রবিবার | মে ৩১, ২০২০ | ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

শেয়ারবাজার

১০ শতাংশ লভ্যাংশ দেবে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক

৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত ২০১৯ হিসাব বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের মোট ১০ শতাংশ লভ্যাংশ দেবে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক লিমিটেড এর মধ্যে শতাংশ নগদ বাকি শতাংশ স্টক লভ্যাংশ এদিকে পূর্ণাঙ্গ ইসলামী ধারায় রূপান্তরের বিষয়ে শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদন নিতে আগামী মে মাসে বিশেষ সাধারণ সভা (ইজিএম) করবে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক তার আগে নিজেদের সংঘস্মারক সংঘবিধির সংশ্লিষ্ট ধারায় সংশোধন আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ব্যাংকটির পরিচালনা পর্ষদ

সর্বশেষ সমাপ্ত হিসাব বছরে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের সম্মিলিত শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে টাকা ৫৭ পয়সা, আগের হিসাব বছরের একই সময়ে যা ছিল টাকা ৩১ পয়সা ৩১ ডিসেম্বর সম্মিলিত শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১৬ টাকা ৯৬ পয়সা, আগের হিসাব বছর শেষে যা ছিল ১৫ টাকা ৪৬ পয়সা আগামী ১৮ মে বেলা ১১টায় রাজধানীর ইস্কাটন গার্ডেন রোডের পুলিশ কনভেনশন হলে কোম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) আহ্বান করা হয়েছে -সংক্রান্ত রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ২৬ এপ্রিল

২০১৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাব বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের ১০ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ দিয়েছিল স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক আলোচ্য সময়ে ব্যাংকটির সম্মিলিত ইপিএস হয় টাকা ৪৪ পয়সা, যা আগের হিসাব বছরে ছিল টাকা ৪২ পয়সা ৩১ ডিসেম্বর সম্মিলিত এনএভিপিএস দাঁড়ায় ১৭ টাকা পয়সা ২০১৭ হিসাব বছরেও ১০ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ পেয়েছিলেন ব্যাংকের শেয়ারহোল্ডাররা

সর্বশেষ ঋণমান অনুসারে, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের ঋণমান দীর্ঘমেয়াদে ডাবল স্বল্পমেয়াদে এসটি-টু ২০১৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত নিরীক্ষিত চলতি হিসাব বছরের ৩১ মার্চ পর্যন্ত প্রথম প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনসহ হালনাগাদ প্রাসঙ্গিক অন্যান্য তথ্যের ভিত্তিতে মূল্যায়ন করেছে ক্রেডিট রেটিং ইনফরমেশন অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেড (সিআরআইএসএল)

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক শেয়ারের সর্বশেষ সমাপনী দর ছিল টাকা ৮০ পয়সা গত এক বছরে শেয়ারটির সর্বনিম্ন সর্বোচ্চ দর ছিল যথাক্রমে টাকা ৩০ পয়সা ১১ টাকা ৫০ পয়সা

২০০৩ সালে শেয়ারবাজারে আসা স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকের অনুমোদিত মূলধন হাজার ৫০০ কোটি টাকা পরিশোধিত মূলধন ৯৫৮ কোটি লাখ ৬০ হাজার টাকা মোট শেয়ার সংখ্যা ৯৫ কোটি ৮০ লাখ ৮৬ হাজার ৪৬৫ এর মধ্যে উদ্যোক্তা পরিচালকদের হাতে রয়েছে ৩৯ দশমিক ৬৩ শতাংশ শেয়ার এছাড়া প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে ২১ দশমিক ৯৬ শতাংশ, বিদেশী বিনিয়োগকারীদের কাছে দশমিক ২৬ সাধারণ বিনিয়োকারীদের হাতে বাকি ৩৭ দশমিক ১৫ শতাংশ শেয়ার রয়েছে

সর্বশেষ নিরীক্ষিত ইপিএস বাজারদরের ভিত্তিতে শেয়ারটির মূল্য আয় অনুপাত বা পিই রেশিও দশমিক ৭২, অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনের ভিত্তিতে যা দশমিক ৬১

সংঘস্মারক সংঘবিধি সংশোধনের উদ্যোগ: সাধারণ ধারার ব্যাংক থেকে পূর্ণাঙ্গ ইসলামী ধারার ব্যাংক হিসেবে রূপান্তরের উদ্যোগ বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক এরই মধ্যে তারা কেন্দ্রীয় ব্যাংক উচ্চ আদালতের অনুমোদন পেয়েছে গত ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ ব্যাংকের ৪০২তম পর্ষদ সভায় স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকে পূর্ণাঙ্গ ইসলামী ধারায় রূপান্তরের অনুমোদন দেয়া হয় তবে উদ্যোগটির চূড়ান্ত বাস্তবায়নের আগে ব্যাংকটিকে শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদন নিতে হবে লক্ষ্যে ১৮ মে সকাল সাড়ে ১০টায় পুলিশ কনভেনশন হলে কোম্পানির ইজিএম আহ্বান করা হয়েছে -সংক্রান্ত রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ২৬ এপ্রিল এদিকে ইজিএমের আগে ব্যাংকের সংঘস্মারক সংঘবিধির সংশ্লিষ্ট ধারাগুলোয় প্রয়োজনীয় সংশোধনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটির পরিচালনা পর্ষদ

 

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন