মঙ্গলবার | জুন ০২, ২০২০ | ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

খবর

কভিড-১৯

সংক্রমণের দিক থেকে এখনো ‘কিছুটা নিরাপদে’ বরিশাল বিভাগ

নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশের ৬৪ জেলাতে অনেক আগেই ছড়িয়ে পড়েছে নভেল করোনাভাইরাস ডিজিস বা কভিড-১৯। করোনা শনাক্তে পরীক্ষার সংখ্যা বাড়ার সাথে সাথে প্রতিদিনই পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সংক্রমণের সংখ্যাও। ইতোমধ্যে দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ৩২ হাজারের বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছেন। আর মৃত্যু হয়েছে ৪৫২ জনের। বিভাগভিত্তিক হিসাবে সংক্রমণের দিক থেকে দেশের আটটি বিভাগের মধ্যে শীর্ষে আছে ঢাকা ও চট্টগ্রাম, তবে সংক্রমণের দিক থেকে এখনো কিছুটা ‘নিরাপদ অবস্থানে’ রয়েছে বরিশাল বিভাগ। সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) ২২ মে সকাল পর্যন্ত দেয়া তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, এখন পর্যন্ত বিভাগটিতে ১৬৯ জন সংক্রমিত ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছেন। যা মোট শনাক্তের দশমিক ৭৪ শতাংশ।

গত ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনাভাইরাসে সংক্রমিতের বিষয়টি শনাক্ত হয়। শুরু থেকে বেছে বেছে নমুনা পরীক্ষায় গুরুত্ব দেয়া হয়। তবে চলতি মাস থেকেই পরীক্ষার পরিধি বাড়ানো হয়। তাছাড়া বর্তমানে করোনা শনাক্ত ল্যাবের সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। গতকাল পর্যন্ত দেশের মোট ৪৭টি হাসপাতাল ও প্রতিষ্ঠান নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষায় যুক্ত ছিল। এর মধ্যে কেবল ঢাকায় রয়েছে ২৪টি প্রতিষ্ঠান। ফলে স্বাভাবিকভাবেই করোনা সংক্রমিত রোগী শনাক্তের তালিকা প্রতিদিনই দীর্ঘ হচ্ছে। আর এ তালিকায় শীর্ষ রয়েছে ঢাকা বিভাগ। আর সংক্রমণের দিক থেকে একেবারে পিছনে রয়েছে বরিশাল বিভাগ।

আইইডিসিআরের তথ্য অনুযায়ী, গতকাল সকাল পর্যন্ত ঢাকা বিভাগে সংক্রমিত সংখ্যা ছিল ১৭ হাজার ১৮২ জন। যার মধ্যে কেবল ঢাকা সিটিতেই রয়েছে ১৩ হাজার ৯৩ জন। যা মোট শনাক্তের ৫৭ দশমিক ৪৭ শতাংশ। অন্যদিকে ঢাকা সিটি বাদে পুরো বিভাগে সংক্রমিত শনাক্তের সংখ্যা ছিল ৪ হাজার ৮৯ জন। যা মোট শনাক্তের ১৭ দশমিক ৯৫ শতাংশ।

ঢাকা বিভাগে জেলাভিত্তিক তথ্য বিশ্লেষণ দেখা গেছে, ১ হাজার ৬৬৬ জন শনাক্ত হওয়ার মধ্যে দিয়ে শীর্ষে রয়েছে নারায়ণগঞ্জ। এরপরেই রয়েছে গাজীপুর। জেলাটিতে শনাক্ত হয়েছে ৫৬১ জন। আর জেলা হিসেবে ঢাকাতে শনাক্ত হয়েছে ৪৭৫ জন। ঢাকা বিভাগে সবচেয়ে কম শনাক্ত হয়েছে রাজবাড়ি জেলায়। জেলাটিতে গতকাল পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছে ৩৬ জন।

অন্যদিকে বিভাগভিত্তিক শনাক্তের তালিকায় সবচেয়ে নিরাপদ অবস্থানে থাকা বরিশাল বিভাগে ১৬৯ জন শনাক্ত হয়েছেন। এর মধ্যে শীর্ষে রয়েছে বরিশাল জেলা। জেলাটিতে শনাক্ত হয়েছেন ৬৪ জন। আর সবচেয়ে কম শনাক্ত হয়েছে পিরোজপুরে, সাতজন।
 
এছাড়া বিভাগভিত্তিক শনাক্তের দিক থেকে ঢাকার পরেই রয়েছে চট্টগ্রাম। বিভাগটিতে এ সময় পর্যন্ত শনাক্তের সংখ্যা ছিল ২ হাজার ৭৭৯ জন। যা মোট শনাক্তের ১২ দশমিক ২০ শতাংশ। আর ১ হাজার ৩৪০ জন নিয়ে বিভাগটিতে শীর্ষে রয়েছে চট্টগ্রাম জেলা। এই বিভাগে সবচেয়ে কম শনাক্ত হয়েছে বান্দরবান জেলায়, ৯ জন।

এরপরেই রয়েছে ময়মনসিংহ বিভাগ। বিভাগটিতে গতকাল পর্যন্ত ৭৯১ জন শনাক্ত হয়েছে। যা মোট শনাক্তের ৩ দশমিক ৪৭ শতাংশ। রংপুর বিভাগে শনাক্ত হয়েছে ৭০০ জন। যা মোট শনাক্তের  ৩ দশমিক শূন্য ৭ শতাংশ। খুলনা বিভাগে শনাক্ত হয়েছেন ৪৩৩ জন বা ১ দশমিক ৯০ শতাংশ। রাজশাহীতে শনাক্ত হয়েছে ৪২৩ জন। যা মোট শনাক্তের ১ দশমিক ৮৬ শতাংশ। আর সিলেটে শনাক্ত হয়েছে ৩০৬ জন। যা মোট শনাক্তের ১ দশমিক ৩৪ শতাংশ।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন