বৃহস্পতিবার| ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২০| ৭ফাল্গুন১৪২৬

খেলা

কলিন্দ্রেসে রক্ষা চ্যাম্পিয়নদের

ক্রীড়া প্রতিবেদক

নীলফামারী বসুন্ধরা কিংসের হোম ভেনু। এখানে গত লিগে ১২ ম্যাচের ১১টিতেই জিতেছিল কিংস। বাকি একটি ম্যাচ ড্র। গত বছর কিংসের লিগ শিরোপা জয়ের পথে মাঠ রাখে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। এবার এইপয়মন্তমাঠেই হোঁচট খেতে বসে বাংলাদেশ ফুটবলে হালের পরাশক্তি কিংস। গতকাল এবারের প্রিমিয়ার লিগে উদ্বোধনী ম্যাচে ৮৭ মিনিট পর্যন্ত চ্যাম্পিয়নদের আটকে রাখে লিগে ফেরা উত্তর বারিধারা। ম্যাচ শেষ হওয়ার মিনিট বাকি থাকতে জয়সূচক গোলটি করেন বিশ্বকাপ অভিজ্ঞতাপুষ্ট দানিয়েল কলিন্দ্রেস।

নীলফামারী শেখ কামাল স্টেডিয়ামে ঢাকঢোল বাজানোর মধ্য দিয়েই মাঠে নামে চ্যাম্পিয়নরা। প্রিয় দলকে সমর্থন জানাতে নামে দর্শকের ঢল। গ্যালারির উচ্ছ্বাসের ছোঁয়া দেখা যায়নি চ্যাম্পিয়নদের খেলায়। নিষ্প্রাণ প্রথমার্ধে মাত্র একবারই গোল করার মতো পরিস্থিতির সৃষ্টি করতে পেরেছিল বিগ বাজেটের দলটি। ম্যাচের সপ্তম মিনিটে কিংসের কোস্টারিকান ফরোয়ার্ড কলিন্দ্রেসের শট চলে যায় বার উঁচিয়ে। বল দখলে এগিয়ে থাকলেও অস্কার ব্রুজোনের শিষ্যরা খেই হারিয়েছেন বারিধারা ডি-বক্সে। উল্টো সুযোগ পেলেই প্রতি আক্রমণে শক্তিশালী প্রতিপক্ষকে বিপদে ফেলার চেষ্টা করেছে বারিধারা। ৪০ মিনিটে বারিধারার গাম্বিয়ান ফরোয়ার্ড ল্যান্ডিং ডারবোর ফ্রি-কিক থেকে বিপদ হতে পারত কিংসের। গোলরক্ষক জিকো দারুণ তত্পরতায় শট ফিরিয়ে দেন।

দ্বিতীয়ার্ধে কিছুটা চেনা চেহারায় ফেরে চ্যাম্পিয়নরা। আক্রমণের ধারাবাহিকতায় গোলের সুযোগও পায় দলটি। ৭০ মিনিটে কলিন্দ্রেসের শট প্রতিহত হয় পোস্টে লেগে। গোলের সুযোগ পেয়েছিল বারিধারাও। ম্যাচের ৮৬ মিনিটে তাদের একটি প্রচেষ্টা প্রতিহত হয় পোস্টে লেগে। এর পরের মিনিটেই কাঙ্ক্ষিত গোলটি পায় কিংস। সময় বদলি হিসেবে নামা সুফিলের ক্রস ঠিকভাবে ধরতে ব্যর্থ হন বারিধারা গোলরক্ষক। ফিরতি বল পেয়ে যান সুযোগসন্ধানী স্ট্রাইকার কলিন্দ্রেস। আলতো টোকায় জালে জড়িয়ে দেন বল। হাঁফ ছেড়ে বাঁচেন দর্শকরা। শেষ সময়ে গোল খেয়েও উদ্যম হারায়নি বারিধারা। একটা ফ্রি-কিকও পেয়েছিল। কিন্তু আবারো ত্রাতা হয়ে দাঁড়ান জিকো।

সাবেক জাতীয় দলের অধিনায়ক আলফাজের কোচিং ক্যারিয়ারের শুরুটা হতে পারত স্বপ্নের মতোই। বারিধারার দায়িত্ব নিয়ে লিগে কোচ হিসেবে যাত্রা শুরু করলেন সাবেক এই তিনি। তার শিষ্যরা ভালোই চাপে রেখেছিল গতবারের চ্যাম্পিয়নদের। কিন্তু কলিন্দ্রেসের গোল ড্র বঞ্চিত করল আলফাজের বারিধারাকে।

গতকাল ঢাকায় শেখ জামালকে - গোলে হারিয়েছে চট্টগ্রাম আবাহনী। গোল করেন ম্যাথিউ চিনেদু চার্লস দিদিয়ের। এদিকে সিলেটে ব্রাদার্স ইউনিয়নের বিপক্ষে লিড নিয়েও জিততে পারেনি শেখ রাসেল। ম্যাচের তৃতীয় মিনিটে রাফায়েল ওডোভিনের গোলে এগিয়ে যায় শেখ রাসেল। খেলার ৫৯ মিনিটে আতাবেক ভ্যালিদিয়ানোভের গোলে সমতায় ফেরে ব্রাদার্স।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন