বুধবার | মে ২৭, ২০২০ | ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

সম্পাদকীয়

আলোকপাত

গ্রেটা থানবার্গ, ডোনাল্ড ট্রাম্প ও পুঁজিবাদের ভবিষ্যৎ

ইয়ানিস ভারুফাকিস

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অর্থমন্ত্রী স্টিভেন ম্নৌচিন চলতি বছর দাভোসে অনুষ্ঠিত ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের বৈঠকে কিশোরী জলবায়ু অ্যাক্টিভিস্ট গ্রেটা থানবার্গের প্রতি কটাক্ষপূর্ণ মন্তব্য করার মধ্য দিয়ে উদারবাদী ভাষ্যকারদের ওপর ক্ষোভ ঝরিয়েছেন জীবাশ্ম জ্বালানিতে বিনিয়োগ থেকে দ্রুত প্রস্থানের জন্য থানবুর্গের আহ্বানের প্রতিক্রিয়ায় ম্নৌচিন বলেছেন, আমাদের কাছে বিষয়টি যাতে সে ভালোভাবে ব্যাখ্যা করতে পারে, সেজন্য তার উচিত অর্থনীতি পড়তে কলেজে যাওয়া এর দুদিন আগে ট্রাম্প জলবায়ু বিজ্ঞানীদের অতীতের ভাগ্য গণনার উত্তরাধিকার বলে উল্লেখ করেছেন

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রতি ট্রাম্প প্রশাসনের দৃষ্টিভঙ্গি এবং যারা সেই দৃষ্টিভঙ্গি বজায় রাখতে কঠোর পদক্ষেপের প্রচার করছেন, তাদের মনোভাব কুশ্রী, ন্যক্কারজনক ভুল তবে ট্রাম্প, ম্নৌচিন অন্যদের নির্বুদ্ধিতা বিষাক্ততা একটি নির্মম সত্যকে তুলে ধরে আর সেই সত্য হলো, তাদের রাজনীতি সমকালীন পুঁজিবাদের প্রকৃত প্রতিরক্ষা মাত্র থানবার্গের প্রতি তাদের পরামর্শ পর্যালোচনার মাধ্যমে এটা বোঝা যায় যে জলবায়ুবিজ্ঞানের বিপরীতে তাদের বন্ধু হলো মূলধারার অর্থনীতি

ম্নৌচিনের দাভোসে করা মন্তব্যে আমিও নিজেকে ধরে রাখতে পারিনি আমি টুইট করেছিলাম, ম্নৌচিন, সেডলি, মেইকস সেন্স আমি আরো বলেছিলাম, গ্রেটা যদি মূলধারার অর্থনীতিতে পড়াশোনা করত, তাহলে সে বাজার মডেলগুলো অধ্যয়নে কয়েক সেমিস্টার অতিবাহিত করত, যাতে জলবায়ু বিপর্যয় কিংবা অর্থনৈতিক সংকট কোনোটাই সম্ভব না হয় অর্থনৈতিক নীতি অর্থশাস্ত্র উভয়ই এখন রূপান্তরের সময় এসেছে!

আমার টুইটে অনেক ফেলো অর্থনীতিবিদ অখুশি হয়েছিলেন একজন ফিরতি টুইট করেছিলেন, নিশ্চিত নয়, আপনি কোন ধরনের আন্ডারগ্রেড খুঁজছেন, তবে আমি অর্থশাস্ত্রের ১০১ কোর্স সম্পর্কে যা জানি তা হলো, সেগুলোর সব কয়টিতেই বাজার ব্যর্থতার বিষয় আছে, যেখানে জলবায়ু পরিবর্তনই হলো প্রধান উদাহরণ আপনি ঠিকই আছেন, কিন্তু পয়েন্টের পাশেই আমার ভয়টি লুকিয়ে আছে যদিও অর্থনৈতিক কোর্সের অনেক উদাহরণ ধারণা নিঃসন্দেহে থানবার্গের সমাধান শক্তিশালী করবে এবং ম্নৌচিন ট্রাম্পের পছন্দের বিরুদ্ধে শক্তিশালী যুক্তি উপস্থাপনে তাকে আরো সজ্জিত করবে বটে, তবে সে- চূড়ান্তভাবে অর্থনীতি তার সতীর্থ শিক্ষার্থীদের ওপর এর প্রভাব দ্বারা হতোদ্যম হবে


এর একটি কারণ শাস্ত্রটির কাঠামো ডিফল্ট সেটিং আমরা সবাই ডিফল্ট বা বেজলাইনের ক্ষমতা জানি একটি উদাহরণ দেয়া যাক ওইসব সমাজ, যেখানে অঙ্গদানই হলো ডিফল্ট সেটিং, সেখানে ট্রান্সপ্লান্ট অর্গানের সরবরাহ মানুষ ডোনার কার্ড বহনকারী দেশের তুলনায় লক্ষণীয়ভাবে বেশি হবে প্রতিটি সেটিংয়ে ফ্রেইমিং খুব গুরুত্বপূর্ণ, যেখানে মানুষের মন হূদয়কে কিছু অশুভের বিরুদ্ধে অবশ্যই উদ্দীপিত হতে হয় 

অর্থশাস্ত্রও ব্যতিক্রম নয় থানবুর্গকে ওইসব বাজার মডেলের অর্থনৈতিক টেক্সট বুক পড়া শুরু করতে হবে, যেখানে জনস্বার্থ রক্ষায় বাধাহীন ব্যক্তি মুনাফা তাড়নাকে আংকিকভাবে দেখানো হয় কেবল এসব প্রতিপাদ্য তত্ত্ব শেখা এবং সেখানকার আংকিক সূত্রবাহিত প্রয়োজনীয় মানসিক ব্যায়ামচর্চার পরই সে ব্যতিক্রমগুলো উন্মোচনে সমর্থ হবে উদাহরণস্বরূপ জলবায়ু পরিবর্তনতাড়িত দূষণের মতো উৎপাদন প্রক্রিয়ার এক্সটার্নিলিটি কথা বলা যায়, যার ক্ষতির জন্য পুরোপুরিভাবে দূষণকারী দায়ী নয় সম্ভবত কিছু এক্সটার্নিলিটি-সৃষ্ট বাজার ব্যর্থতাকে একটি ব্যতিক্রম হিসেবে ফ্রেইমিং করার বিষয়টি নিঃসন্দেহে ট্রাম্প ম্নৌচিনদের জন্য বর্তমানে একটি বড় প্রচারণা বিজয়

এক্ষেত্রে সবচেয়ে খারাপ হলো, যেকোনো সমাজ অর্গান ডোনেশনকে ডিফল্ট বানিয়ে ফ্রেইমিং বদলানোর সিদ্ধান্ত নিতে পারলেও কলেজ পর্যায়ের অর্থনীতির শিক্ষক কিন্তু সাধারণ ঘটনাকে শুধু এক্সটার্নিলিটি বাজার ব্যর্থতা হিসেবে শেখানো এবং পূর্ণ প্রতিযোগিতামূলক বাজারকে ব্যতিক্রম হিসেবে উপস্থাপনের মাধ্যমে ফ্রেইমিং বদলাতে পারে না অর্থনীতির আইকনিক থিওরেমগুলো এক্সটার্নিলিটির উপস্থিতিতে প্রমাণ করা যায় না দুর্ভাগ্য হলো, এসব হলো সেই প্রমাণগুলো, যা শিক্ষার্থী সমাজের বাকি অংশকে মুগ্ধ করে, বিশেষত যারা ক্ষমতায় থাকে এবং পাবলিক প্রাইভেট ফান্ডিংয়ের সিংহভাগ উল্লেখ না করেই সামাজিক বিজ্ঞানগুলোর মধ্যে অর্থনীতির অধ্যাপকদের ডিসকার্সিভ হেজেমনি দেয়

পরিপ্রেক্ষিত থেকে দেখলে ম্নৌচিন জ্ঞাতসারে (বা প্রবৃদ্ধিগতভাবে) বিদ্রূপপূর্ণ মন্তব্যের চেয়ে বেশি কিছু করেছেন থানবার্গ ম্নৌচিনের পরামর্শ গ্রহণ করলে সে দুর্বল হবে বিজ্ঞান, রাজনীতি কিংবা ইতিহাসের বিপরীতে অর্থনীতিতে একটি ডিগ্রি নেয়া হলে তার স্পিরিট হয় বিনষ্ট হবে বা বিদ্যমান প্রচেষ্টা থেকে তাকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করবে তেমনটি হলে ট্রাম্পের প্রতিনিধিত্ব করা স্বার্থের প্রতি সে এখন যতটা বিপজ্জনক হয়েছে, এমনকি তার চেয়ে অনেক বেশি বিপজ্জনক হতে পারে 

ট্রাম্প প্রশাসনের তরুণ জনগোষ্ঠী বিজ্ঞানীদের প্রতি বিদ্বেষ নিয়ে কেউ কেউ আর্তনাদ করে, যারা একটি ব্যাপক হুমকিবিষয়ক কাণ্ডজ্ঞান সম্পর্কে কথা বলেআমাদের বৈশ্বিক সহযোগিতার মাধ্যমে মোকাবেলা করা উচিত তবে ট্রাম্প তার মন্ত্রিসভা মনে হয় কিছু বোঝে, যা তাদের উদারবাদী নিন্দুকরা বোঝে না আর তা হলো, কেউ অভিঘাত মোকাবেলায় কোনো কিছু করার অঙ্গীকার করা এবং পুঁজিবাদকে একটি স্বাভাবিক ব্যবস্থা (যা সমন্বিত, সম্মিলিত সবুজ সমৃদ্ধিতে বড় ধাক্কা দিতে পারে) হিসেবে চিন্তা করা ছাড়া জলবায়ু পরিবর্তনের ধ্বংসযজ্ঞ স্বীকার করতে পারে না

ট্রাম্পও জানেন যে জলবায়ু পরিবর্তন পুঁজিবাদের ওয়াটারলো পুঁজিবাদের প্রধান স্তম্ভগুলোর পরিচালন ব্যবস্থাপনা বজায় রেখে জলবায়ুর পুনঃস্থিতিশীলতা নিশ্চিতকরণের কোনো টেকসই পথ নেই কলেজ ইকোনমিকস টেক্সট বুকে প্রয়োগকৃত আদর্শ বাস্তবতার বাইরে আমরা প্রকৃত অর্থে যে ব্যবস্থায় বাস করি, তা একটি প্যাথলজিক্যাল ডাইনামিক রি-সাইক্লিং ম্যাকানিজমে পরিণত হয় এখানে অলিগোপলি বিপজ্জনক গতিতে মানুষ প্রকৃতির নিঃশেষিত মূল্য নিষ্কাশন করে ঋণচালিত আর্থিকীকরণ প্রক্রিয়ার পৃষ্ঠপোষকতায়, যা প্রত্যক্ষভাবে শক্তি জোগায় শোষণমূলক অভিজাততন্ত্রকে 

১৯৬৭ সালে প্রকাশিত জন কেনেথ গলব্রেইথের গ্রন্থ দ্য নিউ ইন্ডাস্ট্রিয়াল স্টেটে বর্ণিত টেকনোস্ট্রাকচার কখনো স্বেচ্ছায় বস্তুগত প্রবৃদ্ধি এবং জলবায়ু পরিবর্তন বজায় রাখার জন্য প্রয়োজনীয় শোষণের সীমা মানে না কারণ সেটি মানলে ব্যবস্থা টিকে থাকতে পারবে না নির্বাচন প্রচারাভিযানের অর্থায়নের জন্য রাজনৈতিক শ্রেণী নিদারুণভাবে নির্ভরশীল হওয়ায় নির্গমন বাণিজ্য প্রকল্পের (এমিশন ট্রেডিং স্কিম) ওপর সরকারের যেকোনো সীমা বেঁধে দেয়া, কোটা তাদের কাছে বাহ্য উন্নতিসাধক প্রমাণ হবে এবং চূড়ান্তভাবে তা হবে নিষ্ফল কর্ম সমরূপভাবে অর্থনীতির শিক্ষার্থীরা ভালোভাবে কার্যকর কোনো বাজার ব্যবস্থার ব্যতিক্রম হিসেবে বাজার ব্যর্থতাকে অধ্যয়ন করে আর মধ্যপন্থী সংস্কারকরা একটি সংস্কারকৃত, সবুজ পরিবেশবান্ধব পুঁজিবাদ কল্পনার অসমাপ্ত কাজের অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে যায়

অদ্ভুত সমর্থনযোগ্য না হলেও ট্রাম্পবাদ অন্তত সেই ঐতিহাসিক মুহূর্তের সত্য প্রতিফলন, যখন শেষ ধাপের পুঁজিবাদ (লেট ক্যাপিটালিজম) মানবিকতাকে শূন্য রিটার্নের অতীতে ঠেলে দিয়েছে ট্রাম্প আমাদের বিদ্যমান অবস্থা চালিয়ে যেতে বলেন অন্যদিকে ম্নৌচিন মূলধারার অর্থশাস্ত্রের আফিমে থানবার্গের নিজের আত্মাকে অনুভূতিহীন করার পরামর্শ দেন জোরালো জলবায়ু পরিবর্তন ত্বরান্বিত করার তাদের বিরাজমান নীতির একমাত্র বিকল্প হলো আজকের টেকনোস্ট্রাকচারের পাইকারি খণ্ডায়ন? আমরা কি তার জন্য প্রস্তুত?

[স্বত্ব: প্রজেক্ট সিন্ডিকেট]

 

ইয়ানিস ভারুফাকিস: গ্রিসের সাবেক অর্থমন্ত্রী, দেশটির মেরা২৫ পার্টির নেতা ইউনিভার্সিটি অব এথেন্সের অর্থনীতির অধ্যাপক

ভাষান্তর: হুমায়ুন কবির

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন