মঙ্গলবার | আগস্ট ১১, ২০২০ | ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭

খেলা

অধিনায়কত্ব নিয়ে ভাবছি না, সবার আগে খেলায় ফিরতে চাই : সাকিব

বণিক বার্তা অনলাইন

আইসিসির নিষেধাজ্ঞা শেষ হয়ে আসছে বাংলাদেশ ক্রিকেটের পোস্টার বয় সাকিব আল হাসানের, সব ঠিকঠাক থাকলে এবছর ২৯ অক্টোবর থেকে মাঠে ফিরতে পারবেন তিনি। এরই মধ্যে বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের নিয়মিত অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা অধিনায়ক হিসেবে অবসর নেয়ায় নতুন অধিনায়ক হিসেবে তামিম ইকবালের নাম ঘোষণা করেছে ক্রিকেট বোর্ড। তবে সাকিব আল হাসান নিষেধাজ্ঞায় না থাকলে অধিনায়কত্বের দৌড়ে নিশ্চয়ই এগিয়ে থাকতেন বলেই বোদ্ধাদের ধারণা। তিন ফরম্যাটেই দলকে এর আগে নেতৃত্বও দিয়েছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব। নিষেধাজ্ঞার আগেও টেস্ট এবং টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক ছিলেন।

আজ সোমবার ডয়েচে ভেলের বাংলা সংস্করণের এক ভিডিও সাক্ষাৎকারে যুক্ত হন সাকিব। সেখানে দর্শকের প্রশ্ন নিয়ে সঞ্চালক বলেন, নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে খেলায় ফিরলে নিজেকে জাতীয় দলের অধিনায়ক হিসেবে দেখতে চান কিনা? এমন প্রশ্নের জবাবে সাকিব আল হাসান বলেন, ‘সবার আগে তো খেলায় ফিরতে চাই। চার-পাঁচ মাস পর খেলায় ফিরব। তো আগে খেলায় ফিরি। বাকি সব সিদ্ধান্ত এরপরে। তার আগে অন্য কোনো সিদ্ধান্ত না। এখন সবার আগে কিভাবে এই সময়টা তারাতারি যাবে। যেখান থেকে খেলাটা বন্ধ হয়েছে সেখান থেকে আবার যেন শুরু করতে পারি এটা হচ্ছে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। এবং নিজের ওপর নিজের প্রত্যাশা।’

অধিনায়কত্বে তামিমের পক্ষেই রায় সাকিবের। আগামী বিশ্বকাপের আগে দল পুনর্গঠনের কাজটি তামিম ভালোভাবেই করতে পারবেন বলেও মনে করেন সাকিব। তিনি বলেন, ‘তামিম এর আগেও ক্যাপ্টেন, ভাইস ক্যাপ্টেন ছিল। ওর বয়স অনুযায়ী সবকিছু সুন্দর করে করার সময় তার।’ আর সেটা করতে পারলে মাশরাফির মতো তামিমও ‘ফ্যান্টাসটিক ক্যাপ্টেন’ হতে পারেন বলেও মনে করেন সাকিব।

এসময় সাকিবকে প্রশ্ন করা হয়, আপনার রাজনীতিতে আসার অভিলাষ আছে কি না। তবে এ প্রশ্নের জবাবে কৌশলে উত্তর দেন সাকিব। তিনি বলেন, এটা সময়ই বলে দিবে। আমি ভবিষ্যৎ নিয়ে ভাবছি না। যদি সুযোগ আসে সেটা আমি ওয়েলকাম জানাবো। সুযোগ না আসলে সেটা নিয়েও আমার আফসোস থাকবে না।

ম্যাচ ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব পাওয়ার পর তা গোপন করায় সাকিব আল হাসানকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে আইসিসি, যার মধ্যে দোষ স্বীকার করায় এক বছরের শাস্তি স্থগিত থাকবে। প্রথম এক বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটানোর সময়ে নতুন করে কোনো আইন না ভাঙলে ১২ মাসের মাথায় তিনি ফিরতে পারবেন ক্রিকেট মাঠে। সে হিসেবে এ বছরের ২৯ অক্টোবর ব্যাট-বল হাতে নামতে পারবেন টাইগার অলরাউন্ডার।
 
এদিকে দীর্ঘ দুই মাস ধরে পরিবার নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে আছেন সাকিব। কিছুদিন আগেই তার পরিবারে এসেছে নতুন অতিথি। দ্বিতীয়বারের মতো কন্যাসন্তানের বাবা হয়েছেন টাইগার তারকা।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন