ে বিএনপির হারুনুর রশীদ বলেন, সুচিকিৎসার পূর্বশর্ত হলো সঠিক রোগ নির্ণয়। আমাদের জেলা-উপজেলায় হাসপাতালে অবকাঠামো আছে কিন্তু টেকনোলজিস্ট সংকটে পরীক্ষাগুলো হয় না। আমাদের সম্পূর্ণ চিকিৎসা ব্যবস্থা ভারতমুখী হয়ে গেছে। চিকিৎসা ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজাতে হবে। জনবল সংকট নিরসন করতে হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন