মঙ্গলবার | জুলাই ০৭, ২০২০ | ২৩ আষাঢ় ১৪২৭

টেলিকম ও প্রযুক্তি

ডিজিটাল রূপান্তর নিয়ে সিটিও ফোরামের সেমিনার অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

কভিড-১৯ মহামারীর ভয়াবহ সময়ে সাইবার দুর্বৃত্তরা বসে নেই। পরিস্থিতিতে সাইবার নিরাপত্তা, তথ্যের সুরক্ষাসহ বিভিন্ন প্রয়োজনে আর্থিক প্রতিষ্ঠানসহ সবাইকে আরো বেশি সচেতন থাকতে হবে। যে কারণে প্রতিষ্ঠানের ডিজিটাল রূপান্তর নিরাপত্তায় অধিক গুরুত্ব দিতে হবে। সম্প্রতি ডিজিটাল রূপান্তর নিয়ে দেশের প্রধান কারিগরি কর্মকর্তাদের সংগঠন সিটিও ফোরাম আয়োজিত এক অনলাইন সম্মেলনে বিষয়গুলো তুলে ধরা হয়।

গত শনিবার সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত সেমিনারে বক্তারা আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স (এআই) প্রযুক্তি, ব্লকচেইন, সাইবার নিরাপত্তা, দৃশ্যমান থেকে ভার্চুয়াল সেবায় ভয়, অভ্যন্তরীণভাবে পরিচালনা করা যায় এমন প্রযুক্তির ঘাটতি এবং এটিএম বুথের অপর্যাপ্ততার কথা তুলে ধরেন।

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন রবি আজিয়াটার ক্লাউট কম্পিউটিং বিভাগের কনসালট্যান্ট মোহাম্মাদ আসিফ।

সময় সিটিও ফোরাম সভাপতি তপন কান্তি সরকার বলেন, কভিড-১৯ মহামারীর সময় প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রযুক্তির সঠিক সুবিধা দেয়া নেয়ার প্রস্তুতি নিয়ে বড় ধরনের সংশয় রয়েছে। দেশীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর তথ্যপ্রযুক্তিতে বিনিয়োগের অভাব রয়েছে, যা এখন স্পষ্ট হয়ে উঠেছে।

তিনি বলেন, ব্যাংক অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো প্রযুক্তিনির্ভর হলেও যখনই আমরা প্রযুক্তিতে বিনিয়োগের কথা বলি, তখন পরিচালনা পর্ষদ বা সংশ্লিষ্টরা বিনিয়োগে আগ্রহ দেখায় না। বৈশ্বিক মহামারীর সময়ে ব্যাংক আর্থিক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর সেবা গ্রাহকদের সন্তুষ্ট করতে পারেনি। এক্ষেত্রে হাইব্রিড ক্লাউড ব্যাংকিং অপারেশনাল সফটওয়্যারের আধুনিকায়ন গ্রাহকের অভিজ্ঞতাকে উন্নত করা একটি বড় চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করেন সিটিও ফোরাম সভাপতি।

ব্যবসায়ের ডিজিটাল রূপান্তরের সাহস দক্ষ নেতৃত্বের ওপর গুরুত্বারোপ করে তপন কান্তি সরকার বলেন, কভিড-১৯ মহামারীর প্রাদুর্ভাবের সঙ্গে কিছু চ্যালেঞ্জ দেখা দিয়েছে। এগুলো হলো সাইবার সিকিউরিটি চ্যালেঞ্জ, ডাটার সুরক্ষা নিরবচ্ছিন্ন ইন্টারনেট ফ্রি অ্যাকসেস। আমরা যখন কাজ করছি হ্যাকাররা তখন বসে নেই। তবে আমরা অন্যান্য দেশের তুলনায় খুব একটা পিছিয়ে নেই।

সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইউসিবিএল ডিএমডি আব্দুল্লাহ আল মামুন, ইসলামী ব্যাংক সিটিও তাহের আহমেদ চৌধুরী, লংকাবাংলার সিটিও পরিচালক মইনুল ইসলাম, ডেকো গ্রুপের হেড অব আইসিটি মোহাম্মাদ মুসা প্রমুখ। সিটিও ফোরামের ফেলো অ্যাসোসিয়েট সদস্যসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রধান তথ্যপ্রযুক্তি কর্মকর্তাদের নিয়ে আয়োজিত অনলাইন সেমিনারে ৪০ জনের বেশি কারিগরি কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

সেমিনারে গ্রাহকদের সুরক্ষায় নিজস্ব ভিপিএন ব্যবহারের কথা জানান ইসলামী ব্যাংক সিটিও তাহের আহমেদ। অন্যদিকে ভবিষ্যতে ভিডিও ব্যাংকিং এবং স্মার্ট টেলার মেশিন দিয়ে সেবা চালু করার কথা জানান ইউসিবিএল ডিএমডি আব্দুল্লাহ আল মামুন।

 

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন