মঙ্গলবার | জুলাই ১৪, ২০২০ | ৩০ আষাঢ় ১৪২৭

খবর

যুক্তরাষ্ট্রে রাঁধুনী কারি মসলায় সালমোনেলা ব্যাকটেরিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাঁধুনী তরকারির মসলাতে ক্ষতিকর সালমোনেলা ব্যাকটেরিয়ার উপস্থিতি পেয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন (এফডিএ)। নিউইয়র্কের স্থানীয় কোম্পানি নিউ হক অ্যান্ড সন্স ইনক বিপণনকৃত রাঁধুনী কারি গুঁড়া মসলাতে এ ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়ার উপস্থিতি তারা নিশ্চিত করেছে গত ২১ মে। এরই মধ্যে সব পণ্য বাজার থেকে তুলে নেয়া হয়েছে। বিষয়টি এখনো তদন্তাধীন। তবে কোনো ভোক্তার অসুস্থ হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি।

এফডিএ সূত্রে জানা গেছে, রাঁধুনী কারি পাউডারগুলো নিউইয়র্ক সিটি, জ্যামাইকার মুদি দোকান, জ্যাকসন হাইটস এবং ব্রোনজসহ বেশ কিছু জায়গায় বিপণন করা হয়। পণ্যটি গত মাসের ১৭ তারিখ থেকে ২১ তারিখের মধ্যে বিপণন করা হয়েছিল। নিয়মিত তদন্ত কার্যক্রমের অংশ হিসেবে এ অঞ্চলের বিপণনকৃত মসলা পরীক্ষা করে এফডিএ। রাঁধুনীর কারি মসলায় সালমোনেলার উপস্থিতি প্রাথমিকভাবে নিশ্চিত হওয়ার পর চলতি মাসের ১৪ তারিখ থেকে দোকানগুলো থেকে তা সরানো হয়েছিল। ২১ মে চূড়ান্ত নোটিশ দেয়ার মাধ্যমে এই ব্রান্ডের সব পণ্য এ অঞ্চল থেকে তুলে নেয়ার নির্দেশ দিয়েছে এফডিএ। এফডিএর ওই নির্দেশনা বণিক বার্তা সংগ্রহ করেছে।

এফডিএ বলছে, ৪০০ গ্রাম প্লাস্টিকের বোতলে থাকা রাঁধুনী কারি পাউডারে স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়ার উপস্থিতির কারণে ঝুঁকিপূর্ণ। এর মাধ্যমে সালমোনেলা ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণের সম্ভাবনা রয়েছে। যা শিশুদের মধ্যে গুরুতর এবং কখনও কখনও মারাত্মক সংক্রমণের কারণ হতে পারে। প্রবীণ ব্যক্তি এবং দুর্বল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা সম্পন্নসহ অন্যরাও আক্রান্ত হতে পারে। সালমোনেলায় আক্রান্ত ব্যক্তির জ্বর, ডায়রিয়া (সঙ্গে রক্তও থাকতে পারে), বমিভাব, এবং পেটব্যথা হয়। বিরল পরিস্থিতিতে সালমোনেলা সংক্রমণের ফলে ব্যাকটেরিয়া রক্তে প্রবেশ করতে পারে এবং ধমনী সংক্রমণ (যেমন, সংক্রামিত অ্যানিউরিজম), অ্যান্ডোকার্ডাইটিস এবং আর্থ্রাইটিসের মতো গুরুতর অসুস্থতা তৈরি করতে পারে।

জানা গেছে, যে পণ্যটি পরীক্ষা করা হয়েছে সেটি রাঁধুনী কারি পাউডার লেবেলযুক্ত। যার মেয়াদ ছিল আগামী বছরের জানুয়ারি পর্যন্ত। পণ্যটি ৪০০ গ্রাম প্লাস্টিকের বোতলজাত। এটি নিউইয়র্কের স্থানীয় কোম্পানি নিউ হক অ্যান্ড সন্স ইনক বিপণন করে থাকে। 

এদিকে এরই মধ্যে পণ্যটির বিতরণ ও বিপণন বন্ধ করে দিয়েছে নিউ হক অ্যান্ড সন্স ইনক। স্টোর থেকে সরিয়ে নিয়েছে তারা। এটি কী করে হলো তা তদন্ত করে দেখছে এফডিএ। যারা এরই মধ্যে রাঁধুনী কারি পাউডার কিনেছেন তাদের ফেরত দিতে অনুরোধ করা হয়েছে। কোম্পানির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, গ্রাহকরা স্থানীয় সময় (ইএসটি) সোমবার-শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টার মধ্যে কোম্পানির সঙ্গে যোগাযোগ ও যে কোনো প্রশ্ন করতে পারবেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন