মঙ্গলবার| এপ্রিল ০৭, ২০২০| ২২চৈত্র১৪২৬

আপন অঙ্গন

পরিষ্কারে এড়িয়ে চলুন ভুলগুলো...

ফিচার ডেস্ক

সুস্থভাবে জীবনযাপন করতে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার বিকল্প নেই যেহেতু বাড়িতে আমরা সবচেয়ে বেশি সময় অতিবাহিত করি, সেহেতু ঘর-বাড়ি পরিষ্কার রাখা খুব দরকার তবে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার ক্ষেত্রে কিছু বিষয় আমরা ভুল করে থাকি এতে আপাতদৃষ্টিতে পরিষ্কার মনে হলেও জীবাণুমুক্ত না হতেও পারে এজন্য আপনার বেশ কয়েকটি পরিষ্কারের অভ্যাস পরিবর্তনের দরকার

অনেক পরিমাণে পরিষ্কারকের ব্যবহার, পরিষ্কারে নোংরা জিনিসপত্র ব্যবহার বা ব্যাকটেরিয়া সম্পর্কে সচেতন না থাকা পরিবারের সদস্যদের মাঝে রোগজীবাণু ছড়িয়ে দিতে পারে বাজে অভ্যাসগুলো থেকে বেরিয়ে আসার সময় এখনই প্রতি সপ্তাহে পরিবর্তন করার জন্য এক বা দুটি খারাপ পরিষ্কার করার অভ্যাস বাছাই করুন আর সেগুলো পরিবর্তনের চেষ্টা করুন

যেমন ধরুন যেখানে-সেখানে ভেজা তোয়ালে রেখে দেয়া কিংবা ঝরনার কার্টেনগুলো ছেড়ে দেয়া প্রতিবার ব্যবহারের পর ঝরনা ভালোভাবে বন্ধ করুন, এতে সেটি দ্রুত শুকিয়ে যাবে এবং জীবাণু বৃদ্ধিকে নিরুৎসাহিত করবে তাছাড়া শুকানোর জন্য ভেজা তোয়ালে ঝুলিয়ে রাখুন, তাহলে এটা পরে ব্যবহারের উপযুক্ত থাকবে

অত্যধিক পরিষ্কারের পণ্য ব্যবহার করাও এক রকম খারাপ অভ্যাস খুব বেশি ক্লিনার কিংবা লন্ড্রি ডিটারজেন্ট ব্যবহার করা আসলে ভালোর চেয়ে বেশি ক্ষতি হতে পারে যদি পরিষ্কারক পণ্যগুলো পুরোপুরি ধুয়ে ফেলা না হয়, তাহলে তা আটকে থেকে ময়লা চৌম্বক হয়ে যায় তাই পরিষ্কারকের মোড়কে থাকা দিকনির্দেশনাগুলো ফলো করা প্রয়োজন মোড়ক অনুযায়ী পর্যাপ্ত পরিমাণ বা তার চেয়ে কিছুটা কম ব্যবহার করা উচিত তাছাড়া অতিরিক্ত পরিষ্কারক ধুয়ে ফেলতে সময় বা অর্থ দুই অপচয় হয়

আপনি যখন পরিষ্কার করার জন্য নোংরা সরঞ্জাম ব্যবহার করছেন, তখন কীভাবে আশা করেন ভালো পরিষ্কারের? যদি আপনার ভ্যাকুয়াম ব্যাগ বা ফিল্টার ধুলায় ভরা থাকে, তবে এটা আর ভালো কাজ করবে না একটি নোংরা স্পঞ্জ সহজেই আরো বেশি ব্যাকটেরিয়া টেনে আনে এজন্য পরিষ্কার শুরু করার আগে পরিষ্কারক পণ্যগুলোকে আগে পরিষ্কার করে নিতে হবে

সবচেয়ে বাজে অভ্যাসের আরেকটি হচ্ছে বেসিনে নোংরা থালাবাসন রেখে দেয়া কারণ জায়গাটি ব্যাকটেরিয়ার প্রজনন ক্ষেত্র এবং ক্ষুধার্ত পোকামাকড়ের জন্য একটি জ্যাকপট তাই পরিবারের সদস্যদের মধ্যে খাওয়ার পর পরই যার যার প্লেট পরিষ্কারের অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে এটা একদিকে একজনের ওপর অতিরিক্ত চাপ কমবে, অন্যদিকে পারিবারিক কাজে সবার অংশগ্রহণ থাকবে

তাছাড়া বাইরে ব্যবহূত জুতা ঘরে এনে দ্রুত তা সরিয়ে ফেলতে হবে কারণ এগুলো বাইরের জীবাণু ঘর পর্যন্ত তুলে আনবে, যা পরে পরিবারের সদস্যদের রোগের কারণ হতে পারে বৃষ্টির দিনে কাদা-মাটি লেগে থাকা জুতা পুরো বাড়ি নোংরা করে দিতে পারে তাই বাইরে থেকে বাড়িতে প্রবেশের আগেই জুতা পরিষ্কার করে নিন

 

সূত্র: দ্য স্প্রুস

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন