শুক্রবার | জুলাই ১০, ২০২০ | ২৬ আষাঢ় ১৪২৭

ফিচার

করোনায় বদলে যাওয়া ঈদ উদযাপন

নভেল করোনাভাইরাস দুনিয়াকে বদলে দিয়েছে- শুনতে এখন ক্লিশে লাগতে পারে। কারণ, সবাই প্রতিনিয়তই তা অনুভব করছেন। আজ বাদে কাল বাংলাদেশে উদযাপিত হবে খুশির ঈদ। মধ্যপ্রাচ্যসহ দুনিয়ার বিভিন্ন দেশে আজ ঈদ-উল-ফিতর পালিত হচ্ছে। কিন্তু অবধারিতভাবেই বদলে গেছে উদযাপন। কভিড-১৯ মহামারীতে মধ্যপ্রাচ্যের মুসলমানরা অনলাইন যোগাযোগে ঈদ উদযাপন করছেন। অন্যান্য মুসলিমপ্রধান দেশগুলোতেও একই অবস্থা, জানাচ্ছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা। 

কাতার, তুরস্ক ও ইন্দোনেশিয়ায় ঈদের বেশিরভাগ আনুষ্ঠানিকতা বাতিল করা হয়েছে। দেশগুলোতে ঈদের জামাত আদায়ে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করা হয়েছে। সৌদি আরবে পবিত্র মক্কা নগরীর গ্র্যান্ড মস্কে শুধু মসজিদ সংশ্লিষ্টরাই ঈদের নামায আদায় করেছেন। সৌদি আরবে ২৩ মে থেকে চলছে ৫ দিনব্যাপী কারফিউ।

উত্তর ও লাতিন আমেরিকার দেশগুলোতেই লকডাউন কিংবা বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞায় পালিত হচ্ছে ঈদ। সান্তিয়াগোর ইসলামিক সেন্টার অব চিলির ফুয়াদ মুসা আল জাজিরাকে বলেন, এবারের ঈদ নিরানন্দভাবে কাটবে। 

ঈদের ভার্চুয়াল উদযাপন

মধ্যপ্রাচ্যে ঈদ উদযাপিত হচ্ছে প্রযুক্তির সাহায্যে। অনেক ধর্মীয় নেতা অনলাইনে ঈদ উপলক্ষে বার্তা দিয়েছেন, কোথাও সোশ্যাল মিডিয়ায় একসঙ্গে ঈদ উদযাপন, কোথাও অনলাইনে কনসার্ট। এই যেমন, সান্তিয়াগোর ইসলামিক সেন্টার অব চিলিতে গতবছর ঈদ উপলক্ষে মধ্যপ্রাচ্য থেকে কয়েকজন ধর্মীয় নেতা এসেছিলেন, তারা বিভিন্ন ধর্মীয় বয়ান করেছিলেন। সেন্টারের মুসা জানান এবার আর তা সম্ভব হয়নি, তাই এবার তাদের বয়ান শোনা হয়েছে অনলাইনে। অনেকে ঈদে বাসায় কী রান্না করেছেন তা বন্ধু ও আত্মীয়দের সঙ্গে ভিডিও কলে শেয়ার করছেন। 

জাকার্তায় অনলাইনে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময়

যুক্তরাজ্যের রমাদান টেন্ট প্রজেক্ট ঈদ উদযাপনে অনলাইন যোগাযোগকেই উপায় হিসেবে দেখছে। তারা শিশু ও প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য অনলাইনে ঈদ উদযাপনের বিভিন্ন আয়োজন রেখেছেন। শিশুদের জন্য আছে গল্প বলা, ঘরে বসে নানারকম খেলনা তৈরি সহ নানা আয়োজন।

কভিড-১৯ সংক্রমণ ঠেকাতে মসজিদ বন্ধ থাকায় নিজেদের বাড়ির প্রাঙ্গণেই ঈদের নামায আদায় করছেন শারজাহের একটি পরিবার

যুক্তরাষ্ট্রের দ্য কাউন্সিল অব আমেরিকান-ইসলামিক রিলেশনস (সিএআইআর)  দেশটির মুসলিম নাগরিকদের ঈদ উদযাপনে সহায়তা করতে এগিয়ে এসেছে। তারা নাগরিকদের কাছ থেকে তাদের ঈদ উদযাপনের ছবি ও ভিডিও চেয়েছে। এগুলো তারা বাছাই, সম্পাদনা করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করবে। সংস্থাটির কর্মকর্মা এডওয়ার্ড মিচেল আল জাজিরাকে বলেন, শারীরিকভাবে দূরে থাকলেও আমরা চাই সবাই যেন ঈদ উদযাপনে শরিক হতে পারেন। তাদের এ উদ্যোগ  #কোয়ারেন্টঈদ নামে বাস্তবায়িত হচ্ছে।

ইন্দোনেশিয়ায় নিম্ন আয়ের মানুষের ঈদ ছিল নিরানন্দ

সংযুক্ত আরব আমিরাতে দেশটির সংস্কৃতি ও পর্যটন বিভাগ ২৩ থেকে ২৫ মে পর্যন্ত অনলাইনে অনেকগুলো কনসার্ট প্রচার করছে। আজ দেশটির সময় রাত আটটায় অনলাইন কনসার্টে পারফর্ম করবেন সিজার অব অ্যারাবিক মিউজিক’খ্যাত কাদিম আল সাহির। 

বিবর্ণ ঈদ

ইন্দোনেশিয়ার সাধারণ মানুষের ঈদ আজ ভাল কাটেনি। নিম্ন আয়ের মানুষদের মুখ ভার ছিল, অনলাইনে ঈদ উদযাপন তারা করতে পারেননি। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞায় দিনমজুর বা সাধারণ শ্রমিকদের আয়ের পথ প্রায় বন্ধ। গত ঈদও যারা আনন্দে কাটিয়েছেন তাদের মুখ আজ মলিন ছিল। জাকার্তায় বসবাস করা নিম্মআয়ের অনেক মানুষ তাদের বাড়িতে ফিরতে পারেননি। এমনি একজন তোহিরিন, তিনি আল জাজিরাকে জানান এবারই জীবনে প্রথম তিনি একাকী ঈদ পালন করছেন।

ইন্দোনেশিয়ার পূর্ব জাভায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ঈদের জামাত

ভারতেও ঈদ উদযাপনে আজ মলিন ভাব ছিল। হিন্দুস্তান টাইমসকে মুম্বাইয়ের বাসিন্দা সাদাফ মোহতেশাম বলেছেন, ‘প্রতি ঈদেই পরিবার ও নিজের জন্য নতুন জামাকাপড় কিনি। কিন্তু এবছর কেউই ঈদে নতুন কিছু কেনেনি। আমি আমার বোনের বাসায় চাঁদ রাতে গিয়ে হাতে মেহেদী দিতাম। এবার সেরকম কিছু করা হয়নি। ভারতে ক্রমবর্ধমান কভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা ঈদের সব উদযাপন ও আনন্দকে মাটি করে দিয়েছে। এরকম পরিস্থিতিতে সাদামাটাভাবে ঈদ উদযাপন করতে পেরেই আমি খুশি।’

সূত্র : আল জাজিরা ও হিন্দুস্তান টাইমস

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন