বুধবার | মে ২৭, ২০২০ | ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

খেলা

‘সুজনের সমালোচনা আছে, তবে দলে তার অবদান অনেকেই জানে না’

বণিক বার্তা অনলাইন

খালেদ মাহমুদ সুজন, বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক। প্রায়ই বিভিন্ন বিষয়ে সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। তবে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের জন্য তার অবদান অনেকেই জানেন না বলে মনে করেন ওপেনার তামিম ইকবাল।

নভেল করোনাভাইরাসের কারণে সবধরনের খেলা বন্ধ রয়েছে। এসময়ে ফেসবুক পেজ থেকে প্রায়শই বিভিন্ন সময়ের খেলোয়াড়দের নিয়ে লাইভে আসছেন তামিম ইকবাল। সেই ধারাবাহিকতায় রোববার রাতে লাইভে নিয়ে আসেন সাবেক তিন তারকা অধিনায়ক নাইমুর রহমান দুর্জয়, খালেদ মাহমুদ সুজন এবং হাবিবুল বাশার।

চার ক্রিকেট তারকার আলাপচারিতায় উঠে আসে অতীতের বিভিন্ন স্মৃতি। এসময় প্রসঙ্গেক্রমে তামিম ইকবাল বলেন, সুজন ভাইয়ের (খালিদ মাহমুদ সুজন) অনেক সমালোচনায় অনেক সময় শোনা যায়। কিন্তু অনেকেই বাংলাদেশ দলের জন্য তার (সুজনের) অবদানটার কথা জানেন না। বিশেষ করে বলতে হয়, সুজন ভাই ব্যক্তিগতভাবে জাতীয় দলের অনেক খেলোয়ারকে টেক কেয়ার করছেন। আপনি নিশ্চিত করেন যে প্রিমিয়ার লিগে যেন তাদের দল হয়, ২০-২৫ জনের কথা আমি নিজেই জানি। অনেক খেলোয়ারকেই তিনি খুঁজে এনে খেলিয়েছেন।

এসময় তামিম জানান, অনেক খেলোয়াড়ের মধ্যে মোস্তাফিজুর একজন। বাংলাদেশের অন্যতম পেস বোলার মোস্তাফিজুর রহমানকে খুঁজে এনেছেন সুজনই। মোস্তাফিজের অভিষেকের সময় তামিম তাকে চিনতেনও না জানিয়ে প্রশ্ন রাখেন, কীভাবে মোস্তাফিজকে খুঁজে পেলেন?

জবাবে সুজন বলেন, আমি যখন গেম ডেভলপমেন্ট টিমের প্রধান হলাম। তখন অনূর্ধ্ব-১৯ দলের খেলা দেখতাম। তখন দুবাইয়ের ক্যাম্পে মোস্তাফিজুরকে প্রথম দেখি। ঢাকায় এসে আমি যখন ম্যানেজার হলাম, তখন চন্দিকা হাথুরুসিংহে (সাবেক কোচ) একজন পেস বোলার চাইলেন। তখন আমি তাকে প্রথম মোস্তাফিজুরের কথা বলি। সে মোস্তাফিজকে দেখতে চায়। ওই সময় মোস্তাফিজ সাতক্ষীরায় ছিল। তাকে ফোন করে ঢাকায় এনে দেখানোর পর হাথুরুসিংহ বলে, সে (মোস্তাফিজ) পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি খেলছে।

এরকম পেসার তাসকিনের কথাও তুলে ধরেন সুজন। তিনি বলেন, তাসকিন চট্টগ্রামে নেট বোলিং করতো। তাকে দেখে আমি খেলানোর কথা বলি। অনেকেই সেসময় আমাকে পাগল বলেছিল।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন