বৃহস্পতিবার | আগস্ট ১৩, ২০২০ | ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭

পণ্যবাজার

টানা কমতির দিকে ইন্দোনেশিয়ার মজুদ

বণিক বার্তা ডেস্ক

সর্বশেষ ২০১৭ সালে ইন্দোনেশিয়ায় চালের সমাপনী মজুদে চাঙ্গা ভাব বজায় ছিল। পরের বছর দেশটিতে খাদ্যপণ্যটির মজুদ কমে আসে। ধারাবাহিকতা বজায় ছিল ২০১৯ সালেও। সময় দেশটিতে খাদ্যপণ্যটির সমাপনী মজুদ শতাংশের বেশি কমে ৩১ লাখ টনের নিচে নেমে এসেছে। মার্কিন কৃষি বিভাগের (ইউএসডিএ) ফরেন এগ্রিকালচারাল সার্ভিসের সাম্প্রতিক প্রতিবেদনে তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে। খবর বিজনেস রেকর্ডার এগ্রিমানি।

ইউএসডিএর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৭ সালে ইন্দোনেশিয়ায় চালের সমাপনী মজুদ ছিল ৪১ লাখ ৬৩ হাজার টন, যা আগের বছরের তুলনায় ৪২ দশমিক ৮১ শতাংশ বেশি। ২০১৩ সালের পর এটাই দেশটিতে চালের সর্বোচ্চ সমাপনী মজুদের রেকর্ড।

এর পরের বছর ইন্দোনেশিয়ায় চালের সমাপনী মজুদ ২১ দশমিক ৬৭ শতাংশ কমে ৩২ লাখ ৬১ হাজার টনে নেমে আসে। মজুদে মন্দা ভাব ২০১৯ সালেও অব্যাহত ছিল।

ইউএসডিএর প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, গত বছর শেষে ইন্দোনেশিয়ায় খাদ্যপণ্যটির সমাপনী মজুদ দাঁড়িয়েছে ৩০ লাখ ৫৯ হাজার টনে, যা আগের বছরের তুলনায় দশমিক ১৯ শতাংশ কম। অর্থাৎ এক বছরের ব্যবধানে দেশটিতে চালের সমাপনী মজুদ কমেছে লাখ হাজার টন।

 

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন