মঙ্গলবার | আগস্ট ১১, ২০২০ | ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭

টকিজ

সুশান্তর মৃত্যু খতিয়ে দেখছে পুলিশ

ফিচার ডেস্ক

আত্মহত্যার জন্য শুরুতে একটি কাপড়ের বেল্ট ব্যবহার করেছিলেন প্রয়াত বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত। বেল্টটি ছিন্নভিন্ন অবস্থায় মেঝেতে পেয়েছিল মুম্বাই পুলিশ।

সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মহত্যা মামলার তদন্তে নেমে বেশকিছু প্রশ্নের মুখোমুখি হয়েছে মুম্বাই পুলিশ। তাদের হাতে এসেছে নতুন তথ্যআত্মহননের জন্য শুরুতে একটি কাপড়ের বেল্ট ব্যবহার করেন সুশান্ত, যেটা ছিন্নভিন্ন অবস্থায় মেঝেতে পেয়েছিল পুলিশ। এমনটাই জানা যাচ্ছে বিভিন্ন ভারতীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত রিপোর্ট থেকে।

পরনের একটি কাপড়ের সাহায্যে আত্মহত্যা করেন সুশান্ত। পুলিশ খতিয়ে দেখছে যে সত্যি কি সেই কাপড়টির পক্ষে অভিনেতার শরীরের ভার বহন করা সম্ভব, নাকি এক্ষেত্রে কোনো ভিন্ন সম্ভাবনা রয়েছে। এরই মধ্যে সেই কাপড়টি কালিনা ফরেনসিক ল্যাবে পাঠানো হয়েছে।

সুশান্তর সেই কাপড় কতটা ওজন ধারণ করতে পারে, তা জানতে চাইছে মুম্বাই পুলিশ। তাহলেই স্পষ্ট হবে সেটি সুশান্তর দেহের ওজন বইতে সক্ষম কিনা। পুলিশের অনুমান, সুশান্ত শুরুতে একটি কাপড়ের বেল্টের সাহায্যে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন।

জি নিউজ সূত্রে খবর, পুলিশ আত্মহত্যার দিন সুশান্তর ঘরে তার আলমারি খোলা অবস্থায় পায়। সেখানে অগোছালো জামাকাপড়ের মাঝে বেশকিছু ইস্ত্রি করা জামাকাপড়ও ছিল।

১৪ জুন মুম্বাইয়ে বান্দ্রার অ্যাপার্টমেন্টে আত্মহত্যা করেন সুশান্ত সিং রাজপুত। ২৪ জুন অভিনেতার ময়নাতদন্তের চূড়ান্ত রিপোর্টে বলা হয়, গলায় ফাঁস লাগার কারণেই দম বন্ধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে অভিনেতার। আত্মহত্যাই করেছেন তিনি। এক্ষেত্রে অন্য কোনো দিক নেই। রিপোর্টটি পাঁচ সদস্যের ডাক্তারি টিম খতিয়ে দেখেছে। তাদের চূড়ান্ত উপসংহার যে ওপর থেকে ঝুলে পড়ে শ্বাস আটকেই মারা গিয়েছেন ৩৪ বছরের অভিনেতা। তার ভিসেরা সংরক্ষণ করে তা রাসায়নিক পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। সেই রিপোর্টেরও অপেক্ষা করছে মুম্বাই পুলিশ।

মামলায় এরই মধ্যে প্রায় ২৫ জনের বয়ান রেকর্ড করেছে পুলিশ। বিভিন্ন মিডিয়ায় সুশান্তর আত্মহত্যা নিয়ে যেসব বিষয় আলোচিত হচ্ছে, সেগুলোও পুলিশ খতিয়ে দেখবে বলে জানা যাচ্ছে। অন্যদিকে অভিনেতার মৃত্যুতে সিবিআই তদন্তের দাবি ক্রমেই জোরালো হচ্ছে। সুশান্তর ভক্তদের তরফ থেকে নিয়মিতভাবেই সিবিআই তদন্তের দাবি জানানো হচ্ছে।

 

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন