শুক্রবার| ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২০| ১৫ফাল্গুন১৪২৬

শেষ পাতা

ইউজিসির সঙ্গে উপাচার্যদের সভায় সিদ্ধান্ত

আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকেই কেন্দ্রীয়ভাবে ভর্তি পরীক্ষা

নিজস্ব প্রতিবেদক

আগামী শিক্ষাবর্ষ (২০২০-২১) থেকে দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলো একযোগে কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। গতকাল বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) সঙ্গে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের এক সভায় সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। ইউজিসি থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে কথা জানানো হয়।

সভায় ইউজিসি চেয়ারম্যান বলেন, আমরা আশা করছি মার্চের প্রথম সপ্তাহ থেকে কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে পুরোদমে কার্যক্রম শুরু হবে। ভর্তির প্রক্রিয়া এগিয়ে নিতে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে ইউজিসি সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে। কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের নিয়ে বিভিন্ন কমিটি গঠন করা হবে। ভর্তি পরীক্ষার রূপরেখা পরীক্ষা পদ্ধতিসহ বিভিন্ন বিষয় যথাসময়ে জানানো হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

ইউজিসি চেয়ারম্যান কাজী শহীদুল্লাহর  সভাপতিত্বে কমিশনে অনুষ্ঠিত সভায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক . মো. আখতারুজ্জামান, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক . আব্দুস সোবহান, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক . লুত্ফুল হাসান, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক . সাইফুল ইসলাম, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক . শিরীণ আখতার, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক . ফারজানা ইসলাম, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক . মো. হারুন-উর-রশিদ আসকারী, শাহজালাল বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক . মো. গিয়াসউদ্দীন মিয়া, শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক . মো. কামাল উদ্দিন আহম্মদ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক . মীজানুর রহমান এবং কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক . এমরান কবির চৌধুরী এবং ইউজিসি সদস্য অধ্যাপক . দিল আফরোজা বেগম, অধ্যাপক . মো. সাজ্জাদ হোসেন অধ্যাপক . মুহাম্মদ আলমগীর উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, এর আগে গত মঙ্গলবার পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সংগঠন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদের স্ট্যান্ডিং কমিটির ২৬২তম সভায় কেন্দ্রীয়ভাবে ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে একমত হন উপাচার্যরা। তবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বুয়েটের উপাচার্য ওই সভায় ছিলেন না।

গতকাল সভার বিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আখতারুজ্জামান বলেন, সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা বিষয়ে মতামত জানতে গত শনিবার আমরা বিশিষ্ট শিক্ষাবিদদের সঙ্গে একটি সভা করি। সেখানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত প্রাক্তন উপাচার্যবৃন্দ, জাতীয় অধ্যাপক, প্রফেসর ইমেরিটাস, ইউজিসি অধ্যাপক ডিনরা উপস্থিত ছিলেন। ওই সভায় সম্মানিত ব্যক্তিরা আমাদের পরামর্শ দেন যে, বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিল অ্যাডমিশন কমিটির সঙ্গে আলাপ করে অধ্যাদেশের আলোকে যেন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। সে আলোকে গতকাল ইউজিসির সভায় আমরা বলেছি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কার্যক্রমের সব সিদ্ধান্ত আসে একাডেমিক কাউন্সিল থেকে। সেখানে আলোচনা করে আমরা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করব।

সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার খসড়া নীতিমালা: সমন্বিত পরীক্ষার জন্য একটি খসড়া নীতিমালা প্রণয়ন করেছে ইউজিসি। সেখানে বলা হয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর লক্ষ্য, উদ্দেশ্য এবং পঠন-পাঠন প্রক্রিয়ার ভিন্নতা সত্ত্বেও তাদের ভর্তি পরীক্ষাগুলো কেবল এইচএসসি পরীক্ষায় পঠিত বিষয়গুলোর ভিত্তিতেই গৃহীত হয়ে থাকে। বিষয়টি বিবেচনায় রেখে উচ্চ মাধ্যমিক ফল প্রকাশের পর পরই পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলো কেন্দ্রীয় ভর্তি কমিটি কর্তৃক প্রদত্ত সময় অনুযায়ী তাদের নিজ নিজ ক্যাম্পাসে ভর্তি পরীক্ষার আয়োজন করবে। কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোয় ভর্তিচ্ছু ছাত্র-ছাত্রীদের একটি স্কোর করে দেয়া হবে।

এই বিভাগের আরও খবর

আরও পড়ুন