মঙ্গলবার | জুলাই ০৭, ২০২০ | ২৩ আষাঢ় ১৪২৭

করোনা

করোনা প্রতিরোধে সুতি কাপড়ের মাস্ক যথেষ্ট না

বণিক বার্তা ডেস্ক

কভিড-১৯ মহামারীর পরিপ্রেক্ষিতে বিশ্বে মাস্ক মানুষের জীবনে দৈনন্দিন বাস্তবতা হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর বাস্তবতার সঙ্গে দ্রুত বিকাশমান হচ্ছে সুতি কাপড়ের তৈরি মাস্ক। সহজে শ্বাস নেয়া যায়, কাপড়ের ছোট টুকরো দিয়ে বাড়িতেই তৈরি করা যায় এবং দীর্ঘদিন ব্যবহারযোগ্য সুবিধার কারণে এটা বেশি জনপ্রিয়। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিসহ ভারতের শীর্ষ মন্ত্রী সরকারি কর্মকর্তাদের মাস্ক ব্যবহার করতে দেখা গেছে। ফলে ভারতের কর্মশক্তি ধীরে ধীরে কাজে ফিরে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সুতি কাপড়ের মাস্কগুলো দ্রুতই জনপ্রিয় হয়ে উঠতে পারে।

সুতির মাস্কের মূল উদ্দেশ্য হলো ফ্রন্টলাইনের স্বাস্থ্যসেবা কর্মীদের জন্য সার্জিক্যাল মাস্ক এন-৯৫ মাস্কগুলো সংরক্ষণ করা। সুতির মাস্ক মূলত করোনাভাইরাস দ্বারা সংক্রমিত নয় এমন লোক বা যারা ভাইরাসটির লক্ষণহীন বাহক তাদের জন্য। দিল্লির ম্যাস্ক সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের সহযোগী পরিচালক ডা. রোমেল টিকু পরামর্শ দিয়েছেন, আপনার যদি স্বাস্থ্যগত জটিলতা থাকে বা আপনি বয়স্ক হন, তাহলে সার্জিক্যাল মাস্ক ব্যবহার করা ভালো। আর সুতি কাপড়ের মাস্ক ব্যবহার করলে সেটার কাপড় ঘন হওয়া উচিত, তবে সেটা ঘরে বা বাইরের পরিবেশে যেন শ্বাস নিতে পারা যায়।

দিল্লির দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল গুরুগাওয়ের ফর্টিস হাসপাতালের নিউরোলজি বিভাগের প্রধান ডা. প্রবীণ গুপ্ত বলেন, কাপড়ের মাস্কে একটি অতিরিক্ত স্তর যুক্ত করে পুরুত্ব বাড়াতে পারলে এটা আরো কার্যকর হয়। তিনি ঘরে তৈরি মাস্কগুলোতে রেশম বা শিফনের একটি স্তর যুক্ত করার পরামর্শ দিয়েছেন।

এছাড়া মাস্কটির পরিধি মুখের সঙ্গে ফিট হওয়াও গুরুত্বপূর্ণ। ডা. রোমেল টিকু বলেন, এটা আপনার মুখে সুন্দরভাবে ফিট করা উচিত এবং এটা মুখে বা গলায় হালকাভাবে ঝুলিয়ে রাখা উচিত নয়।

যদি কাপড়ের মাস্কগুলো আপনার পছন্দের শীর্ষে হয়, তবে এটার প্রটোকলগুলো আপনাকে অবশ্যই অনুসরণ করতে হবে। অন্যান্য মাস্কের মতো সুতি কাপড়ের মাস্কের সামনের অংশটিও স্পর্শ করা উচিত নয়। যদি ভুলবশত আপনি স্পর্শ করে ফেলেন, তবে আপনাকে অবিলম্বে হ্যান্ড স্যানিটাইজার বা সাবান-পানি দিয়ে হাত ধোয়ার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা। আর মাস্কগুলো দীর্ঘ সময় ব্যবহারের জন্য উপযুক্ত। আপনি যদি কয়েক ঘণ্টা মাস্ক পরে থাকেন, তবে পানি বা খাবার খাওয়ার সময় এটা খুলতে হবে। সেক্ষেত্রে আপনি মাস্ক খুলতে দুই পাশের ফিতাগুলো ব্যবহার করুন। এটা মুখ থেকে নামিয়ে বিশ্রাম কড়া নিষেধ রয়েছে।

কাপড়ের মাস্কগুলোর বড় সুবিধা হলো এগুলো পুনরায় ব্যবহারযোগ্য। প্রতিবার ব্যবহারের পর এগুলো পরিষ্কার করা গুরুত্বপূর্ণ। যেমন সারা দিন ব্যবহারের পর আপনি যখন কর্মক্ষেত্র থেকে ফিরে আসছেন তখন এটা অবিলম্বে পরিষ্কার করা দরকার। পরিষ্কারের ক্ষেত্রে সাধারণ ডিটারজেন্ট পানিই যথেষ্ট। তবে কেউ অতিরিক্ত সুরক্ষার জন্য জীবাণুনাশক যুক্ত করতে পারেন। ব্যবহারের জন্য একজন মানুষের অন্তত তিনটা মাস্ক প্রয়োজন, যেন একটা পরিষ্কারে দেয়ার পর আরেকটি প্রস্তুত থাকে।

স্ক্রলডটইন

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন