রবিবার | মে ৩১, ২০২০ | ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

পণ্যবাজার

ফের দরপতনে চায়ের আন্তর্জাতিক বাজার

বণিক বার্তা ডেস্ক

আন্তর্জাতিক বাজারে উত্থান-পতনের মধ্যে রয়েছে চায়ের গড় দাম। দুই মাসের মন্দা ভাব কাটিয়ে গত জানুয়ারিতে চাঙ্গা হয়ে উঠেছিল পানীয় পণ্যটির গড় দাম। তবে ফেব্রুয়ারিতে এসে চায়ের বাজার পরিস্থিতি ফের মন্দার মুখে পড়েছে। সময় চায়ের গড় দাম আগের মাসের তুলনায় প্রায় শতাংশ কমে গেছে। ইনডেক্স মুন্ডির তথ্য বিশ্লেষণ করে পরিস্থিতির কথা জানা গেছে। খবর এগ্রিমানি বিজনেস রেকর্ডার।

ইন্টারন্যাশনাল টি কমিটি, আফ্রিকান টি ব্রোকার্স লিমিটেড, টি ব্রোকার্স অ্যাসোসিয়েশন অব লন্ডন বিশ্বব্যাংক চারটি প্রতিষ্ঠানের কাছে তথ্য সংগ্রহ সেটি বিশ্লেষণের পর তা থেকে আন্তর্জাতিক বাজারে চায়ের গড় দাম নিরূপণ করেছে ইনডেক্স মুন্ডি। এতে বলা হয়েছে, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতি কেজি চায়ের গড় দাম দাঁড়িয়েছে ডলার ১১ সেন্টে, যা আগের মাসের তুলনায় দশমিক ৮৬ শতাংশ কম। এর মধ্য দিয়ে এক মাসের ব্যবধানে ফের মন্দা ভাবে ফিরেছে চায়ের দাম।

এর আগে গত বছরের আগস্টে আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতি কেজি চায়ের গড় দাম ছিল ডলার ১৩ সেন্ট। পরের মাসে পানীয় পণ্যটির গড় দাম বেড়ে দাঁড়ায় কেজিপ্রতি ডলার ২১ সেন্টে, যা আগের মাসের তুলনায় দশমিক ৭৬ শতাংশ বেশি।

অক্টোবরেও প্রবৃদ্ধির ধারায় ছিল চায়ের বাজার। সময় আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতি কেজি চায়ের গড় দাম আগের মাসের তুলনায় দশমিক ৮৮ শতাংশ বেড়ে ডলার ৩৪ সেন্টে উন্নীত হয়। এর মধ্য দিয়ে টানা তিন মাস আন্তর্জাতিক বাজারে চায়ের গড় দাম বাড়তির দিকে ছিল।

নভেম্বরে চায়ের দামে পতন দেখা দেয়। সময় প্রতি কেজি চায়ের গড় দাম দাঁড়ায় ডলার ২৬ সেন্টে, যা আগের মাসের তুলনায় দশমিক ৪২ শতাংশ কম। মন্দা ভাবের ধারাবাহিকতায় গত ডিসেম্বরে চায়ের গড় দাম আরো দশমিক ২১ শতাংশ কমে কেজিপ্রতি ডলার ২১ সেন্টে নেমে আসে।

ইনডেক্স মুন্ডির তথ্য অনুযায়ী, পর পর দুই মাস মন্দাবস্থায় থাকার পর চলতি বছরের জানুয়ারিতে আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতি কেজি চায়ের গড় দাম ডলার ২৯ সেন্টে উন্নীত হয়, যা আগের মাসের তুলনায় দশমিক ৬২ শতাংশ বেশি।

তবে পরিস্থিতি বেশি দিন স্থায়ী হয়নি। এক মাসের ব্যবধানে ফের মন্দার মুখে পড়েছে চায়ের দাম। খাতসংশ্লিষ্টরা বলছেন, ভারত, কেনিয়া, শ্রীলংকা থেকে সরবরাহ বৃদ্ধি চায়ের দরপতনে প্রভাবক হিসেবে কাজ করেছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন