মঙ্গলবার | জুলাই ১৪, ২০২০ | ৩০ আষাঢ় ১৪২৭

দেশের খবর

নওগাঁয় সেচঘরে দুই নারীর মরদেহ উদ্ধার

বণিক বার্তা প্রতিনিধি নওগাঁ

নওগাঁর বদলগাছীতে একটি গভীর নলকূপের সেচঘর থেকে দুই নারীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল দুপুরে উপজেলা সদরের চাংলা গ্রামের মাঠের সেচঘর থেকে মরদেহ দুটি উদ্ধার করা হয়। খবর পেয়ে রাজশাহী সিআইডি ক্রাইমসিন ইউনিটের একটি দল ঘটনাস্থলে এসে আলামত সংগ্রহ করে।

নিহতরা হলেন উপজেলার আধাইপুর ইউনিয়নের পার-আধাইপুর গ্রামের আব্দুল কাদিরের স্ত্রী সাথী বেগম (২২) তেঁতুলিয়া গ্রামের নজরুল ইসলামের স্ত্রী পরিনা বেগম (৩০)

ওই নলকূপের অপারেটর শাহাদাত হোসেন ভুট্ট বলেন, সেচঘরের পাশে তার একটি শসাক্ষেত আছে। গত মঙ্গলবার শসাক্ষেতে এসে সেচঘরের দরজায় তালা দেয়া দেখে বাড়িতে ফিরে যান। বুধবার তিনি ক্ষেতে আসতে পারেননি। গতকাল সকালে শসাক্ষেত দেখে সেচঘরে এসে দরজা অর্ধেক খোলা দেখতে পান। সময় ঘরের ভেতরে দুজন নারীর মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে নলকূপের মালিক স্থানীয় ইউপি সদস্যকে জানান। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে দুজনের মরদেহ উদ্ধার করে।

বদলগাছী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চৌধুরী জোবায়ের আহমেদ বলেন, ঘটনাস্থলে পড়ে থাকা একটি ভ্যানিটি ব্যাগ থেকে সাথী বেগমের জাতীয় পরিচয়পত্র পাওয়া যায়। নিহতদের মাথার পেছনে জখমের চিহ্ন

রয়েছে। মুখে বিষও ঢেলে দেয়া হয়েছে।

তবে কী কারণে হত্যাকাণ্ড ঘটেছে, তা

জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। প্রাথমিকভাবে ধর্ষণের কোনো আলামত পাওয়া যায়নি। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনায় থানায় হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে।

নিহত সাথী বেগমের স্বামী আব্দুল কাদির বলেন, তিনি একজন কাঠমিস্ত্রি। পরিবারসহ উপজেলার কোলাবাজারে নজরুল ওরফে লজুর বাসায় ভাড়া থাকেন। পরিনা বেগমের পরিবারও একই বাসায় ভাড়া থাকে। গত বুধবার বিকালে পরিনার সঙ্গে তার স্ত্রী সাথী বেড়াতে যায়। এর পর থেকে তাদের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। খবর পেয়ে তিনি এসে তার স্ত্রীর মরদেহ শনাক্ত করেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন