বৃহস্পতিবার| এপ্রিল ০২, ২০২০| ১৮চৈত্র১৪২৬

খবর

নাগরিক দুর্ভোগ লাঘবে মেয়রদের সতর্ক থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

নাগরিক দুর্ভোগ লাঘবে ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর সিটি করপোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়রদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘মশা আপনার ভোট যেন খেয়ে না ফেলে সেদিকে দৃষ্টি দিতে হবে। ক্ষুদ্র মশা হলেও অনেক শক্তিশালী এটা মাথায় রাখতে হবে। সেদিকে আপনারা বিশেষভাবে একটু নজর দিবেন। যেন সঠিকভাবে মশা নিধন হয়।’

আজ বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের শাপলা মিলনায়তনে নব নির্বাচিত এসব জনপ্রতিনিধির শপথ অনুষ্ঠানের পর তাদের প্রতি দিক-নির্দেশনামূলক বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। এছাড়া স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম একই স্থানে দুই সিটি করপোরেশনের সাধারণ ওয়ার্ড ও সংরক্ষিত আসনের নির্বাচিত ১৭২ জন কাউন্সিলরকে শপথ পাঠ করান। 

শপথ গ্রহণ করলেও দায়িত্ব নিতে নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরদের মে পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। কারণ বর্তমান মেয়র ও কাউন্সিলরদের মেয়াদ ডিএসসিসিতে ১৭ মে এবং ডিএনসিসিতে ১৩ মে শেষ হবে।

নির্বাচিতরা জনগণের কাছে ওয়াদাবদ্ধ;  একথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আপনারা যে শপথ নিয়েছেন সেই শপথের কথা মনে রেখে নির্বাচিত প্রতিনিধি হিসাবে যারা আপনাকে ভোট দিয়েছে এবং যারা দেয় নাই- অর্থাৎ এলাকাবাসী সবার জন্য সমানভাবে কাজ করতে হবে। আপনি যখন নির্বাচিত হয়ে এসেছেন তাহলে আপনি সকলের। সেই দিকটা মাথায় রেখেই সার্বিক উন্নয়নের জন্য কাজ করতে হবে।’

শপথগ্রহণ শেষে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নব-নির্বাচিতরা

শপথ শেষে নতুন জনপ্রতিনিধিদের দুর্নীতির বিরুদ্ধে কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশের উন্নয়নে অনেক বড় বড় প্রকল্প বাস্তবায়ন করছি। আমি চাই এসব প্রকল্পে যেন কোনো দুর্নীতি না হয়, অনিয়ম না হয়। আমি কিন্তু কাউকে ছাড়বো না; এটা হল বাস্তবতা। কারণ আমি জানি আমার সময় খুব কম। একটা নির্দিষ্ট সময়ের জন্য নির্বাচিত হই। এই সময়ের মধ্যে যেই কাজগুলি করব বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি সেই কাজগুলি আমি সম্পন্ন করতে চাই। সেই ক্ষেত্রে কেউ যদি প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে বা কোনো রকম দুর্নীতি করে, বা কোনো রকম নয় ছয় করে, তার বিরুদ্ধে যথযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সেখানে কোনো মুখ চাওয়া-চাওয়ি হবে না।’

গত ১ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হয় ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচন। ঢাকা দক্ষিণে আওয়ামী লীগ প্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপস জয়ী হয়েছেন পৌনে দুই লাখ ভোটের ব্যবধানে। তিনি পেয়েছেন ৪ লাখ ২৪ হাজার ৫৯৫ ভোট। তার প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির ইশরাক হোসেন ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ২ লাখ ৩৬ হাজার ৫১২ ভোট।

শপথগ্রহণ শেষে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের নব-নির্বাচিতরা

অন্যদিকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে পৌনে দুই লাখ ভোটের ব্যবধানে জিতে মেয়র নির্বাচিত হন আওয়ামী লীগের প্রার্থী আতিকুল ইসলাম। নৌকা প্রতীক নিয়ে তিনি পান ৪ লাখ ৪৭ হাজার ২১১ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির প্রার্থী তাবিথ আউয়াল ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২ লাখ ৬৪ হাজার ১৬১ ভোট।

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের চারদিনের মাথায় অর্থাৎ ৫ ফেব্রুয়ারি মেয়র ও কাউন্সিলর পদে বিজয়ীদের নাম-ঠিকানাসহ গেজেট প্রকাশ করে সরকার। নির্বাচন কমিশনের নির্বাচন প্রশাসন শাখা স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইন-২০০৯ অনুযায়ী ওই গেজেট প্রকাশ করে। তবে দক্ষিণ সিটির ৩১ নম্বর ওয়ার্ডের ফল স্থগিত থাকায় সেই ওয়ার্ড বাদ দিয়ে এ গেজেট প্রকাশ হয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন