বৃহস্পতিবার | জুলাই ১৬, ২০২০ | ১ শ্রাবণ ১৪২৭

আন্তর্জাতিক ব্যবসা

১০০ কোটি ডলারের পিপিইর অর্ডার আশা করছে শ্রীলংকা

বণিক বার্তা অনলাইন

বিশ্বজুড়ে নভেল করোনাভাইরাসের মহামারী ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে পারসোনাল প্রটেক্টিভ ইকুইপমেন্ট বা পিপিইর চাহিদা হু হু করে বেড়েছে। বাড়তি চাহিদা জোগান দিতে তৈরি পোশাক শিল্পে উন্নত দেশের গার্মেন্টসগুলো এখন পিপিই তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছে। ব্যতিক্রম নয় শ্রীলংকাও। দেশটির রফতানিমুখী গার্মেন্টস শিল্প এরই মধ্যে আন্তর্জাতিক ক্রেতাদের কাছ থেকে ৫০ কোটি ডলারের পিপিইর অর্ডার পেয়েছে। সব মিলিয়ে পিপিইর ওয়ার্ক অর্ডার ১০০ কোটি ডলার ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে আশা করছে শ্রীলংকার গার্মেন্টস শিল্প। খবর সিনহুয়া।  

শ্রীলংকার বোর্ড অব ইনভেস্টমেন্টের (বিওআই) এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, করোনা মহামারীতে দেশটির গার্মেন্টস শিল্পের জন্য বড় একটি সুযোগ তৈরি করেছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ক্রেতারা পিপিই কিনতে যোগাযোগ করছেন। এজন্য বর্তমানে শ্রীলংকার ৩৩টি গার্মেন্টনে শুধুমাত্র পিপিই তৈরি করা হচ্ছে। এসব পিপিই ইউরোপ ও যুক্তরাষ্ট্রের ক্রেতারা সবচেয়ে বেশি কিনছেন।

বিওআইয়ের মহাপরিচালক সঞ্জয় মহোত্তলা বলেন, পিপিইর জন্য এরই মধ্যে ৫০ কোটি ডলারের ওয়ার্ক অর্ডার পেয়েছে শ্রীলংকার গার্মেন্টস শিল্প। আমরা আশা করছি শিগগিরই এর পরিমাণ ১০০ কোটি ডলার ছাড়িয়ে যেতে পারে। এরই মধ্যে আরো ক্রেতার সঙ্গে পিপিই নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। দ্রুতই এসব ওয়ার্ক অর্ডার নিশ্চিত হতে পারে।

উল্লেখ্য, গত বছর রফতানি খাত থেকে শ্রীলংকা সব মিলিয়ে ১ হাজার ১৯০ কোটি ডলার আয় করেছে। এর মধ্যে ৫৭০ কোটি ডলার এসেছে গার্মেন্টস শিল্প থেকে। দেশটির তিন শতাধিক গার্মেন্টসে ৩ লাখের বেশি কর্মী কাজ করেন। প্রায় ১০ লাখ শ্রীলংকান প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষভাবে গার্মেন্টস শিল্পের সঙ্গে সম্পৃক্ত।  

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন