রবিবার | জুলাই ১২, ২০২০ | ২৭ আষাঢ় ১৪২৭

পণ্যবাজার

৭ মাসের সর্বনিম্নে অ্যারাবিকার দাম

বণিক বার্তা ডেস্ক

আন্তর্জাতিক বাজারে কফির দামে মন্দা ভাব বজায় রয়েছে। সর্বশেষ কার্যদিবসে অ্যারাবিকা কফির দাম কমতে কমতে সাত মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন অবস্থানে নেমে গেছে। কমতির দিকে রয়েছে রোবাস্তা কফির দামও। খবর বিজনেস রেকর্ডার।

ইন্টারকন্টিনেন্টাল এক্সচেঞ্জে (আইসিই) সর্বশেষ কার্যদিবসে অ্যারাবিকা কফির দাম আগের দিনের তুলনায় দশমিক শতাংশ কমেছে। দিন শেষে জুলাইয়ে সরবরাহ চুক্তিতে প্রতি পাউন্ড অ্যারাবিকা কফির দাম দাঁড়িয়েছে ৯৬ দশমিক সেন্টে, যা আগের দিনের তুলনায় পাউন্ডপ্রতি দশমিক সেন্ট কম। সাত মাসের মধ্যে এটাই পানীয় পণ্যটির সর্বনিম্ন দাম।

পণ্যবাজারবিষয়ক তথ্য বিশ্লেষণকারী প্রতিষ্ঠান আইএনটিএল এফসিস্টোনের বিশ্লেষক ফার্নান্দো ম্যাক্সিমিলিয়ান বলেন, এবারের মৌসুমে ব্রাজিল, কলম্বিয়া ইন্দোনেশিয়ায় অ্যারাবিকা কফির ফলন ভালো হয়েছে। তবে নভেল করোনাভাইরাসের বৈশ্বিক মহামারীতে এসব দেশের কফি উৎপাদনকারীরা চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছিলেন। সরকারের পক্ষ থেকে তাদের জন্য প্রণোদনা দেয়া হয়েছে। এসব কারণে আগামী দিনগুলোয় আন্তর্জাতিক বাজারে অ্যারাবিকা কফির সরবরাহ বাড়তে পারে। সম্ভাবনা পানীয় পণ্যটির দাম সাত মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন অবস্থানে নামিয়ে এনেছে।

অনেকটা একই চিত্র দেখা গেছে রোবাস্তা কফির দামেও। আইসিইতে সর্বশেষ কার্যদিবসে পানীয় পণ্যটির দাম টনে ডলার কমেছে। দিন শেষে জুলাইয়ে সরবরাহ চুক্তিতে প্রতি টন রোবাস্তা কফির দাম দাঁড়িয়েছে হাজার ১৬৯ ডলারে, যা আগের দিনের তুলনায় দশমিক শতাংশ কম।

সবচেয়ে বেশি ভালো মানের রোবাস্তা কফি রফতানি করে ভিয়েতনাম। চলতি বছরের প্রথম পাঁচ মাসে (জানুয়ারি-মে) দেশটি থেকে পানীয় পণ্যটির রফতানি আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় দশমিক শতাংশ বেড়ে আট লাখ টন ছাড়িয়ে গেছে। খবর প্রকাশের পর আন্তর্জাতিক বাজারে রোবাস্তা কফির দরপতন দেখা গেছে।

এদিকে আইসিইতে সর্বশেষ কার্যদিবসে পরিশোধিত চিনির দাম বেড়েছে দশমিক শতাংশ। আগস্টে সরবরাহ চুক্তিতে পণ্যটির দাম ৭০ সেন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে টনপ্রতি ৩৬২ ডলার ২০ সেন্টে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন