বুধবার | মে ২৭, ২০২০ | ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

খেলা

করোনাকালে ক্রিকেটার মহসিনের অন্যরকম লড়াই

বণিক বার্তা অনলাইন

মো. মহসিন। লড়াই করছেন দীর্ঘদিন। বলা যায় লড়াই করেই আজ দেশের ক্রিকেট পাগল মানুষের কাছে পরিচিত তিনি। নিজের প্রচেষ্টায় গড়েছেন হুইলচেয়ার ক্রিকেট দল। যার অধিনায়কও তিনি। এরই মধ্যে খেলে দেশের হয়ে বিজয় ছিনিয়ে এনেছেন আন্তর্জাতিক অঙ্গন থেকেও। নভেল করোনাভাইরাসের এই দুঃসময়েও তিনি প্রতিবন্ধীদের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

হুইল চেয়ার ক্রিকেটারদের নিয়ে তারই হাতে গড়া হুইলচেয়ার ক্রিকেট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশের ব্যানারে তিনি শুরু থেকেই সচেতনতা তৈরিতে প্রচারণা, লিফলেট বিতরণ, ব্যানার লাগানো, পাড়া-মহল্লার দোকানের সামনে তিনফুট দূরত্বে ছক এঁকে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করার কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। এরই মধ্যে তার সংগঠের সদস্য ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের নিয়ে নিজ এলাকা এবং আশে-পাশে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালানো, অসহায় দরিদ্র ও প্রতিবন্ধী মানুষদের খাবার ও অন্যান্য প্রয়োজন মেটানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন প্রতিনিয়ত।

মহসিন বণিক বার্তাকে বলেন, ‘আমি নিজ শহর টঙ্গি, গাজীপুরে প্রতিবন্ধী মানুষদের খাবারের ব্যবস্থা করেছি। এছাড়াও ঢাকার মিরপুর, কালশি, পল্লবী, বাড্ডা, রামপুরাসহ আরো বিভিন্ন এলাকায় প্রায় আড়াই হাজার প্রতিবন্ধী পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিয়েছি। ইয়ুথ পলিসি ফোরাম এবং বাংলাদেশ হুইলচেয়ার ক্রিকেটের যৌথ উদ্যোগে ঢাকার বাইরে চট্টগ্রাম, রাজশাহী, রংপুর ও বরিশালে ৪১৫টি পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিয়েছি।’

তিনি জানান, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড, অরিয়ন, এপিলন, সেভ মিশন বাংলাদেশ, বিওয়াইএলসি, ডব্লিউ ইএফ (ঢাকা হাব), হিরোস ফর অল, অল ফর ওয়ান, এম স্পোর্টস, এনডিডি, ইউসিডি প্রভৃতি প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে খাদ্যসামগ্রী নিয়ে এসে প্রতিবন্ধী ও অসহায় দরিদ্র মানুষদের দেয়া হয়েছে। করোনার এই দুঃসময়ে ব্র্যাক ৩০০ প্রতিবন্ধী পরিবারের মাঝে নগদ ১৫০০ টাকা করে বিকাশের মাধ্যমে অর্থ সহায়তা প্রদান করেছে।

প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের পাশে দাঁড়ানোর এসব প্রতিষ্ঠানের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ প্রকাশ করেছেন মহসিন। তিনি বলেন, ‘আপনারা যেভাবে মহামারি করোনা ভাইরাসের এই সংকটের সময় প্রতিবন্ধী পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছেন এবং তাদের মুখে হাঁসি ফুটিয়েছেন, আশা করি ভবিষ্যতেও আমাদের পাশে থাকবেন এটা আমাদের কাম্য।’

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন