মঙ্গলবার | জুলাই ১৪, ২০২০ | ২৯ আষাঢ় ১৪২৭

টেলিকম ও প্রযুক্তি

জিও প্লাটফর্মে ১০০ কোটি ডলার বিনিয়োগে আগ্রহী মুবাদালা

বণিক বার্তা ডেস্ক

 ঋণের বোঝা কমাতে একের পর এক ব্যবসায় বিলগ্নীকরণের দিকে ঝুঁকছে ভারতের ধনকুবের মুকেশ আম্বানির মালিকানাধীন রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড (আরআইএল) এরই অংশ হিসেবে টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠান জিও ইনফোকমের বড় একটা অংশের মালিকানা বিক্রি করেছে ভারতীয় জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি। বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের তালিকায় রয়েছে ফেসবুকসহ কয়েকটি মার্কিন প্রতিষ্ঠানও। জিও প্লাটফর্মে এবার নতুন করে ভাগ বসাতে যাচ্ছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাষ্ট্রীয় একটি প্রতিষ্ঠান। মুবাদালা নামের আবুধাবিভিত্তিক রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানটি জিও প্লাটফর্মে ১০০ কোটি ডলার বিনিয়োগ করতে আগ্রহী। এজন্য আরআইএলের সঙ্গে বিষয়ে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। বিষয়টি সম্পর্কে অবগত আছেন এমন তিনজন তথ্য নিশ্চিত করেছেন। খবর রয়টার্স

এছাড়া আরেক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারও জিও প্লাটফর্মে বিনিয়োগের বিষয়ে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে বলে আরেকটি সূত্র রয়টার্সকে নিশ্চিত করেছে। মার্কিন প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানটিও জিও প্লাটফর্মে ১০০ কোটি ডলারের বেশি বিনিয়োগে আগ্রহী। এছাড়া প্রযুক্তি জায়ান্ট মাইক্রোসফটও জিও প্লাটফর্মে বিনিয়োগ করতে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম লাইভ মিন্ট। মাইক্রোসফট প্রায় ২০০ কোটি ডলার অর্থ বিনিয়োগ করে জিও প্লাটফর্মের দশমিক শতাংশ মালিকানায় ভাগ বসাতে চায় বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এদিকে এক -মেইল বার্তায় মুবাদালা জানিয়েছে, জিও প্লাটফর্ম বৈশ্বিক বিনিয়োগকারীদের জন্য অত্যন্ত আকর্ষণীয় একটি খাত। খাতে বিনিয়োগ বিশ্বের শীর্ষ বাজারে সেবা বিস্তৃত করার বড় একটি সুযোগ।

মুবাদালা হলো আবুধাবির দ্বিতীয় বৃহত্তর রাষ্ট্রীয় বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান। আবুধাবি ইনভেস্টমেন্ট অথরিটির (এডিআইএ) পর দ্বিতীয় শীর্ষে থাকা প্রতিষ্ঠানটির সম্পত্তির পরিমাণ প্রায় ২৪ হাজার কোটি ডলার। জিও প্লাটফর্মে বিনিয়োগ বা আলোচনার বিষয়টি নিয়ে মুবাদালা সরাসরি কোনো বক্তব্য না দিলেও সূত্র বলছে, বিনিয়োগের অর্থ হস্তান্তর কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। আর জিও প্লাটফর্মে মুবাদালা সত্যিই যদি বিনিয়োগ করে, তাহলে সেটি হবে ভারতীয় কোনো ফার্মে প্রতিষ্ঠানটির সবচেয়ে বেশি বিনিয়োগ।

তবে জিও প্লাটফর্ম এবারই প্রথম বিলগ্নীকরণ করছে না। এখন পর্যন্ত টেলিকম প্রতিষ্ঠানটি তার মালিকানার ১৭ শতাংশ বিক্রি করেছে। জিও প্লাটফর্মে বিনিয়োগকারীর প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে রয়েছে ফেসবুক, সিলভার লেক, ভিস্তা ইকুইটি পার্টনার, গ্লোবাল গ্রোথ ইকুইটি ফার্ম জেনারেল আটলান্টিকের মতো মার্কিন প্রতিষ্ঠান। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি বিনিয়োগ করেছে ফেসবুক। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম জায়ান্টটি জিও প্লাটফর্মের প্রায় ১০ শতাংশ মালিকানা কিনেছে। গেল এপ্রিলের অধিগ্রহণ চুক্তির মূল্য ৫৭০ কোটি ডলার, যা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৪৩ হাজার ৫৭৪ কোটি রুপি। ফেসবুকের পরই মালিকানা কেনে আরেক মার্কিন প্রাইভেট ইকুইটি প্রতিষ্ঠান সিলভার লেক। জিও প্লাটফর্মের দশমিক ১৫ শতাংশ নিয়ন্ত্রণ পেতে হাজার ৬৫৫ কোটি রুপি বিনিয়োগ করছে প্রতিষ্ঠানটি।

বর্তমানে মুকেশ আম্বানির আরআইএলের আওতাধীন একটি প্রতিষ্ঠান জিও প্লাটফর্ম। রিলায়েন্সের ডিজিটাল সেবা প্রদান করছে প্রতিষ্ঠান। জিও প্লাটফর্মের আওতাধীন টেলিযোগাযোগ কোম্পানি হলো রিলায়েন্স জিও ইনফোকম লিমিটেড। ভারতে সেলফোন অপারেটরটির গ্রাহক সংখ্যা ৩৮ কোটি ৮০ লাখ ছাড়িয়েছে। তবে ঋণের বোঝা কমাতে দীর্ঘদিন ধরেই বিভিন্ন ব্যবসায় বিলগ্নীকরণের চেষ্টা চালাচ্ছে রিলায়েন্স। আর বিলগ্নীকরণের অন্যতম খাত হিসেবে জিও প্লাটফর্মকে বেশি অগ্রাধিকার দিচ্ছে আরআইএল।

আরআইএলের হিসাব অনুযায়ী, গত ৩১ মার্চ পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানটির নিট ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে কোটি ৬১ লাখ রুপিতে। তবে ২০২১ সালের মার্চের মধ্যে ঋণের এসব খড়্গ থেকে মুক্তি পেতে চায় প্রতিষ্ঠানটি। কারণেই মরিয়া হয়ে বিলগ্নীকরণ নতুন ঋণের দিকে ঝুঁকছেন ভারতীয় ধনকুবের।

 

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন