সোমবার| এপ্রিল ০৬, ২০২০| ২২চৈত্র১৪২৬

পণ্যবাজার

চীনে পাম অয়েলের বাজার হারিয়েছে ইন্দোনেশিয়া

বণিক বার্তা ডেস্ক

প্রাণঘাতী নভেল করোনাভাইরাস চীনের অর্থনীতিকে টালমাটাল অবস্থায় ফেলেছে। স্থবির হয়ে পড়েছে আমদানি-রফতানি কার্যক্রম। শ্লথ হয়েছে ব্যবসা-বাণিজ্য। এ পরিস্থিতিতে ইন্দোনেশিয়া থেকে চীনের বাজারে পাম অয়েল রফতানি কমে গেছে। খবর জাকার্তা পোস্ট ও রয়টার্স।

পাম অয়েলের শীর্ষ উৎপাদক ও রফতানিকারক দেশ ইন্দোনেশিয়া। অন্যদিকে চীন পণ্যটির শীর্ষ আমদানিকারক দেশ। ইন্দোনেশিয়ার সরকারি তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে ইন্দোনেশিয়া থেকে চীনের বাজারে সাকল্যে ৮৪ হাজার টন পাম অয়েল রফতানি হয়েছে।

গত বছরের একই সময়ে ইন্দোনেশীয় রফতানিকারকরা চীনে সব মিলিয়ে ৩ লাখ ৭১ হাজার টন পাম অয়েল রফতানি করেছিলেন। সে হিসাবে এক বছরের ব্যবধানে ইন্দোনেশিয়া থেকে চীনে পণ্যটির রফতানি কমেছে ২ লাখ ৮৭ হাজার টন।

শুধু আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় নয়, বরং গত জানুয়ারির তুলনায় ফেব্রুয়ারিতে ইন্দোনেশিয়া থেকে চীনে পাম অয়েল রফতানি কমেছে প্রায় চার লাখ টন। গত জানুয়ারিতে চীনের বাজারে ইন্দোনেশিয়া থেকে ৪ লাখ ৮৩ হাজার টন পাম অয়েল রফতানি হয়েছিল।

ইন্দোনেশিয়ার সরকারি মুখপাত্র কাসদি সুবাগায়নো বলেন, নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ চীনের সঙ্গে পাম অয়েল বাণিজ্যে ধস নামিয়েছে। এটা আমাদের জন্য বড় একটি চ্যালেঞ্জ। তবে এখন পর্যন্ত শুধু চীনের বাজারে পণ্যটির রফতানি কমেছে। অন্যান্য দেশ ইন্দোনেশিয়া থেকে পাম অয়েল আমদানি বাড়িয়েছে। বিশেষত ভারতীয় আমদানিকারকরা ইন্দোনেশিয়া থেকে পাম অয়েল কেনা বাড়িয়ে দিয়েছেন।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন