বৃহস্পতিবার| এপ্রিল ০২, ২০২০| ১৮চৈত্র১৪২৬

শেয়ারবাজার

আইপিওর অর্থ ব্যবহারে অনিয়ম

রিংশাইন টেক্সটাইলকে শুনানিতে ডেকেছে কমিশন

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে পুঁজিবাজার থেকে সংগৃহীত তহবিল ব্যবহারে অনিয়মের বিষয়ে ব্যাখ্যা দেয়ার জন্য রিংশাইন টেক্সটাইলের পর্ষদকে শুনানিতে ডেকেছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) আজ বেলা ১১টায় কমিশনে রিংশাইন টেক্সটাইলের কর্মকর্তাদের শুনানিতে হাজির হওয়ার কথা রয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রিংশাইন টেক্সটাইলের কোম্পানি সচিব আশরাফ আলী বণিক বার্তাকে বলেন, আইপিও তহবিল থেকে ব্যাংকঋণ পরিশোধের ক্ষেত্রে প্রসপেক্টাসে উল্লিখিত ব্যাংকের পরিবর্তে অন্য একটি ব্যাংককে ঋণ পরিশোধের কারণে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা তলব করে কমিশনের পক্ষ থেকে শুনানিতে ডাকা হয়েছে। কমিশনের কাছে আইপিও তহবিল ব্যয় পরিকল্পনা পরিবর্তনের বিষয়ে আমরা আমাদের ব্যাখ্যা তুলে ধরব। আশা করি তারা বিষয়টি বিবেচনা করবেন।

আজ কমিশনের শুনানিতে কোম্পানির পক্ষে কারা উপস্থিত থাকবেন এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, কমিশনের চিঠিতে এমডিসহ পর্ষদকে উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। তবে পর্ষদের পক্ষে তাদের প্রতিনিধির মাধ্যমেও শুনানিতে উপস্থিত হওয়ার সুযোগ রয়েছে বলে জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, গত বছর পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বস্ত্র খাতের কোম্পানি রিংশাইন টেক্সটাইল আইপিওর মাধ্যমে ১৫০ কোটি টাকা সংগ্রহ করে। আইপিও প্রসপেক্টাস অনুসারে সংগৃহীত তহবিলের মধ্যে ৯৬ কোটি ৪০ লাখ টাকা মেশিনারিজ ও অন্যান্য সরঞ্জাম অধিগ্রহণ, ৩ কোটি ৬০ লাখ টাকা আইপিও প্রক্রিয়ার ব্যয় নির্বাহ এবং উরি ব্যাংকের ২২ কোটি ও ঢাকা ব্যাংকের ২৮ কোটি টাকার ঋণ পরিশোধে ব্যয় করার কথা ছিল। কিন্তু গত বছরের ২৯ ডিসেম্বর আইপিওর মাধ্যমে উত্তোলিত তহবিলের ব্যয় পরিকল্পনায় সংশোধন আনার সিদ্ধান্ত নেয় রিংশাইন টেক্সটাইলসের পরিচালনা পর্ষদ। সংশোধিত পরিকল্পনা অনুসারে, উরি ব্যাংকের পরিবর্তে প্রিমিয়ার ব্যাংককে ২২ কোটি টাকার ঋণ পরিশোধের সিদ্ধান্ত নেয় কোম্পানিটি। এরই মধ্যে আইপিও তহবিল থেকে ব্যাংকটিকে অর্থ পরিশোধ করা হয়েছে।

কোম্পানিটিকে প্রসপেক্টাসে উল্লিখিত খাতে আইপিও অর্থ ব্যয়ের শর্তে গত বছরের ২৯ জুলাই সম্মতিপত্র (কনসেন্ট লেটার) দিয়েছিল বিএসইসি। কিন্তু আইপিওতে আসার পরেই কনসেন্ট লেটারের শর্তের ব্যত্যয় ঘটিয়ে অন্য খাতে আইপিওর অর্থ ব্যয় করেছে কোম্পানিটি। রিংশাইন টেক্সটাইল কনসেন্ট লেটারের শর্ত ভঙ্গ করে আইপিওর অর্থ ব্যয় করলেও কোম্পানিটি এ শর্ত অনুসারেই আইপিও অর্থ ব্যয় করেছে বলে সার্টিফাই করেছেন আইপিও তহবিল ব্যবহার সংক্রান্ত প্রতিবেদন নিরীক্ষার দায়িত্বে থাকা নিরীক্ষক। প্রতিবেদনটিতে স্বাক্ষর করেছেন সিরাজ খান বসাক অ্যান্ড কোম্পানি চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টসের পার্টনার রামেন্দ্র নাথ বসাক এফসিএ।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন