বুধবার | জুলাই ১৫, ২০২০ | ৩১ আষাঢ় ১৪২৭

খবর

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কাস্টমস ভ্যাটের ২১ কর্মকর্তা-কর্মচারী

নিজস্ব প্রতিবেদক

নভেল করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) কাস্টমস-ভ্যাট বিভাগে কর্মরত ২১ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ১৩ জনই চট্টগ্রাম কাস্টম হাউজে কর্মরত। এনবিআর সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, সবশেষ চট্টগ্রাম কাস্টম হাউজের চারজন কাস্টমস কর্মকর্তা একজন কম্পিউটার অপারেটর করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তারা হলেন রাজস্ব কর্মকর্তা রেহেনা আক্তার, সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা জহিরুল ইসলাম, কপিল দেব গোস্বামী, জামিল সারওয়ার কম্পিউটার অপারেটর মেহেদী হাসান।

করোনার উপসর্গ দেখা দেয়ার পর থেকে পাঁচ কর্মকর্তা-কর্মচারী ছুটিতে রয়েছেন। নতুন পাঁচজনসহ চট্টগ্রাম কাস্টমসে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১৩ জনে। এছাড়া আগে যে আট কর্মকর্তা আক্রান্ত হয়েছেন তারা হলেন রাজস্ব কর্মকর্তা মো. জসিম উদ্দিন মজুমদার, আমজাদ হোসেন, মো. আহসান হাবীব, নুরুল মোস্তফা, জাফরুল্লাহ এবং সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা মো. দারাশিকো, সুজন কুমার সরকার ফারুক আব্দুল্লাহ।

কাস্টম হাউজ ভ্যাট কমিশনারেটে আক্রান্তরা হলেন আইসিডি কমলাপুর কাস্টম হাউজের রাজস্ব কর্মকর্তা মো. মোয়াজ্জেম হোসেন মজুমদার সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা নুরে আলম। আর ঢাকা কাস্টম হাউজের তিনজন সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা শেখ আজমুল ইসলাম, মো. ফয়সাল বিন আশিক ছালেহা খাতুন। ভ্যাট পশ্চিম কমিশনারেটের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা অহিদুল ইসলাম এবং ভ্যাট উত্তর কমিশনারেটের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা শাহাদাৎ হোসেন চট্টগ্রামের ভ্যাট কমিশনারেটের একজন সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা।

বিসিএস (কাস্টমস অ্যান্ড ভ্যাট) অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব ভ্যাট নিরীক্ষা গোয়েন্দা-তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সৈয়দ মুশফিকুর রহমান গতকাল বিকালে বণিক বার্তাকে বলেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সঙ্গে যোগাযোগ করে ঢাকায় কর্মরত যেসব কর্মকর্তা-কর্মচারীর মধ্যে করোনার উপসর্গ রয়েছে, তাদের কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহযোগিতায় টেস্ট করানো হচ্ছে। আজও (গতকাল) ১৫ জনের টেস্টের নমুনা পাঠানো হয়েছে। আর আগামী সপ্তাহ থেকে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউজে টেস্ট করানোর ব্যবস্থা করা হবে। কারণ সেখানে রোগীর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে।

তিনি জানান, এছাড়া মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের একজন চিকিৎসক এনবিআরের যেসব কর্মকর্তা-কর্মচারী কিংবা তাদের পরিবারের যারা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তাদের টেলিমেডিসিন সেবা দিচ্ছেন। তবে চট্টগ্রাম কাস্টমসে মো. জসিম উদ্দিন মজুমদারের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে রাজধানীর আনোয়ার খান মর্ডান হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন