বুধবার | মে ২৭, ২০২০ | ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

আন্তর্জাতিক খবর

প্রিন্স হ্যারি ও মেগানের নিরাপত্তার খরচ তাদেরই দিতে হবে : ট্রাম্প

বণিক বার্তা অনলাইন

রাজ পরিবারের দায়-দায়িত্ব ছেড়ে নিজেদের মতো থাকতে প্রিন্স হ্যারি ও মেগান দেশ ছেড়েছেন গেল বছরেই। সেখান থেকে কানাডায় পারি জমিয়ে সেখানে একটি দ্বীপে অবস্থান করছিলেন ছয় মাসের মতো। এরপর কানাডার ওয়েস্ট কোর্টে থাকছেন তারা। তবে সম্প্রতি বিশ্বব্যাপী করোনা পরিস্থিতি খারাপ হওয়ার মধ্যে খবর এসেছে এই রাজ দম্পতি কানাডা ছেড়ে মেগানের বাড়ি যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় থিতু হতে চাইছেন। এমন খবর পেয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, হ্যারি ও মেগানের নিরাপত্তার পেছনে যুক্তরাষ্ট্র খরচ করবে না। তাদের নিরাপত্তার খরচ তাদেরই দিতে হবে।

এক টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেছেন, তিনি রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ ও যুক্তরাজ্যের একজন ভালো বন্ধু ও ভক্ত হলেও সরকারিভাবে হ্যারি ও মেগানের নিরাপত্তার খরচ বহন করতে পারবেন না।

তবে এরই মধ্যে এই যুগলও এক বিবৃতি দিয়ে জানিয়ে দিয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি খরচে নিরাপত্তা নেয়ার কোন ইচ্ছা তাদের নেই।

গণমাধ্যমের খবরে জানা গেছে, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে তারা কানাডা থেকে এরইমধ্যের মেগানের ক্যালিফোর্নিয়ার বাড়িতে চলেও এসেছেন।

রাজপরিবারের জ্যেষ্ঠ সদস্য হিসাবে তারা ৩১শে মার্চ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে সরে দাঁড়াবেন এবং রানীর পক্ষে আর কোন দায়িত্ব পালন করবেন না। তবে একবছর পরে এই বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করে দেখা হবে।

এর আগে গতমাসে কানাডার সরকার ঘোষণা করে, হ্যারি ও মেগান রাজদায়িত্ব ছেড়ে দেওয়ায় তাদের ‘স্ট্যাটাস’ পরিবর্তনের কারণে তারা নিরাপত্তা সহায়তা দেয়া বন্ধ করে দিচ্ছে। ডোনাল্ড ট্রাম্পও কানাডার পথ অনুসরণ করে একই বার্তা দিলেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন