শুক্রবার | জুলাই ১০, ২০২০ | ২৬ আষাঢ় ১৪২৭

দেশের খবর

হিলিতে দেয়াল থেকে ঝড়ছে পানি

বণিক বার্তা প্রতিনিধি, হিলি

ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাব ঘটতে না ঘটতেই দিনাজপুরের হিলিতে দেখা দিয়েছে নতুন আতঙ্ক। উপজেলার বিভিন্ন বাসাবাড়ি, অফিস, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ভবনগুলোর দেয়াল থেকে ঝড়ছে পানি। একই সঙ্গে মেঝে দিয়েও চুইয়ে পানি উঠে ‘স্যাঁতস্যাঁতে’ হতে দেখা গেছে। এটিকে এরই মধ্যে ‘গজব’ বলেও একধরনের গুজব ছড়িয়ে পড়েছে। তবে আবহাওয়া অধিদপ্তরের কর্মকর্তা বিষয়টি নিয়ে আতঙ্কিত না হওয়ার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন।

গতকাল শনিবার দুপুর থেকে হিলি বাজার, দক্ষিণপাড়া, চুড়িপট্টিসহ বিভিন্ন এলাকার বাসা বাড়ি ও দোকানপাঠে এমন অবস্থা লক্ষ্য করা গেছে। হিলি বাজারের ইজারাদার হায়দার আলী বলেন, বিকেলের দিকে হাটের ইজারাদারের অফিস খুলে দেখি পুরো মেঝে ঘেমে পানি উঠে আছে। বেশ কয়েকবার পরিষ্কার করলেও আবারও মেঝে ঘেমে উঠছে ও দেওয়াল বয়ে পানি ঝড়ছে।

বাজারটির হারুন হোসেন নামের এক ব্যবসায়ী বলেন, ‘দুপুর থেকেই দোকানের মেঝে ও দেওয়াল ঘেমে উঠছে আর পানি ঝড়ছে। পানির কারণে দোকানের জিনিসপত্র ঘেমে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। আমরা তো ভয় পেয়ে গেছি। মানুষ বলছে এটাতো ভূমিকম্পের বা আল্লাহর গজবের আলামত।’

একই অবস্থা বাসা বাড়িগুলোতেও। হিলির মধ্যবাসুদেপুর মহল্লার গৃহিনী জান্নাতুল ফেরদৌস বলেন, দুপুরের দিকে হঠাৎ করে মেঝেতে লক্ষ্য করি ঘেমে উঠছে ও পানি ঝড়ছে, একই অবস্থা দেওয়ালের ক্ষেত্রেই দেওয়াল বয়ে পানি ঝড়ছে। প্রথমের দিকে চারিদিকে বৃষ্টিপাত হচ্ছে এমন ভেবে মুছে রেখে দেই। কিন্তু এরপরেও দেখছি মেঝে ও দেওয়াল ঘেমে পানি ঝড়ছে। এমনকি বিদ্যুতের সুইচবোর্ডসহ সবকিছু ঘেমে পানি ঝড়ছে এতে করে একটা দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।



আবহাওয়া অধিদপ্তরের দিনাজপুরের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেন বলেন, এমন হয়ে থাকে, এটাতে ভয় পাওয়ার কিছু নেই। এটি জলীয়বাষ্পের কারণে হতে পারে। ঘরে ঠাণ্ডা ও বাইরে গরম হওয়ার কারণে জলীয়বাষ্পগুলো মেঝে ও দেওয়ালে পড়ে ঠাণ্ডা হয়ে ঘেমে উঠছে ও ঝড়ে পড়ছে। এটি একটি বৈজ্ঞানিক বিষয়, এটাতে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন