বুধবার | মে ২৭, ২০২০ | ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

আন্তর্জাতিক ব্যবসা

অর্থনীতি বাঁচাতে ৫ ট্রিলিয়ন ডলার দেবে জি২০

বণিক বার্তা ডেস্ক

বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া নভেল করোনাভাইরাসের কারণে প্রাণ হারিয়েছেন ২৪ হাজারের বেশি মানুষ। আক্রান্তের সংখ্যা এরই মধ্যে লাখ ছাড়িয়েছে। করোনার কারণে জনস্বাস্থ্যের পাশাপাশি বিশ্ব অর্থনীতিও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। স্থবির হয়ে পড়েছে উত্পাদন সরবরাহ

ব্যবস্থা। সংকুচিত হয়েছে কর্মসংস্থান, কমেছে আয়। এমন সংকট মোকাবেলায় বিশ্ব অর্থনীতিতে লাখ কোটি ডলারের বেশি অর্থসহায়তার ঘোষণা দিয়েছেন জি২০ নেতারা। বৃহস্পতিবার বিশ্বের শীর্ষ অর্থনীতিগুলোকে নিয়ে গঠিত ফোরামটির জরুরি এক বৈঠকে ঘোষণা দেয়া হয়। খবর রয়টার্স।

নতুন করোনাভাইরাসটি অতিমাত্রায় সংক্রামক হওয়ায় অনলাইনে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে বৈঠকটির আয়োজন করা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজ। বৈঠক শেষে এক বিবৃতিতে ফোরামটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, বৈশ্বিক মহামারীটি প্রতিরোধে যা কিছু করণীয়, জি২০ তা করবে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাসহ (ডব্লিউএইচও) অন্যান্য আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে মিলে করোনা প্রতিহত করা হবে বলে ফোরামটি জানায়।

বর্তমান পরিস্থিতিতে অন্যতম একটি চ্যালেঞ্জ হলো বিশ্বজুড়ে আক্রান্ত এলাকায় জরুরি স্বাস্থ্যসেবা পণ্যের অবাধ সরবরাহ নিশ্চিত করা। জি২০ বলেছে, নিরবচ্ছিন্ন সরবরাহ ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে তারা কাজ করে যাবে। তবে বিভিন্ন দেশে স্বাস্থসেবা পণ্যের রফতানি নিষেধাজ্ঞার যে প্রতিবন্ধকতা রয়েছে, তা দূর করার বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোনো ঘোষণা দেয়নি তারা। অবশ্য ফোরামটির নেতারা প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, অযথা যেন কোনো প্রতিবন্ধকতা তৈরি করা না হয়, সেজন্য পারস্পরিক সমঝোতার ভিত্তিতে কাজ করবেন তারা।

করোনার কারণে তৃতীয় বিশ্বের বিভিন্ন দেশ, বিশেষ করে আফ্রিকার দেশগুলো সংবেদনশীল অবস্থায় রয়েছে। একই অবস্থা বিভিন্ন দেশে আশ্রয় নেয়া লাখ লাখ শরণার্থীরও। জি২০ নেতারা তাদের ঝুঁকির বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তারা মনে করেন, ঝুঁকি নিরসনে বৈশ্বিক আর্থিক নিরাপত্তা জাল সম্প্রসারণ করতে হবে এবং জাতীয় স্বাস্থ্য ব্যবস্থা জোরদার করতে হবে। বিবৃতিতে ফোরামটির নেতারা বলেছেন, এই অভিন্ন ঝুঁকি মোকাবেলায় এক হয়ে কাজ করতে আমরা দৃঢ়প্রতিজ্ঞ।

হোয়াইট হাউজের সিচুয়েশন রুম থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে অংশ নেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। পরবর্তী সময়ে করোনাভাইরাস বিষয়ে আয়োজিত নিউজ ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, ঐক্যবদ্ধ হয়ে করোনা মোকাবেলার বিষয়ে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে জি২০ দেশগুলোর মধ্যে অসামান্য স্পৃহা লক্ষ করা গেছে। মহামারীটি মোকাবেলায় এসব দেশের কে কী পদক্ষেপ নিচ্ছে, তা একে অন্যকে অবহিত করছে। হয়তো আমাদের প্রত্যেকের কার্যপদ্ধতি ভিন্ন, কিন্তু করোনা মোকাবেলায় আমাদের মধ্যে ঐক্যের অভাব নেই।

ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের বিষয়ে ওয়াকিবহাল ব্রাজিলের একজন সরকারি কর্মকর্তা বলেন, জি২০ নেতাদের প্রত্যেকেই কর্মসংস্থান রক্ষা, নিরবচ্ছিন্ন বাণিজ্য নিশ্চিত করা সরবরাহ ব্যবস্থার বাধাগুলো দূর করার বিষয়গুলো অনুধাবন করতে পেরেছেন।

গতকালের ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ছাড়াও কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো, জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল মাখোঁ, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিসহ জি২০ রাষ্ট্রগুলোর প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন