শুক্রবার | আগস্ট ১৪, ২০২০ | ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭

প্রথম পাতা

মমতাকে প্রধানমন্ত্রীর ফোন

খোঁজ নিলেন আম্পানের ক্ষয়ক্ষতির বিষয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদক

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে টেলিফোন করে সুপার সাইক্লোন আম্পানের ক্ষয়ক্ষতির ব্যাপারে খোঁজখবর নেন সহমর্মিতা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম তথ্য জানান।

ইহসানুল করিম গণমাধ্যমকে বলেন, প্রধানমন্ত্রী আজ (শুক্রবার) বেলা ১১টা ১০ মিনিটে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে টেলিফোন করেন এবং পশ্চিমবঙ্গে আঘাত হানা সাইক্লোনে ক্ষয়ক্ষতির বিষয়ে তার কাছে জানতে চান।

প্রেস সচিব বলেন, প্রধানমন্ত্রী সাইক্লোনে জানমালের ক্ষয়ক্ষতিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতি সমবেদনা জানান। রাজ্য সরকার অচিরেই এই ক্ষতি পুষিয়ে উঠতে সমর্থ হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। সমবেদনা জ্ঞাপন করায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান।

সুপার সাইক্লোন আম্পান গত বুধবার বাংলাদেশে আঘাত হানার আগে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে আঘাত হানে। এতে রাজ্যটিতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেখানকার গণমাধ্যমকে বৃহস্পতিবার জানান, ১৭৩৭ সালের পর এমন দুর্যোগ আর হয়নি। আম্পানের তাণ্ডবে রাজ্যে ৮০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে কলকাতায় ১৯ জন এবং বিভিন্ন জেলায় ৬১ জন মারা গিয়েছেন। ছাড়া, কলকাতা, উত্তর দক্ষিণ চব্বিশ পরগনাসহ রাজ্যের অন্তত ১৩টি জেলা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর মধ্যে সাত-আটটি জেলায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এবং আরো চার-পাঁচটি জেলা বিপর্যস্ত।

একই দিন বিকালে তীব্র ঝড়ো বাতাস আর বৃষ্টি ঝরিয়ে সাগর থেকে উপকূলে উঠে আসে আম্পান। তবে বাংলাদেশের উপকূলীয় জেলা সাতক্ষীরা সুন্দরবন অংশের ওপর আঘাতের পর আম্পানের বাংলাদেশ অংশটি উঠে আসে স্থলভাগে।

আম্পানের কারণে গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সারা দেশে শিশুসহ ২৪ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। তাদের মধ্যে যশোরে ১২, সাতক্ষীরায় দুই, ভোলায় দুই, পিরোজপুরে দুই, পটুয়াখালীতে তিন এবং চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ, সিরাজগঞ্জ চাঁদপুরে একজন করে রয়েছেন। নিহতদের বেশির ভাগই মারা গেছেন গাছচাপা পড়ে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন

×